২৪ আগস্ট ২০১৯, শনিবার ১১:১২:১৮ এএম
সর্বশেষ:

২৯ জুলাই ২০১৯ ০১:৪২:৫৭ এএম সোমবার     Print this E-mail this

সাঁথিয়ার সেরা ফুটবলার শিহাব এখন ভ্যানচালক!

মনসুর আলম খোকন,সাঁথিয়া(পাবনা)প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 সাঁথিয়ার সেরা ফুটবলার শিহাব এখন ভ্যানচালক!

 পাবনার সাঁথিয়ার বঙ্গবন্ধু টুর্ণামেন্ট সেরা ফুটবলার শিহাব এখন ভ্যানচালক। সিহাব ২০১৭ সালে প্রাথমিক বিদ্যালয়  বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টে দেশের  সেরা খেলোয়াড় হলেও এখন  আর কেউ  তার খোঁজ নেয় না। টুর্নামেন্টে সেরা খেলোয়াড় হয়ে প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে পুরস্কার পেলেও অবহেলায় পড়ে আছে প্রতিভাবান এই ক্ষুদে ফুটবলার। দারিদ্রের কষাঘাতে ফিকে হয়ে গেছে তার  নামকরা ফুটবলার হওয়ার স্বপ্ন। সংসারের হাল ধরতে গিয়ে  বন্ধ হয়ে গেছে তার লেখাপড়া। কখনও ভ্যান চালিয়ে, আবার কখনও দিনমজুর হয়ে কাজ করে চলছে তার সংগ্রামীজীবন। এ নিয়ে  সিহাবের শিক্ষক ও এলাকাবাসীর দাবি, সিহাবের স্বপ্ন পূরণ  করতে দরকার  প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ।পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার আলোকদিয়ার গ্রামের দরিদ্র ভ্যানচালক কোরবান হোসেনের ছেলে সিহাব উদ্দিন (১৪)। তার মা শেবা খাতুন মারা যাওয়ার পর বাবা দ্বিতীয় বিয়ে করেন। দুই ভাইয়ের মধ্যে বড় সিহাব ছোটবেলা থেকেই লেখাপড়ার পাশাপাশি ফুটবল খেলায় দক্ষ হয়ে ওঠে। ছোট ভাই সিয়াম পড়ে শিশু শ্রেণিতে।২০১৭ সালে তার নেতৃত্বে প্রাথমিক বিদ্যালয়  বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টে সারাদেশের মধ্যে রানার্সআপ হয় পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার ভুলবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। আর টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত থেকে পুরস্কার গ্রহণ করে সিহাব। এর আগে তার অধিনায়কত্বে ইউনিয়ন, উপজেলা, জেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ে চ্যাম্পিয়ন হয় ওই বিদ্যালয়।আলোকদিয়ার উচ্চ বিদ্যালয়ে সপ্তম শ্রেণিতে পড়া অবস্থায় বন্ধ হয়ে গেছে তার লেখাপড়া। এখন কীভাবে ফুটবলার হবে আর কীভাবেই বা বাবা-মায়ের মুখে হাসি ফোটাবে, তা নিয়ে দুশ্চিন্তার শেষ নেই সিহাবের। আলাপকালে সিহাব উদ্দিন এ প্রতিবেদককে জানায়, দেশের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়ে প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে পুরস্কার নেয়া আমার জন্য গর্বের। কিন্তু তারপর থেকে আর কেউ আমার খোঁজ নেয়নি। আর্থিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় কখনো ভ্যান চালাই, আবার কখনও দিনমজুরি করি। লেখাপড়াও হচ্ছে না। আমি ভালো ফুটবলার হয়ে দেশের জন্য সম্মান বয়ে এনে  বাবা-মায়ের স্বপ্ন পূরণ করতে চাই। সিহাবের ফুটবল খেলার প্রশিক্ষক ও বাফুফের প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত রেফারি রাজু আহমেদ জানান, ভালো ও দক্ষ ফুটবলার হওয়ার সব গুণই সিহাবের মধ্যে আছে। কিন্তু স্কুল ফুটবলে দেশসেরা খেলোয়াড় হয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে পুরস্কার নিলেও আজ সে উপেক্ষিত। এর চেয়ে দুঃখের-হতাশার বিষয় আর কিছু হতে পারে না। তিনি জানান, সিহাবকে নিয়ে বিকেএসপিতে ভর্তি করাতে গেলে সেখানকার প্রশিক্ষক কর্মকর্তারা তার পাঁচটি পরীক্ষা নেন। যার চারটিতে প্রথম ও একটিতে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে শিহাব নিজের দক্ষতার স্বাক্ষর রাখলেও তাকে সুযোগ দেয়া হয়নি।সিহাবের মতো কৃতি ফুটবল খেলোয়ারকে যথাযথ মুল্যায়ন না করায় ক্ষুব্ধ ও হতাশ তার শিক্ষকরা। তার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ভুলবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম মোস্তফা ও আলোকদিয়ার উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইমাম হোসেন বলেন, সিহাব মেধাবী একটা ছেলে। সেরা খেলোয়াড় হয়েও আজ ভ্যান চালায়। এত অল্প বয়সে তাকে সংসারের হাল ধরতে গিয়ে তার লেখাপড়া-খেলা দুইটাই নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। তাকে পৃষ্ঠপোষকতা দিতে পারলে দেশের ফুটবল অঙ্গনে সম্পদ হয়ে উঠতে পারে। সিহাবের দরিদ্র বাবা কোরবান আলী জানান, সিহাব ছোটবেলা থেকেই ফুটবল খেলতে খুব ভালোবাসে। আমার তো বাড়িটুকু ছাড়া কোনো কিছু নাই। গরিব মানুষ, ভ্যান চালিয়ে দিন আনি, দিন খাই। সিহাবকে ফুটবল খেলোয়াড় বানানোর মতো সামর্থ্য আমার নাই। তিনি প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা করেন।                

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close