১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার ০৯:১৯:৩৮ পিএম
সর্বশেষ:

১২ জুলাই ২০১৮ ০১:২১:৪৫ এএম বৃহস্পতিবার     Print this E-mail this

কৃতি কোচ সাচ্চুর মৃত্যু

যশোর প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 কৃতি কোচ সাচ্চুর মৃত্যু

যশোরের ফুটবলার তৈরির কারিগর এমদাদুল হক সাচ্চু মঙ্গলবার মৃত্যুবরণ করেছেন। (ইন্না লিল্লাহি ... ... রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর। তিনি এদিন সকাল সাতটায় খুলনার শেখ আবু নাছের হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। আছরবাদ যশোর ঈদগাহ ময়দানে তার নামাজে জানাযা সম্পন্ন হয়। নামাজে জানাযা শেষে তার লাশ যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্থায় নেওয়া হয়। সেখানে বিভিন্ন সংগঠন তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানায়। তাকে কারবালা কবরস্থানে দাফন করা হয়।
এমদাদুল হক সাচ্চু যশোর শহরের রেলরোডে জন্মগ্রহন করেন।
তিনি গত ৩০জুন নিজেই যশোর সদর হাসপাতালে ভর্তি হন। পরবর্তীতে অবস্থার অবনতি হলে তাকে খুলনা আবু নাসের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
১৯৬৩ সালে যশোরের প্রখ্যাত খেলোয়াড় সালেহ আহমেদের অনুপ্রেরণায় ফুটবল অঙ্গণে আসেন এমদাদুল হক সাচ্চু। তিনি খুলনা বিভাগীয় পর্যায়ের একজন ভাল এ্যাথলেটার ছিলেন। এরপর ফুটবলের সাথে জড়িয়ে পড়েন। ইস্ট বেঙ্গল দলের সক্রিয় ফুটবলার হয়ে ওঠেন। ১৯৬৪ থেকে ১৯৬৬ এ তিন বছর ইস্ট বেঙ্গল ক্লাবের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৬৯ সালে ১ বছরের জন্য তিনি সিএন্ডবি দলের হয়ে খেলেছেন। পরবর্তী ৩ বছর যশোর টাউন ক্লাবের হয়ে খেলে সফলতা অর্জন করেন। এরপর তিনি খেলা ছেড়ে প্রশিক্ষক প্রশিক্ষণ নেন। ১৯৮৩ সালে ঢাকায় এ প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করেন এমদাদুল হক সাচ্চু। জাতীয় ক্রীড়া নিয়ন্ত্রণ বোর্ডের ব্যবস্থাপনায় এ কোর্স অনুষ্ঠিত হয়। শামস-উল-হুদা ও কামাল উদ্দিন হাফেজের সহযোগিতায় এ কোর্স করেন সাচ্চু। ট্রেনিং শেষ করে যশোর হাশিমপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে কোচিং জীবন শুরু করেন। প্রথম বছরেই এ বিদ্যালয় থেকে যশোর জেলা দলে সুযোগ পেয়ে যায় অনেকে। এর মধ্যে ছিলেন জিল্লুর রহমান, রাজা, সাইদ ও হক। ১৯৯১ সালে খুলনা বিভাগীয় ফুটবল দলের কোচের দায়িত্ব পান এমদাদুল হক সাচ্চু। বিভাগীয় পর্যায়ের ফুটবল প্রতিযোগিতায় তার দল সেমিফাইনালে খেলে। ওই বছর তার ছাত্র হালিম রেজা, জয়নাল আবেদীন, মান্না দে লিটু ও হারান চন্দ্র দে খুলনা বিভাগীয় ফুটবল দলে সুযোগ পান। যশোর ইনস্টিটিউট দলকে ট্রেনিং করান তিনি। সে বছরই যশোর ইনস্টিটিউট দল খুলনা বিভাগীয় চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে। ৩৩ জন খেলোয়াড় নিয়ে তিনি পুনরায় ফুটবল প্রশিক্ষণ শুরু করেন। ঐ বছর ১১ জন খেলোয়াড় সুযোগ পায় যশোর জেলা দলে। ফলশ্রুতিতে টাউন ক্লাব পরপর দুই বছর জেলা পর্যায়ে চ্যাম্পিয়ন হয়। এর পর এমদাদুল হক সাচ্চু মেয়েদের (প্রমীলা) ফুটবল প্রশিক্ষণ শুরু করান। সোনিয়াকে নিয়ে শুরু করে অসংখ্য মেয়ে ফুটবলার তার কাছে প্রশিক্ষণ নিয়ে হয়েছেন নামকরা ফুটবলার। ২০১০ সালে তার প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত নয়জন মেয়ে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ১৯ দলে সুযোগ পায়। কিছু দিন আগে নয় জন নারী ফুটবলার মালয়েশিয়ায় খেলার সুযোগ পায়। সারা বাংলাদেশে মাত্র ছয় জন মেয়ে আমেরিকায় ফুটবলের উন্নত প্রশিক্ষণের সুযোগ পেয়েছিল। এর মধ্যে তার তিন জন সাচ্চুর শিষ্য প্রশিক্ষণার্থী ছিল। তারা হচ্ছেন বেলি, খালেদা ও লিমা। শ্রীলংকায় অনুষ্ঠিত এএফসি গার্লস ফুটবল টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৪ দলের কোচ ও চিফ ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করেন সাচ্চু। এ প্রতিযোগিতায় তৃতীয় হয়েছিল বাংলাদেশ দল। তাছাড়া এএফসি ফেয়ার প্লে  ট্রফি পায় তার দল। তার সাতজন ছাত্রী সাবিনা, খালেদা, বেলি, মলি, সবুরা, সাজেদা ও শারমিন ভারতে গিয়ে প্রীতি ম্যাচ খেলে। তাছাড়া তার সাত শিষ্য এসএ গেমসে মেয়েদের হযে খেলার সুযোগ পেয়েছিল। শুধু তাই নয় তার ছাত্র বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়েও খেলেছেন। এর মধ্যে কাজী জামাল হোসেন, মাসুদুর রহমান টনি উল্লেখযোগ্য।
এমদাদুল হক সাচ্চু আত্মার মাগফিরাত ও তার শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি জানিয়েছেন, ঝিকরগাছা, চৌগাছা আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড মনিরুল ইসলাম, যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাবেক সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা ইয়াকুব কবির, যুগ্ সম্পাদক এবিএম আখতারুজ্জামানসহ আরো অনেকে।
বাংলাদেশ ক্রীড়া লেখক সমিতির যশোর জেলা শাখার সভাপতি চিন্ময় সাহা, সাধারন সম্পাদক আব্দুর রহিম কালু, সদস্য সৈয়দ আবু আহসান মিটন, মালেকুজ্জামান কাকা, আফম টিটো, কৃতি কোচ এমদাদুল হক সাচ্চুর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন। এদিন তার প্রতি ক্রীড়া লেখক সমিতির নেতৃবৃন্দ তাকে ফুলেল শোকজ্ঞাপন করেন।


সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
কার্যালয়
জামান টাওয়ার (৮ম তলা), ৩৭/২ কালভাট রোড, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2018. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close