১৭ নভেম্বর ২০১৯, রবিবার ০৩:৫৭:৫৩ এএম
সর্বশেষ:

৩০ আগস্ট ২০১৯ ০২:৪৯:৩৪ পিএম শুক্রবার     Print this E-mail this

মানিকগঞ্জের শিবালয়ে জাতীয় কবির মৃত্যুবার্ষিকীর আলোচনা সভা

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 মানিকগঞ্জের শিবালয়ে জাতীয় কবির মৃত্যুবার্ষিকীর আলোচনা সভা

কাজী নজরুল ইসলাম চিরকালের সকল মানুষের কবি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছেন বিশ্বজ্ঞানীদের কাছে।  অথচ কবি তার স্বজাতি কূলীন সমাজ দ্বারা অতীতে যেমন নিগৃহিত হয়েছেন বর্তমানে অনেক কূলীনদের দ্বারা নিগৃহিত হচ্ছেন। এ দেশের কুলি শ্রেনির বা পিছিয়ে পড়া মানুষের কাছে নজরুল সমাদৃত হয়েছিলেন এখনো সমাদৃত হচ্ছেন। অথচ ভীন জাতি ভিন্ন ভাষাভাষী সমাজের মানুষ নজরুলকে গবেষনা করে প্রশংসার স্বর্ণ শিখরে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব এএফএম হায়াতউল্লাহ উপরোক্ত কথা গুলো বলেন। তিনি বৃহস্পতিবার রাতে মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলার তেওতায় জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকীর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন।
বক্তব্যকালে তিনি আরো বলেন, নর-নারী, উঁচু-নিচু, হিন্দু-মুসলমান,   ধনী-গরিব সকল ভেদাভেদ ঘুচিয়ে সকল মানুষকে এক কাতারে নিয়ে আসার জন্য কবি আজীবন বানী ছড়িয়েছেন। বাঙালি জাতি সত্তার বিকাশে কবির অবদান অপরিসীম। তারই ধারাবাহিকতায় সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান কবির চেতনা লালন করে দীর্ঘ সংগ্রামের পর বাংলার স্বাধীনতা ছিনিয়ে এনেছিলেন। আগষ্ট মাস বাঙালি জাতির মহাশোকের মাস। এই মাসে তিন মহান বাঙালি বঙ্গবন্ধু, রবীন্দ্র -নজরুলকে হারিয়েছি। অথচ অনেকে শোক প্রকাশের মাসে নজরুলের নাম প্রকাশ করতে ভুলে যায়। জাতি হিসেবে আমাদের জন্যে এটা দুঃখজনক।       
শিবালয় উপজেলার তেওতায় কবি ও কবিপত্নী স্মৃতি বিজরিত স্থানীয় জমিদার বাড়ি পুকুর ঘাটে স্থাপিত নজরুল-প্রমীলা মঞ্চে তিন দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানমালার শেষদিনের আলোচনা সভায় সম্মানিত অতিথি ছিলেন  নজরুল ইনষ্টিটিউট ঢাকা`র উপপরিচালক কবি রেজাউদ্দিন স্টালিন। আলোচনায় অংশ নেন নজরুল গবেষক কৃষিবিদ রফিকুল ইসলাম, মিয়াজান কবির, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাকির হোসেন। আয়োজক কমিটির আহবায়ক প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি আতিকুর রহমান আতিক, সাংবাদিক বাবুল আকতার মঞ্জুর, সাইফুল ইসলাম খান, শিক্ষক অজয় চক্রবর্তী, মোজাম্মেল হক প্রমুখ।
যুগ্ম সচিব হায়াতউল্লাহ আরো বলেন, বাঙালি মসুলমানের আত্মপরিচয় ঘটিয়েছেন কবি কাজী নজরুল ইসলাম। তার আগে কোন কবি, সাহিত্যিক বাঙ্গালি মসুলমানের আত্মপরিচয় তুলে ধরতে সক্ষম হননি। ইসলামের মর্মবানী কবির কন্ঠে সুউচ্চ  ভাবে উচ্চারিত হয়েছে। বিদ্রোহী কবিতাই ইসলামের সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ ইসলামী কবিতা বলে তিনি দাবি করেন। শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে কবিতা আবৃত্তি করেন প্রখ্যাত আবৃত্তিকার ড. শাহাদাত হোসেন নিপু, সংগীত পরিবেশন করেন  বিশিষ্ট নজরুল সংগীত শিল্পী ইয়াসমিন মুস্তারী, ছন্দা চক্রবর্তী, মুন্নি কাদেসহ স্থানীয় শিল্পীবৃন্দ।  

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close