১৮ অক্টোবর ২০১৮, বৃহস্পতিবার ০৩:৫৮:১১ পিএম
সর্বশেষ:

০৮ আগস্ট ২০১৮ ০১:৩৯:৪০ পিএম বুধবার     Print this E-mail this

মুখ খুললেন সাকিব

স্পোর্টস ডেস্ক
বাংলার চোখ
 মুখ খুললেন সাকিব

উইন্ডিজের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়ের পর সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে হঠাৎ করেই একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। যেখানে দেখা যায়, ফ্লোরিডার টিম হোটেলে ফেরার সময় লবিতে দাঁড়ানো এক প্রবাসী যুবকের দিকে তেড়ে যাচ্ছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। ভিডিওতে আরও দেখা যায়, এ সময় সাকিব ক্ষিপ্ত হয়ে উঠলে সেখানে উপস্থিত থাকা অন্যরা তাকে শান্ত করে হোটেলের ভেতরে পাঠিয়ে দেন।

৫৭ সেকেন্ডের ওই ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়তেই শুরু হয়ে যায় বিতর্ক। সমালোচনায় বিদ্ধ হতে থাকেন সাকিব। তবে হোটেল লাউঞ্জে উপস্থিত সাকিবের সতীর্থদের বরাত দিয়ে জানা যায়, একজন সমর্থক প্রথমে সাকিবের সঙ্গে সেলফি তোলেন। পাশাপাশি বারবার অটোগ্রাফ চাওয়া হচ্ছিল। আবার সাকিবকে নিয়ে ভিডিও করতে চান তিনি। ভক্তের সব আবদার রাখতে পারেননি টানা ম্যাচ খেলে ক্লান্ত সাকিব।

সাকিবের ‘না’ পছন্দ হয়নি ওই সমর্থকের। তিনি সাকিবের উদ্দেশে বলে ওঠেন ‘ভাব মারায়’। এতে খেপে যান সাকিব। সমর্থকের দিকে তেড়ে গিয়ে দুই-একটি কথা শোনান বাংলাদেশ অধিনায়ক। এ ঘটনা নিয়ে এবার নিজেই মুখ খুলেছেন সাকিব। ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টে এ ঘটনার ব্যাখ্যা দেন উইন্ডিজের বিপক্ষের টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়ের নায়ক।

ওই পোস্টে সাকিব লিখেছেন, ‘আমার প্রিয় ভক্ত এবং অনুসারীদের উদ্দেশে কিছু কথা বলতে চাই। সম্প্রতি আমাকে নিয়ে একটি ভিডিও আপলোড করা হয়েছে, যেখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের পর লবিতে আমাকে এবং আমার একজন তথাকথিত “ফ্যান”-এর সঙ্গে তর্ক-বিতর্ক করতে দেখা যায়। এই ক্লিপটি সম্পূর্ণ ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে, যা প্রকৃত ঘটনা প্রকাশ করে না।

পর-পর ম্যাচ থাকায় আমি এবং আমার সহকর্মীরা বেশ ক্লান্ত ছিলাম এবং আমরা আমাদের রুমে ফিরে যাচ্ছিলাম। আমরা আমাদের নিজস্ব সরঞ্জাম এবং ব্যাগ বহন করছিলাম, তাই আমাদের হাত পূর্ণ ছিল; তখন কোনোভাবেই অটোগ্রাফ দেওয়া সম্ভব ছিল না।

আমরা সর্বদাই আমাদের ভক্তদের সঙ্গে সময় কাটাতে পছন্দ করি এবং তাদের সঙ্গে ছবি তুলে, অটোগ্রাফ দিয়ে মুহূর্তগুলো ভাগ করে নেওয়ার চেষ্টা করি। কিন্তু ভক্তদেরও বুঝতে হবে যে, আমরাও মানুষ। আমরা মাঠে একটা বিজয় অর্জনের জন্য প্রাণপণ লড়াই করি। আমাদের কি ব্যস্ত কিংবা ক্লান্ত অনুভব করার অনুমতি নেই?

আমরা আপনাদের সমর্থন বুঝি এবং সবসময় প্রশংসা করি। চেষ্টা করি আপনাদের সমর্থনের প্রতিদান যাতে আমরা মাঠে ভালো খেলার মাধ্যমে দিতে পারি। কিন্তু মাঝে মাঝে আমাদের এই কঠিন পরিশ্রম এবং কঠোর চেষ্টার সঙ্গে সবসময় নিজেকে গুছিয়ে রাখা কষ্টকর হয়ে পড়ে।

আমার আপনাদের কাছে বিনীত অনুরোধ থাকবে যে, আমাদের মধ্যে কেউ যদি আপনাদের অনুরোধ না রাখতে পারি, তবে তা ব্যক্তিগতভাবে নিবেন না। কারণ আমরা যে পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছি তা হয়তো আপনি যা দেখছেন তা থেকে ভিন্ন হতে পারে। হুটহাট আমাদের পরিস্থিতি বিবেচনা না করে কিংবা আমরা কেমন মুডে আছি তা বোঝার চেষ্টা ছাড়াই কোনো সিদ্ধান্ত বা মতামত দিতে ব্যস্ত হয়ে পড়বেন না।

আমি আমার ভক্তদের অসম্ভব ভালোবাসি এবং আমি মাঠে তাদের জন্যই খেলি সেটা জাতীয় দল হোক কিংবা কোনো লিগের জন্য হোক। একই সঙ্গে আমি আমার ভক্তদের কাছ থেকে সম্মান, ভালোবাসা এবং তারা আমাকে বুঝবে এমনটাই আশা করি।

আমি জানি কিছু মানুষ, যারা হয়তো আমাকে ফলো করে অথবা করে না কিন্তু সবসময় ছোট ছোট বিষয়ে আমাকে নিচু করতে পছন্দ করে। তাদের উদ্দেশে আমি বলতে চাই, আমাদের থেকে ভালো কিছু প্রত্যাশা করতে হলে এই নিচু মানসিকতা পরিবর্তন প্রয়োজন। প্রত্যেকটা ম্যাচে আমরা এমনিতেই অনেক বেশি চাপে থাকি, নতুন কোনো চাপ প্রয়োগ না করার জন্য বিশেষ অনুরোধ করা হলো। আর এই মানসিকতার বাইরে যারা আছেন আমি সর্বদা তাদের পাশে আছি।

সবার জন্য আমার তরফ থেকে ভালোবাসা রইল।’

সাকিবের ফেসবুক পোস্ট



সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
কার্যালয়
জামান টাওয়ার (৮ম তলা), ৩৭/২ কালভাট রোড, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2018. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close