১৮ আগস্ট ২০১৯, রবিবার ০৬:৪২:৪৯ এএম
সর্বশেষ:

০৮ আগস্ট ২০১৯ ০২:০২:২৮ এএম বৃহস্পতিবার     Print this E-mail this

ছবিটি এখন কাশ্মীরিদের আন্দোলনের প্রতীকী রূপ

ডেক্স রিপোর্ট
বাংলার চোখ
 ছবিটি এখন কাশ্মীরিদের আন্দোলনের প্রতীকী রূপ

সংবিধান থেকে কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসনের বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নিয়েছে মোদি সরকার।

বিষয়টি নিয়ে উত্তপ্ত ভারত শাসিত কাশ্মীর। ১৪৪ ধারা চলছে সেখানে। ভারতীয় সেনাদের সঙ্গে মুর্হুমূহু সংঘর্ষ বাধছে কাশ্মীরের স্বাধীনতাকামী মানুষদের।

স্বায়ত্তশাসনের মর্যাদা কেড়ে নেয়ার পর কাশ্মীরে ভারত সরকারের কঠোর নিয়ন্ত্রণের মধ্যেই প্রতিবাদ শুরু হয়েছে। বুধবার ১৪৪ ধারা উপেক্ষা করে শ্রীনগরের রাস্তায় বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন কাশ্মীরের সাধারণ জনগণ।

এমন যখন পরিস্থিতি তখন বিশ্বে তোলপাড় তুলেছে স্বাধীনতাকামী কাশ্মীরিদের এক ছোট্ট শিশুর ছবি।

ছবিতে দেখা গেছে, পাঁচ বছরও পেরোয়নি এমন একটি শিশু প্লাস্টিকের গুলতি তাক করে আছে অস্ত্রে সজ্জিত ভারতীয় সেনাদের দিকে। চোখে তার কোনোই ভয় নেই। আগ্নেয়াস্ত্রের কাছে যে এ গুলতি নস্যি তা নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছে না শিশুটি। যেন হাতের এই গাছ থেকে ফল পেড়ে খাওয়ার অস্ত্রটি দিয়েই ভারতীয় সেনাদের কুপকাত করে দেবে সে।

স্বাধীনতাকামী কাশ্মীরিদের আন্দোলনের এক পর্যায়ে ছবিটি তোলেন ভারতীয় ফটোগ্রাফার আদিত্য রাজ।

ছবিটি এখন কাশ্মীরিদের আন্দোলনের প্রতীকী রূপ হয়ে সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ছে। অকুতোভয় কাশ্মীরি শিশুটিকে ৩৭০ ধারা বাতিলের বিরুদ্ধে দাঁড়ানো বিদ্রোহের প্রতীক বলে আখ্যা দিচ্ছেন অনেকে।

ছবিটি তুলে আদিত্য রাজ টুইটারে ছবিটি পোস্ট করে লেখেন, ‘সেনার সামনে প্লাস্টিকের গুলতি নিয়ে খেলছে একটি শিশু।’

তবে আদিত্যের কথায় মোটেই একমত নন ভারতের সাবেক আইপিএস অফিসার সঞ্জীব ভট্ট। তিনি বলেছেন, পাঁচ বছরের শিশুও যখন কোনো সেনার দিকে অস্ত্র তাক করে, তখন বুঝতে হবে কাশ্মীর নিয়ে ভারত কোনো ভুল করছে।

সঞ্জীব ভট্টের এ বক্তব্য কে খাটো করে দেখছেন না আন্তর্জাতিক ভূ-রাজনীতি বিশ্লেষকরা। যেমনটা তারা এ ছবিকেও খাটো করে দেখছেন না।

ভারতশাসিত কাশ্মীর উত্তেচনা এখন চরমে অবস্থান করছে। দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকার সোমবার কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের ঘোষণাকে সামনে রেখে কাশ্মীরের ফোন ও ইন্টারনেট সংযোগ সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়।

এই মুহূর্তে ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীর বিশ্বের সবচেয়ে সামরিকীকৃত এলাকায় পরিণত হয়েছে। সেনাবাহিনী, আধা-সামরিক বাহিনী ও পুলিশ সদস্য মিলিয়ে সেখানে ৭ লক্ষাধিক নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্য মোতায়েন রয়েছে ভারত।

অস্থায়ী কারাগার বানানো হয়েছে হোটেল, গেস্ট হাউস, সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন ভবনকে। কাশ্মীরের পুরো উপত্যকাটি যেন পরিণত হয়েছে একটি কারাগারে।

এমন সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল এ ছবিটি ব্রিদোহের আগুনে ঘি ঢালছে অবশ্যই।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close