২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার ০৩:৩৩:৩৯ পিএম
সর্বশেষ:

১৮ আগস্ট ২০১৯ ০২:১৩:৩০ এএম রবিবার     Print this E-mail this

চেয়ারম্যানের নির্দেশে শতবর্ষী তালগাছ কর্তন

এম.আর রুবেল, ভৈরব উপজেলা (কিশোরগঞ্জ)
বাংলার চোখ
 চেয়ারম্যানের নির্দেশে শতবর্ষী তালগাছ কর্তন

দেশের প্রতিকূল আবহাওয়ায় প্রতিনিয়তই বজ্রপাতের কারণে ঘটছে প্রাণহানীর ঘটনা। বজ্রপাত প্রতিরোধে বর্তমান সরকার সারাদেশে লাখ লাখ টাকা খরচ করে তালগাছের বীজ রোপনের উদ্যোগ নিয়েছে যেখানে। সেই উদ্যোগকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে অসৎ উদ্দ্যেশে শতবর্ষী একটি তালগাছ কর্তন করেছে বলে ইউপি চেয়ারম্যান যোবায়ের আলম দানিছ ও ইউপি সদস্য জসিম উদ্দিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান যোবায়ের আলম দানিছ ভৈরব উপজেলার শিমুলকান্দি ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান এবং উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য। অভিযুক্ত জসিম ইউপি পরিষদের বর্তমান সদস্য। শনিবার সকালে চেয়ারম্যান দানিছের নির্দেশে ইউপি সদস্য জসিম মিয়া ও হারুন মিয়া নামে এলাকার এক স’মিল ব্যবসায়ী উপস্থিত থেকে এ গাছ কর্তন করেন।
শিমুলকান্দি বাজারের এ শতবর্ষী তালগাছ কাটা নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে সমালোচনার ঝড় ওঠে। তালগাছটি দৈঘ্য ছিল আনুমানিক ১শ ৩০ ফুট। কালের সাক্ষী হিসেবে শিমুলকান্দি বাজারের ঐতিহ্য রক্ষা করে দাঁড়িয়ে থাকা তালগাছটি ইউপি চেয়ারম্যান ক্ষমতার অপব্যবহার করে কেটে ফেলার বিষয়টি স্থানীয়দের লোকজনের মাধ্যমে খবর পেয়ে সাংবাদিকরা প্রশাসনকে অবগত করলে তাৎক্ষণিক স্থানীয় প্রশাসনের টনক নড়ে। এবিষয়ে মামলা করা হবে বলে স্থানীয় প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরা সাংবাদিকদের আশ্বস্ত করেছেন। ঘটনা জানার পরপরই উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো: আনিসুজ্জামানের নির্দেশে শিমুলকান্দি ভুমি অফিসের ভারপ্রাপ্ত নায়েব জসিম উদ্দিন ঘটনাস্থলে গিয়ে শতবর্ষী তালগাছটি কেটে ফেলার সত্যতা পায়। তবে তালগাছটি অফিসিয়ালভাবে জব্দ করা হয়নি।
শিমুলকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মো. কামাল উদ্দিন বলেন, তালগাছ রক্ষায় এবং বীজ রোপনে বর্তমান সরকার যেখানে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করেছে, সেখানে তালগাছ ঠিকিয়ে রাখা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। যারা সামান্য অর্থলোভে সমাজের উপকারী এই গাছ কেটেছেন তারা শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন বলে মনে মন্তব্য করেন।
স’মিল মালিক হারুন মিয়া জানান, বাজারের থাকা তালগাছটির পাশে আমার বিল্ডিং রয়েছে, ঝড়তুফানের ভয়ে গত একমাস আগে দানিছ চেয়ারম্যানকে বলেছিলাম তালগাছটি কিভাবে কাটা যাবে। চেয়ারম্যান তখন গাছ কাটার আশ্বাস দেন। তবে তিনি গাছ কাটার সময় ছিলেন না। জসিম মেম্বারের মাধ্যমে চেয়ারম্যান কাছটি কেটেছেন বলে জানান।
শিমুলকান্দি ইউপি মেম্বার জসিম মিয়া জানান, তিনি গাছ কাটার সাথে জড়িত না। গাছ কাটার সময় দাঁিড়য়ে দেখেছেন। চেয়ারম্যানই স’মিল মালিক গিয়াস মিয়ার মাধ্যমে গাছটি কেটেছেন।
এ প্রসঙ্গে শিমুলকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান যোবায়ের আলম দানিছের কাছে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, বাজার কমিটির লোকজন তাকে অনুরোধ করলে তিনি গাছ কাটার ব্যাপারে সম্মতি দেন। তবে তিনি নিজের জন্য গাছটি কাটেননি। তিনি আরো বলেছেন, গাছটিকে পোকা আক্রমণ করায় যেকোন মূহুর্তে ভেঙ্গে দূর্ঘটনা ঘটতে পারে তাই গাছটি কেটে ভুমি অফিসের পাঠানোর কথা বলেছিলেন। গাছটি কাটার আগে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভুমি) মৌখিক অনুমতি নিয়েছেন বলেও দাবি করেন।
শিমুলকান্দি ভুমি অফিসের ভারপ্রাপ্ত নায়েব জসিম উদ্দিন জানান, এসিল্যান্ড স্যার ফোন করে জানায় গাছ কাটার বিষয়টি। ভুমি অফিসের সামনেই গাছটি ছিল। গিয়ে দেখি গাছটি মাটিতে খন্ড হয়ে পড়ে আছে। জসিম নামের এক মেম্বার গাছটি কেটেছেন বলে জানেছেন। গাছকাটার বিষয়ে তিনি আগামীকাল ভৈরব ইউএনও মহোদয়কে লিখিত ভাবে জানাবেন।
ভৈরব উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আনিসুজ্জামান মুঠোফোনে জানান, গাছ কাটার অনুমতি আমরা তো দিতে পারিনা। আমার কাছে কেউ এবিষয়ে অবগত করেনি। প্রশাসনের নাম ভাঙ্গানো খুবই দু:খজনক। এভাবে কেউ গাছ কাটতে পারেনা। নায়েবকে ঘটনাস্থলে যেতে বলেছি। গাছটি জব্দসহ জড়িতদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করার আশ্বাস দেন তিনি। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইসরাত সাদমীন তালগাছ কাটার ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান। এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত প্রশাসনের কর্তব্যক্তিরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বললেও রহস্যজনক কারণে নিরব থাকায় এখনো থানায় কোন লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়নি বলে সূত্রে জানাগেছে।  

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close