১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার ০১:৩৩:০৪ পিএম
সর্বশেষ:

০২ জুন ২০১৯ ০৯:৪৮:১৮ পিএম রবিবার     Print this E-mail this

এক বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামি ইনকিলাব সম্পাদক বাহাউদ্দিন পুলিশের খাতায় নিখোঁজ

ডেক্স রিপোর্ট
বাংলার চোখ
 এক বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামি ইনকিলাব সম্পাদক বাহাউদ্দিন পুলিশের খাতায় নিখোঁজ

এক বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামি দৈনিক ইনকিলাব সম্পাদক এ এম এম বাহাউদ্দিনকে খুঁজে পাচ্ছে না ওয়ারি থানা পুলিশ। সংশ্লিষ্ট থানায় তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা পাঠানো হলেও থানা থেকে আদালতকে জানানো হয়েছে, বাহাউদ্দিন একজন পলাতক আসামি। পুলিশ তাকে ইনকিলাবের ঠিকানায় খুঁজে পাচ্ছে না।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, চাকরিচ্যুত সাংবাদিক মুুকুল হায়দারের মামলায় দৈনিক ইনকিলাব সম্পাদক এ এম এম বাহাউদ্দিনকে এক বছরের কারাদ- এবং ৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড দেওয়া হয়। অর্থ অনাদায়ে আসামিকে আরও এক মাসের বিনাশ্রম কারাদ- ভোগ করতে হবে বলে আদালতের রায়ে উল্লেখ করা হয়েছে।
গত ৪/৬/২০১৮ইং চেয়ারম্যান (জেলা ও দায়রা জজ) তৃতীয় শ্রম আদালতের বিচারক মো. রহিবুল ইসলাম এই রায় দেন।
আদালতের রায়ে বলা হয়, আসামি এ এম এম বাহাউদ্দিনের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ শ্রম আইন ২০০৬ এর ২৮৯ ধারার অধিনে গঠিত অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় তাকে দোষী সাব্যস্ত করে এই কারাদন্ড ও অর্থ জরিমানা করা হলো।
পলাতক আসামি এ এম এম বাহাউদ্দিন পুলিশের হাতে ধরা পরার দিন থেকে অথবা আসামির আত্মসমর্পণের দিন থেকে তার কারাদ- ও অর্থদ- কার্যকর হবে।
উল্লেখ্য, মুকুল হায়দারকে কোন টাকা না দিয়ে ইনকিলাব সম্পাদক তাকে অফিস থেকে চাকরিচ্যুত করেন। পাওনা টাকার জন্য দিনের পর দিন ঘুরেও তা আদায় না হলে তিনি ২০১৬ইং সালে শ্রম আদালতে মামলা দায়ের করেন। বিএনএ (ফৌজদারী) মামলা নং ৯৪/২০১৬। এই মামলার রায়ে মাননীয় আদালত আসামি এ এম এম বাহাউদ্দিনকে কারাদ- ও অর্থদ- উভয় দ-ে দন্ডিত করেন।
এছাড়াও দৈনিক ইনকিলাব সম্পাদক এ এম এম বাহাউদ্দিন প্রতিষ্ঠানটি থেকে ২০১৭ সালের মে মাসে আরও প্রায় ১০০ সাংবাদিক-কর্মচারিকে ২৬ মাসের বকেয়া বেতন ও পাওনাদি না দিয়ে চাকুরিচ্যুত করেন। দীর্ঘ এক বছর সাংবাদিকদের দাবি-দাওয়া আদায়ের ট্রেড ইউনিয়ন বিএফইউজে ও ডিইউজে’কে সাথে নিয়ে আন্দোলন করার পরও এসব সাংবাদিক তাদের ন্যায় সঙ্গত শ্রমের টাকা পান নি।
এ অবস্থায় চাকুরিচ্যুত সাংবাদিক-কর্মচারিরা তাাদের পাওনা আদায়ের জন্য শ্রম আদালতে মামলা দায়ের করেন। পৃথকভাবে দায়ের করা এসব মামলায় পত্রিকাটির সম্পাদক ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ এম এম বাহাউদ্দিন, বাহাউদ্দিনের মেয়ে পরিচালক (অর্থ) ও বাহাউদ্দিনের ভাই পরিচালক মাঈনুদ্দীনের বিরুদ্ধে একাধিক গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছে। এসব গ্রেফতারি পরোয়ানা ওয়ারি থানায় পাঠানো হলেও পুলিশ তাদের গ্রেফতার করেনি।
তবে ওয়ারি থানার পক্ষ থেকে আদালতকে জানানো হয়েছে-এরা পলাতক আসামি। সেকারণে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হচ্ছে না।

 


 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close