২৪ মে ২০১৯, শুক্রবার ০৬:৫৪:৫২ এএম
সর্বশেষ:

১০ মে ২০১৯ ১১:৪৭:২৪ পিএম শুক্রবার     Print this E-mail this

রমজান : রহমতের বসন্ত (পর্ব-২)

ডেক্স রিপোর্ট
বাংলার চোখ
 রমজান : রহমতের বসন্ত (পর্ব-২)

রমজান আল্লাহর পরিচিতিসহ কল্যাণকর আধ্যাত্মিক জ্ঞান অর্জনের ও বুদ্ধিবৃত্তিকে প্রখর করার মাস। এ মাস কু-প্রবৃত্তিকে দমনের সাধনার মাধ্যমে আত্মাকে উন্নত ও পরিশুদ্ধ  করার  তথা খোদাভীতি অর্জন ও পাপ-বর্জনে অভ্যস্ত হবার মাস।

গত পর্বে আমরা রমজানের রোজার গুরুত্ব সম্পর্কে বিশ্বনবীর একটি বিখ্যাত ভাষণের কিছু অংশ তুলে ধরেছি। ওই একই ভাষণে মহানবী (সা.) বলেছেন,মুমিনের জন্য ইফতারের আয়োজনে রয়েছে একজন গোলামকে মুক্ত করার সওয়াব এবং এতে তার সব গোনাহ মাফ হবে।" সাহাবিরা প্রশ্ন করলেন: কিন্তু আমাদের মধ্যে সবাই ইফতার দিতে সক্ষম নন। বিশ্বনবী বললেন: তোমরা দোযখের আগুন থেকে রক্ষা কর নিজেদেরকে,যদিও তা সম্ভব হয় একটি মাত্র খুরমার অর্ধেক অংশ কিংবা তাও যদি না থাকে তাহলে অন্য রোজাদারকে সামান্য পানি দিয়ে তা কর।"

মহানবী আরও বলেছেন, "হে মানুষেরা! যে কেউ রমজানে সদাচারী হবে বা সুন্দর আচরণকারী হবে সে পুলসিরাত পার হওয়ার সৌভাগ্য অর্জন করবে সেই বিশেষ দিনটিতে যেদিন পাগুলো পিছলে যেতে চাইবে। যে এই মাসে তার অধীনস্থ কর্মীদের কাজের বোঝা কমিয়ে দেবে আল্লাহ পরকালে তার হিসাব-নিকাশ সহজ করবেন এবং যে কেউ এই মাসে অন্যকে বিরক্ত করবে না বিচার-দিবসে মহান আল্লাহ তাকে নিজের ক্রোধ হতে নিরাপদ রাখবেন। যে রমজানে এক ইয়াতিমকে সম্মান করবে ও তার প্রতি দয়ার্দ্র হবে মহান আল্লাহও বিচার-দিবসে তার প্রতি দয়ালু হবেন। যে এই মাসে নিজের আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে ভালো আচরণ করবে, মহান আল্লাহও বিচার-দিবসে তাকে দয়া করবেন, আর যে এই মাসে আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে খারাপ আচরণ করবে আল্লাহও তাকে নিজ রহমত থেকে দূরে রাখবেন।"

বিশ্বনবী (সা.) রমজান প্রসঙ্গে আরও বলেছেন, "যে রমজানে এ মাসের ইবাদতগুলো করবে আল্লাহ তাকে দোযখ থেকে রক্ষা করবেন। যে এই মাসে ফরজ বা অবশ্য পালনীয় ইবাদত ও দায়িত্বগুলো পালন করবে তাকে অন্য মাসের ওই একই কাজের পুরস্কারের চেয়ে সাতগুণ বেশি পুরস্কার দেয়া হবে। যে রমজানে আমার ওপর দরুদ পাঠাবে আল্লাহ বিচার দিবসে তার ভাল কাজের পাল্লা ভারী করে দেবেন, অথচ অন্যদের পাল্লা হাল্কা থাকবে। যে এই মাসে কুরআনের মাত্র এক আয়াত তিলাওয়াত করবে আল্লাহ তাকে এর বিনিময়ে অন্য মাসের পুরো কুরআন তিলাওয়াতের সমান সওয়াব দেবেন। হে মানুষেরা! বেহেশতের দরজাগুলো এই মাসে তোমাদের জন্য খোলা থাকবে। আল্লাহর কাছে এমনভাবে প্রার্থনা কর যাতে তা তোমার জন্য বন্ধ না হয়। রমজানে দোযখের দরজাগুলো বন্ধ রয়েছে, আল্লাহর কাছে এমনভাবে প্রার্থনা কর যাতে তা তোমার জন্য কখনও খুলে না যায়। এই মাসে শয়তানগুলোকে হাতকড়া পরিয়ে বন্দি রাখা হয়েছে, আল্লাহর কাছে এমনভাবে প্রার্থনা কর যাতে তারা তোমাদের ওপর কর্তৃত্ব করতে না পারে।"

মহানবীর (সা) ভাষণের এ পর্যায়ে আমীরুল মুমিনিন হযরত আলী প্রশ্ন করেন, "হে আল্লাহর রাসূল (সা.),এই মাসে সবচেয়ে ভাল কাজ কী?" মহানবী (সা) জবাবে বললেন,"হে আবুল হাসান,এই মাসে সবচেয়ে ভাল কাজ হল আল্লাহ যা যা নিষিদ্ধ করেছেন তা থেকে দূরে থাকা।"

জ্ঞানী মানুষের দায়িত্ব বড় কঠিন;অন্যদের চেয়ে তাদের দায়িত্ব বেশি। ইসলামী বর্ণনায় বলা হয়, মৃত্যুর প্রাক্কালে  যখন আত্মা গলা পর্যন্ত পৌঁছে,তখন আর তওবার সুযোগ থাকে না এবং তখন তওবা কবুলও হবে না। অবশ্য অজ্ঞদের তওবা আল্লাহ তাদের জীবনের শেষ মিনিট পর্যন্ত কবুল করেন। কোনো আলেমের একটি গুনাহ ক্ষমা হবার আগে একজন অজ্ঞ মানুষের ৭০টি গুনাহ ক্ষমা করা হয়। কারণ একজন আলেমের পাপ ইসলাম ও ইসলামী সমাজের জন্য ধ্বংসাত্মক। যদি কোনো অসভ্য মূর্খ মানুষ একটা পাপ করে,সে কেবল নিজেরই ক্ষতি করে। কিন্তু যদি একজন আলেম পথচ্যুত হয় সে গোটা একটা আলম বা দুনিয়াকে নষ্ট করে। সে ক্ষতি করে ইসলাম ও ইসলামের আলেমদের। বলা হয় জাহান্নামীদের ওইসব আলেমের দুর্গন্ধ দিয়ে কষ্ট দেয়া হবে, যাদের কাজ বা আমল তাদের জ্ঞান বা ইলম্ মোতাবেক ছিল না। মহান আল্লাহ আমাদেরকে ইলম্ অনুযায়ী আমলের তৌফিক দিন।
সৌজন্যে : পার্সটুডে

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close