১৮ অক্টোবর ২০১৮, বৃহস্পতিবার ০৩:৪৫:১২ পিএম
সর্বশেষ:

২৪ জুলাই ২০১৮ ১২:০৬:০৮ এএম মঙ্গলবার     Print this E-mail this

যশোরের বাজারে পেঁয়াজের দাম উর্দ্ধমূখী

যশোর থেকে বিশেষ প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 যশোরের বাজারে পেঁয়াজের দাম উর্দ্ধমূখী

যশোরের বাজারে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। প্রতি কেজিতে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে পাঁচ টাকা থেকে ১০ টাকা। কমেছে সবজির দাম।  ৫ টাকা থেকে ১০ টাকা কমেছে সবজির দাম। অপরিবর্তিত আছে চাল, ডাল, আলু, রসুন, ভোজ্য তেলসহ অন্যান্য পণ্যের দাম। শহরের বড় বাজার ঘুরে এ তথ্য পাওয়া গেছে।
বাজারে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। অপিরিবর্তিত আছে কাচা মরিচ, রসুন ও আলুর দাম। গত কয়েকদিন বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ কিছুটা কমে গেছে। ফলে কেজিতে পেঁয়াজের দাম পাঁচ টাকা থেকে ১০ টাকা বেড়েছে। প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হয় ৪৫ টাকা থেকে ৫০ টাকা। ৫০ টাকা থেকে ৬০ টাকা কেজি বিক্রি হয় রসুন। প্রতি কেজি আমদানিকৃত রসুন বিক্রি হয় ১০০ টাকা। প্রতি কেজি আলু বিক্রি হচ্ছে ২২ টাকা থেকে ২৪ টাকা। কাচা মরিচ বিক্রি হয় ১৪০টাকা কেজি।
বাজারে সবজির দাম বেশ কমেছে। সরবরাহ বেড়ে যাওয়ায় গত কয়েকদিনে কেজিতে ৫ টাকা থেকে ১০ টাকা কমেছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। প্রতি কেজি বেগুন বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা থেকে ৪৫ টাকা দরে। ২৫ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে কুশি। প্রতি কেজি কুমড়া বিক্রি ২০ টাকা থেকে ২৫ টাকা দরে। ৪০ টাকা কেজি বিক্রি হতে দেখা যায় কচুরলতি। প্রতি কেজি কাঁকরোল বিক্রি হয় ৪০ টাকা থেকে ৪৫ টাকা। ৩০ টাকা কেজি বিক্রি হয় ঢেড়স। প্রতি কেজি পটল বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকা থেকে ২৫ টাকা। ৩৫ টাকা থেকে ৪০ টাকা কেজি দর বরবটির। প্রতি কেজি পেঁপে বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকা। ৬০ টাকা কেজি উচ্ছে। প্রতি কেজি ঝিঙে বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকা। ২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয় পুইশাক। প্রতি কেজি টমেটো বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকা। ২০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে ডাটা। ২৫ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে কলা। প্রতি কেজি ধুন্দল ৩০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। ৪০ টাকা কেজি কচুরমুখি ও ওল।
বাজারে ভোজ্য তেলের দাম বাড়েনি। প্রতি কেজি সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ৯২ টাকা। ৮০ টাকা থেকে ৮৪ টাকা কেজি বিক্রি সুপার পাম তেল। প্রতি কেজি পাম তেল বিক্রি হচ্ছে ৭৮ টাকা থেকে ৮০ টাকা।
বাজারে ডালের দাম আগের মত আছে। প্রতি কেজি দেশি মুসুর ডাল বিক্রি হয় ৮৫ টাকা থেকে ৯০ টাকা। ৫০ টাকা থেকে ৭০ টাকা বিক্রি হয় আমদানিকৃত মুসুর ডাল। প্রতি কেজি ছোলার ডাল বিক্রি হয় ৮০ টাকা। ৩০ টাকা থেকে ৩৫ টাকা কেজি বিক্রি হয় বুটের ডাল। প্রতি কেজি মুগের ডাল বিক্রি হয় ১০০ টাকা থেকে ১৪০টাকা। ৬৫ টাকা কেজি বিক্রি হয় কলাইয়ের ডাল।
বাজারে চালের দাম অপরিবর্তিত আছে। প্রতি কেজি স্বর্ণা চাল বিক্রি হয় ৩৩ টাকা থেকে ৩৪ টাকা। আমদানিকৃত মোটা চাল বিক্রি হয় ৩৯ টাকা থেকে ৪০ টাকা। প্রতি কেজি বিআর-২৮ চাল বিক্রি হয় ৩৮ টাকা থেকে ৪০ টাকা। ৪০ টাকা থেকে ৪২টাকা কেজি বিক্রি হয় কাজল লতা চাল। প্রতি কেজি মিনিকেট চাল বিক্রি হয় ৪৬ টাকা থেকে ৫০ টাকা।


সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
কার্যালয়
জামান টাওয়ার (৮ম তলা), ৩৭/২ কালভাট রোড, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2018. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close