১৮ জুলাই ২০১৯, বৃহস্পতিবার ১০:৪৯:৫২ এএম
সর্বশেষ:

১১ জুলাই ২০১৯ ১০:৫৫:৫২ পিএম বৃহস্পতিবার     Print this E-mail this

তিস্তার পানি বৃদ্ধি

রাজারহাটে পাঁচ হাজার মানুষ পানিবন্দি

এম. রফিক, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
তিস্তার পানি বৃদ্ধি রাজারহাটে পাঁচ হাজার মানুষ পানিবন্দি

চারদিনের টানা বর্ষন আর উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে তিস্তা নদীর পানি হু হু করে বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া তিস্তার চরাঞ্চলসহ নিম্নাঞ্চলের ৫ হাজার মানুষ পানি বন্দি হয়ে পড়েছে। পানি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রবল স্রোতে শুরু হয়েছে তীব্র নদী ভাঙ্গন।
তিস্তার পানি অব্যাহত বাড়ার কারণে উপজেলার বিদ্যানন্দ, নাজিমখান, ঘড়িয়ালডাঙ্গা ইউনিয়নের দূর্গম চরাঞ্চলের ৩ হাজার বাড়ী প্লাবিত হয়েছে। এছাড়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় প্রবল বর্ষনে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে ২ হাজার বাড়ী-ঘরসহ ফসলি জমির ভাদাই ধান, শাক সবজি, মরিচসহ বিভিন্ন ফসলের ক্ষতি হয়েছে। তলিয়ে গেছে বেশ কয়েকটি মাছের খামারসহ প্রায় ২শতাধিক ছোট-বড় পুকুর।
কুড়িগ্রাম পনি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) উপ-সহকারী প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ বলেন, বৃহস্পতিবার তিস্তা ব্যারেজ এলাকায় তিস্তার বিপদসীমার ২৭.৬৫ সেন্টিমিটার নীচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে তিস্তা ব্যারেজের সব সুইচ গেট খুলে দিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। এ কারণে ভাটির দিকে নিম্নাঞ্চল ডুবে যেতে পারে।
রাজারহাট কৃষি আবহাওয়া অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুমন কুমার সরকার জানান, বুধবার সকাল ৯ টা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ৩২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। আজ  ৯টায় এ অঞ্চলের ৪.৯ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত পরিমাপ করা হয়েছে। আগামীকাল শুক্রবার এর সামান্য পরিবর্তন ঘটতে পারে।
বিদ্যানন্দ ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃ তাইজুল ইসলাম জানান, পানি বন্ধীদের মাঝে এ পর্যন্ত কেউ সহযোগীতার হাত বাড়ায় নাই।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহঃ রাশেদুল হক প্রধান বলেন, প্লাবিত এলাকা পরিদর্শন করেছি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
রাজারহাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহিদ ইকবাল সোহরাওয়ার্দ্দী বাপ্পি বলেন, দফায় দফায় এলাকা পরিদর্শন করা হয়েছে। কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করা হয়েছে।
কুড়িগ্রাম পনি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আরিফুল ইসলাম জানান, ভারি বর্ষণ অব্যাহত থাকলে আজ-কালের মধ্যে বিপদসীমা অতিক্রম করে বন্যা হতে পারে।


সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close