১৭ জুলাই ২০১৯, বুধবার ১০:৩৭:৩১ এএম
সর্বশেষ:

১২ জুলাই ২০১৯ ১২:০৪:০১ এএম শুক্রবার     Print this E-mail this

জয়পুরহাটের রাস্তাগুলো সংস্কারের দাবিতে সকাল-সন্ধ্যা পরিবহন ধর্মঘট

জয়পুরহাট প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 জয়পুরহাটের  রাস্তাগুলো সংস্কারের দাবিতে সকাল-সন্ধ্যা পরিবহন  ধর্মঘট

জয়পুরহাট থেকে বগুড়ার মোকামতলা ও দুপচাচিয়া, দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর এবং আন্তঃজেলার বিভিন্ন রাস্তা  সংস্কারের দাবিতে জয়পুরহাটে মালিক-শ্রমিকদের ডাকে আজ বৃহষ্পতিবার সকাল-সন্ধ্যা  পরিবহন ধর্মঘট চলছে। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা।

পরিবহন মালিক বেদারুল ইসলাম বেদীন,স্বপন চৌথুরী, জয়পুরহাট-সিলেট রুটের কোচ চালক শাহিন মন্ডল, গাড়ী চালক নাসিমসহ পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা জানান, জয়পুরহাট জেলা সহ চারটি জেলার হাজার হাজার ভারী পরিবহন চলে এই রাস্তাগুলোর  উপর দিয়ে। রাস্তাগুলোর পিচ-খোয়া উঠে গিয়ে বিভিন্ন স্থানে খানা-খন্দক হওয়ায় প্রায় প্রতিনিয়ত দূর্ঘটনায় হতাহতের ঘটনা ছাড়াও আইনী বেড়াজালে পরছেন তারা।  এ ছাড়া প্রায় অকেজো এ সব রাস্তাঘাটের কারণে গন্তব্যে পৌঁছাতে দেরী হওয়া ছাড়াও জ¦ালানী তেল ও গ্যাস খরচ বেড়ে যায়। একই কারনে যানবাহনগুলোর যন্ত্রাংশ ভেঙ্গে যাওয়ায় একদিকে তারা আর্থিক ক্ষতির শিকার হচ্ছেন, অন্যদিকে এসব যানবাহনের আয়ূষ্কাল কমে যাওয়ায় রাষ্ট্রীয় ভাবেও অর্থনীতির উপর নেতিবাচক প্রভাব পরছে। দীর্ঘ দিন ধরে পরিবহন বিভাগসহ স্থানীয়রা এ দূর্ভোগ পোহালেও টনক নড়েনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের। আবার রাস্তা নির্মান হলেও তার স্থায়িত্বকাল একেবারেই কম।  দীর্ঘ দিনের এই জনদূর্ভোগ থেকে রেহাই পেতে জয়পুরহাট থেকে দুরপাল্লা ও আঞ্চলিক বাস- ট্রাকসহ সকল প্রকার পরিবহন  চলাচল বন্ধ রেখে ধর্মঘট পালন করা হচ্ছে বলেও জানান পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা।

এদিকে, কোনো পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই বাস চলাচল বন্ধ রাখায় দুর্ভোগে পড়েছেন সাধারণ যাত্রীরা। হঠাৎ পরিবহন ধর্মঘটে নির্ধারিত সময়ে গন্তব্যে পৌছাতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন যাত্রীরা। বাড়তি ভাড়া দিয়ে রিকশা অটোরিকশায় করে গন্তব্যে পৌছাতে হচ্ছে তাদের।

রাস্তাঘাটের এমন দূভোর্গের কথা স্বীকার করে  কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে ধামুইরহাট থেকে আসা বগুড়াগামী যাত্রী সামিউল হক, জেলার বগুড়াগামী যাত্রী জেলা শহরের গুলশান মোড় এলাকার আতাউর রহমান, ঢাকাগামী যাত্রী পাঁজবিবি উপজেলার চানপারা বাজারের শাহারুল আলমসহ যাত্রীরা জানান- চিকিৎসা, ব্যবসা, চাকুরীসহ নানা জরুরী কাজে তাদের গন্তব্যে যেতে হবে, কিন্তু পরিবহন ধর্মঘটের কারনে তাদের বেশ অসুবিধা হচ্ছে। এ খান থেকে রিকসা-ভ্যান যোগে তাদের বগুড়া যেতে হবে। তারপর তারা ঢাকা, সিলেট, চট্টগ্রামসহ যার যার গন্তব্যে যেতে পারবেন। এতে বেশ বিরম্বনার শিকার হচ্ছেন বলেও জানান যাত্রীরা।  

ধর্মঘটের বিষয়ে জয়পুরহাট  জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী জানান, রাস্তাগুলির সংস্কারের দাবীতে পূর্ব ঘোষনা অনুযায়ী  সকল রুটে সকল প্রকার পরিবহন  চলাচল বন্ধ রেখে ধর্মঘট পালন করা হচ্ছে। অচিরেই রাস্তাঘাট সংস্কারের ঘোষনা না করা হলে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলেও জানান তিনি।


সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close