১৭ জুলাই ২০১৯, বুধবার ১১:২২:১৫ এএম
সর্বশেষ:

১৬ জুন ২০১৯ ০৩:৩৫:১১ পিএম রবিবার     Print this E-mail this

শিক্ষককে লাঞ্ছিতের প্রতিবাদে নড়াইলে শিক্ষার্থীদের ডিসি অফিস ঘেরাও ও সড়ক অবরোধ

নড়াইল প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 শিক্ষককে লাঞ্ছিতের প্রতিবাদে নড়াইলে শিক্ষার্থীদের ডিসি অফিস ঘেরাও ও সড়ক অবরোধ

 নড়াইল সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের বিজ্ঞানের শিক্ষক প্রদেশ কুমার মল্লিক কে অভিভাবক কর্তৃক লাঞ্ছিতের প্রতিবাদে রবিবার(১৬ জুন) সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ঘেরাও করে বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা। পরে নড়াইল-যশোর সড়ক অবরোধ করে তারা। এসময় কয়েকজন বিক্ষুব্ধ ছাত্রকে মারধোর করে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা।

স্থানীয়ভাবে জানা গেছে,গত ১৫ জুন সকালে শিক্ষক প্রদেশ কুমার মল্লিক তার বাড়ির প্রাইভেট কোচিং এ এক ছাত্রীকে মারধোর করে। এ ঘটনা বাড়িতে বললে ঐ ছাত্রীর পিতা স্থানীয় ঠিকাদার মঈনউল্লাহ দুলু ঐ শিক্ষককে বাড়ি থেকে কলার ধরে টেনে হিচড়ে বের করে নিয়ে আসে। পরে ঐ অভিভাবকের নেতৃত্বে পুনরায় ঐ শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কাছে গিয়ে নালিশ জানায়। ঘটনা জানাজানি হলে বিক্ষব্ধু ছাত্ররা শনিবার বিকালে সভা করে প্রতিবাদের আহবান জানায়। এরপর সন্ধ্যায় স্থানীয় একটি মহল নড়াইল শহরে মাইকিং করে পাল্টা ঐ শিক্ষকের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের আহবান জানায়।

এতে ছাত্ররা আরো উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা শিক্ষককে লাঞ্ছিতের ঘটনায় রবিার সকালে ডিসি অফিস ঘেরাও করে। এসময় ছাত্রদের রুখতে সন্ত্রাসীরা ছাত্রদের নেতৃত্বদানকারী জাকারিয়া খানকে মারধোর করে এবং এক পর্যায়ে অস্ত্র প্রদর্শন করে বলে ছাত্রদের অভিযোগ। পরে ছাত্ররা নড়াইল-যশোর সড়ক অবরোধ করে। একঘন্টা সড়ক অবরোধের পর প্রশাসনের হস্তক্ষেপে ছাত্ররা রাস্তা ছেড়ে গেলেও স্কুলের গেটে বিক্ষোভ অব্যহত রাখে। ছাত্রদের দাবী,শিক্ষককে মারধোর করা হয়েছে,সকল ছাত্রের সামনে ঐ অভিভাবকের শিক্ষকের পায়ে ধরে ক্ষমা চাইতে হবে।
বিক্ষুব্ধ ছাত্রদের মারধোর এবং অস্ত্র প্রদর্শন বিষয়ে অভিভাবক মঈনউল্লাহ দুলু বলেন,সে সময় আমি অতিঃ জেলা প্রশাসকের কক্ষে সমঝোতার জন্য অবস্থান করছিলাম,কে কি করেছে আমি এটা জানি না। তবে বিষয়টি মিটমাট হয়ে গেছে।
এ ব্যাপারে শিক্ষক প্রদেশ কুমার মল্লিক বলেন,মিমাংশার জন্য ডিসি অফিসে বসার পরে ছাত্ররা রাস্তা অবরোধ করলে আমি সহ অন্য শিক্ষকেরা তাদের বুঝিয়ে স্কুলে নিয়ে গেছি। আশা করছি ছাত্ররা আর কোন আন্দোলন করবে না।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক মহিতোষ কুমার দে বলেন,ঘটনাটি আমাদের আয়ত্ত্বের বাইরে চলে যাচ্ছে। এটি কয়েকদফা মিটমাট হবার পরে এ ছাত্রদের মারধোর কিম্বা বিক্ষোভ কোনটিই গ্রহনযোগ্য নয়। আমি এ ঘটনাটির দ্রুত সমাধান আশা করছি।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close