১৪ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার ০৮:২২:৩৮ এএম
সর্বশেষ:

১৮ জুন ২০১৯ ০৩:২৩:১৫ এএম মঙ্গলবার     Print this E-mail this

শেখ হাসিনার বর্তমান অবস্থা আওয়ামী লীগের চেয়েও বড় : কাদের

ডেক্স রিপোর্ট
বাংলার চোখ
 শেখ হাসিনার বর্তমান অবস্থা আওয়ামী লীগের চেয়েও বড় : কাদের

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার বর্তমান অবস্থা আওয়ামী লীগের চেয়েও বড় বলে মন্তব্য করেছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, ‘শেখ হাসিনা, তাকে নিয়ে বিচলিত হওয়ার কিছু নেই। তার নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠিত হয়ে গেছে। শুধু বাংলাদেশে নয়, সারা পৃথিবীতে। নেত্রী নিজেকেই অতিক্রম করে গেছেন।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘শেখ হাসিনা তার ব্যক্তিত্ব দিয়ে, গৌরব দিয়ে, তার সৌরভ দিয়ে, সাহস দিয়ে, বিচক্ষণতা দিয়ে প্রমাণ করেছেন “সি ইজ লারজার দেন আওয়ামী লীগ।” তিনি আওয়ামী লীগের চেয়েও বড় হয়ে গেছেন। আমাদের পার্টি শেখ হাসিনার সমকক্ষ হতে পারেনি। কেন কী দুর্বলতার কারণে। সেগুলো চিহ্নিত করতে হবে।’

আজ সোমবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনউয়ে আওয়ামী লীগের এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। আগামী ২৩ জুন, আওয়ামী লীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কর্মসূচি সফল করার লক্ষ্যে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ এই বর্ধিত সভার আয়োজন করে।

আদালত বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে জামিন দিলে সরকার সেখানে কোনো হস্তক্ষেপ করবে না বলে জানিয়েছেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ আদালতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আদালত জামিন দিতে চাইলে সরকারের আপত্তি নেই।’

চলতি সপ্তাহে খালেদা জিয়ার জামিন হতে পারে বিএনপি নেতা মওদুদ আহমেদের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ‘তিনি হয়তোবা ধারণা করছেন আদালত বেগম জিয়াকে মুক্তি দিবেন, জামিন দিবেন। যদি আদালত বেগম জিয়াকে জামিন দেয় বা দিতে চায়। আমি এটুকু বলতে পারি এখানে সরকারের কোনো হস্তক্ষেপ থাকবে না।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘আদালতের, বিচার বিভাগের স্বাধীনতাকে আমরা শ্রদ্ধা করি। আমরা আগেও বলেছি আদালত তাকে সাজা দিয়েছে আদালত তাকে মুক্তি দিতে পারে। আদালত তাকে সাজা দিয়েছে আদালত তাকে মুক্তি দিতে পারে।’

শ্রীলঙ্কার মতো সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা বাংলাদেশেও ঘটতে পারে এমন আশঙ্কা প্রকাশ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘সবাই যেকোনো পরিস্থিতিতে ঐক্যবদ্ধ থাকুন। এ দেশে হলি আর্টিজান ঘটেছে। হলি আর্টিজানের পরে এই ঢাকা শহরের অবস্থা কী ছিল? অনেক দিন মনে হয়েছিল, যেন মরা একটা ভুতুড়ে শহর। শ্রীলঙ্কায় যা ঘটেছে, বাংলাদেশে তা ঘটবে না এমনটা মনে করার কোনো কারণ নেই। সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে, সংগঠন শক্তিশালী করতে হবে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সংগঠনই আমাদের সবচেয়ে বড় হাতিয়ার। এই হাতিয়ারই আমাদের যেকোনো প্রকার আঘাত, আক্রমণ থেকে রক্ষা করতে পারে।’

এ সময় মহানগর আওয়ামী লীগ নেতাদের কমিটি গঠনে নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করার আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘আমি আপনাদেরকে একটা কথা বলব, ফাঁকি দেবেন না। জোড়া-তালি দিয়ে আওয়ামী লীগ করবেন না। দুঃসময়ের ত্যাগী কর্মীদের অবহেলা করে আওয়ামী লীগ টিকবে না। কোনো স্বার্থের বশবর্তী হয়ে আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন করবেন না। পকেট কমিটি কারও কাজে আসবে না। সুবিধাভোগীদের পার্টি আওয়ামী লীগ নয়, এটা মনে রাখতে হবে। দলের যখন আবার দুঃসময় আসবে, তখন দেখবেন সুবিধাভোগীরা, বসন্তের কোকিলরা হাজার পাওয়ারের বাতি জালিয়েও এদের খোঁজে পাওয়া যাবে না। এটা আমাদের সবাইকে মনে রাখতে হবে, যদি আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে চান।’

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাভাপতি আবুল হাসনাতের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন- আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাইদ খোকন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য মির্জা আজম, দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close