১৪ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার ০৬:৫০:৩৭ এএম
সর্বশেষ:

১৯ জুন ২০১৯ ০২:০৫:১৭ এএম বুধবার     Print this E-mail this

মিরসরাইয়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জায়গা প্রভাবশালীর দখলে

মিরসরাই প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 মিরসরাইয়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জায়গা প্রভাবশালীর দখলে

মিরসরাই উপজেলায় উত্তর তালবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জায়গা জবর দখল করে রাখার অভিযোগ উঠেছে প্রভাবশালী ব্যক্তির বিরুদ্ধে। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির তৎপরতায় কয়েকবার জায়গার মাপ হলেও তা মুক্ত করা সম্ভব হয়নি। সর্বশেষ গত ১৬ জুন স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে বৈঠক ও জায়গার মাপ হলেও তা মানতে রাজি নয় দখলদার আনিস উল্লাহ নয়ন।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মাঠে টয়লেট। দুই পাশে জায়গা দখল করে বর্ধিত করা হচ্ছে বসতবাড়ি। ম্যানেজিং কমিটি সূত্রে জানা গেছে বিদ্যালয়ের ২শতক জমি বেদখল হয়ে আছে যার বাজারমূল্য প্রায় ১০ লাখ টাকা। ১৯৭০ সালে এলাকার ওমর খান স্কুল এর জন্য ১০ শতক জমি দান করেন। দুই শতক জমি দখল করে বাড়ি করেছেন আনিস উল্লাহ নয়ন।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাজহারুল ইসলাম বলেন, মাঠে দখল করে টয়লেট করেছেন। ফলে একদিকে যেমন স্কুলের মাঠ দখল হয়ে আছে এবং অন্যদিকে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা ব্যাহত হচ্ছে। গত বছর আমরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ করেছিলাম। তার প্রেক্ষিতে এসিল্যান্ড মাপ দিয়েছিলেন। পরবর্তীতে বিষয়টি ঝিমিয়ে পড়ে। আবার ম্যানেজিং কমিটির উদ্যোগ নিয়েছে জায়গা পরিমাপ করার জন্য। এক্ষেত্রে প্রশাসনের সহযোগিতা থাকলে বিদ্যালয়ের জায়গাটি প্রভাবশালীর কবল থেকে মুক্ত করা যাবে।
বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোঃ সালাউদ্দিন বলেন, স্কুলের জায়গার স্পষ্ট দলিল রয়েছে। এতদিন প্রভাব খাটিয়ে সে জায়গা দখল করেছেন। এখন আমরা চাচ্ছি স্কুলের জায়গা স্কুল ফিরে পাক।
এই বিষয়ে আনিস উল্লাহ নয়ন জানান, স্কুলের কোন জায়গা আমি দখল করিনি। নুর ইসলাম নামের এক ব্যক্তি থেকে ২০০৩ সালে ওই জায়গা আমি ক্রয় করেছি। আমার কাছে স্পষ্ট কাগজপত্র রয়েছে।
এই বিষয়ে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা গোলাম রহমান চৌধুরী বলেন, উত্তর তালবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও সদস্যরা স্কুলের জায়গা দখলের বিষয়টি আমাকে অবহিত করার পর আমি জায়গা উদ্ধারের জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। গত ১৬ জুন দখলদারদের সাথে বৈঠক করার পর কিছু জায়গা উদ্ধার হয়েছে। সেই জায়গায় পিলারও স্থাপন করা হয়েছে। আরো কিছু জায়গা আনিস উল্লাহ নয়ন নামের এক ব্যক্তির দখলে রয়েছে। সে তাঁর কাছে জায়গার বৈধ কাগজপত্র রয়েছে বলে দাবী করেন। সেগুলো সংগ্রহের জন্য আরো কিছুদিন সময় চেয়েছেন। তবে আমি যতটুকু জেনেছি ওই জায়গা স্কুলের।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close