১৮ জানুয়ারি ২০১৯, শুক্রবার ১১:১৭:৫৩ এএম
সর্বশেষ:

০৮ জানুয়ারি ২০১৯ ০৭:২৯:৪৫ পিএম মঙ্গলবার     Print this E-mail this

আজ নির্মল সেনের ৬ষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী

ষ্টাফ করেসপন্ডেন্ট, গোপালগঞ্জ
বাংলার চোখ
 আজ নির্মল সেনের ৬ষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী

বিশিষ্ট সাংবাদিক, কলামিষ্ট, লেখক, রাজনীতিক, মুক্তিযোদ্ধা নির্মল সেনের ষষ্ঠ মৃত্যু বার্ষিকী আজ মঙ্গলবার। ২০১৩ সালের ৮ জানুয়ারী সন্ধ্যায় ৮৩ বছর বয়সে রাজধানী ঢাকার ল্যাব এইড হাসপাতালে তিনি পরলোক গমন করেন।

তার ষষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী পালন উপলক্ষে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় নির্মল সেন স্মৃতি সংসদ স্মরণ সভার আয়োজন করেছে। এছাড়াও শ্রমিক কৃষক সমাজবাদী দল ঢাকার তোপখানায় নির্মল সেন মিলনায়তনে সকালে তার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন।

সংবাদপত্র ও সাংবাদিকতা জগতের এক উজ্জল নক্ষত্র, বিশিষ্ট সাংবাদিক, কলামিষ্ট, বাম রাজনীতির পুরোধা, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক নির্মল সেন ১৯৩০ সালের ৩ আগষ্ট গোপালগঞ্জ জেলার কোটালীপাড়া উপজেলার দিঘীরপাড় গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত হিন্দু পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। তার বাবার নাম সুরেন্দ্রনাথ সেন গুপ্ত ও মাতার নাম লাবন্য প্রভা সেন গুপ্ত। পাঁচ ভাই ও তিন বোনের মধ্যে নির্মল সেন ছিলেন পঞ্চম।

নির্মল সেনের রাজনৈতিক জীবন শুরু হয় ”ভারত ছাড়ো” আন্দোলনের মাধ্যমে ষ্কুল জীবন থেকে। কলেজ জীবনে তিনি অনুশীলন সমিতির সক্রিয় সদস্য ছিলেন। পরবর্তীতে তিনি আরএসপিতে যোগ দেন। দীর্ঘ দিন তিনি শ্রমিক কৃষক সমাজবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। রাজনীতি করতে গিয়ে নির্মল সেনকে জীবনের অনেকটা সময় জেলে কাটাতে হয়েছে।

নির্মল সেন দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় সাংবাদিকতার মধ্যে দিয়ে সাংবাদিকতার জীবন শুরু করেন ১৯৫৯ সালে। তার পর দৈনিক আজাদ, দৈনিক পাকিস্তান, দৈনিক বাংলা পত্রিকায় সাংবাদিকতা করেন। তিনি বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন।

লেখক হিসেবেও নির্মল সেনের যথেষ্ট সুনাম রযেছে। তার লেখা “পূর্ব পাকিস্তান থেকে বাংলাদেশ”, “মানুষ সমাজ রাষ্ট্র”, “বার্লিন থেকে মষ্কো”, “মা জন্মভূমি”, “স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি চাই” ও “আমার জবানবন্ধি” উল্লেখযোগ্য।

২০০৩ সালে তার ব্রেন ষ্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। এসময় আওয়ামী লীগসহ ১১ দল সাড়ে চার লাখ, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া সরকারে থাকা অবস্থায় পাঁচ লাখ ও বিভিন্ন পেশাজিবী সংগঠন তার চিকিৎসার জন্য অর্থ সহায়তা দেয়। ওই টাকা দিয়ে তাকে সিঙ্গাপুর মাউন্ট এলিজাবেধ থ্রি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

কিন্তু ৫৯ দিন চিকিৎসার পর টাকা না থাকায় চিকিৎসা শেষ না করেই তাকে দেশে ফিরে আসতে হয়। সাহসী এ সাংবাদিক রোগাক্রান্ত হয়ে দীর্ঘ দিন যাবৎ বিনা চিকৎসায় ভূগেছেন। অর্থ সংকটে তার চিকিৎসাও প্রায় বন্ধ ছিল। ২০১৩ সালের ৮ জানুয়ারী তিনি রাজধানী ঢাকার ল্যাবএইড হাসপাতালে ৮৩ বছর বয়সে পরলোক গমন করেন।

নির্মল সেনের ভাতিজা সাংবাদিক রতন সেন কংকন জানান, নির্মল সেনের ষষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী পালন উপলক্ষে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় নির্মল সেন স্মৃতি সংসদ স্মরণ সভার আয়োজন করেছে। এতে বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ অংশ গ্রহন করবে। এছাড়া এছাড়াও শ্রমিক কৃষক সমাজবাদী দল ঢাকার তোপখানায় নির্মল সেন মিলনায়তনে সকালে তার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close