১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার ০৭:২৬:৩৩ পিএম
সর্বশেষ:

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১১:২৬:৪৪ পিএম বুধবার     Print this E-mail this

সাংবাদিক রফিকের ওপর হামলার বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি আরইউজে’র

সোহরাব হোসেন সৌরভ রাজশাহী থেকে
বাংলার চোখ
 সাংবাদিক রফিকের ওপর হামলার বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি আরইউজে’র

রাজশাহীর সাংবাদিক রফিকুল ইসলাম রফিকের ওপর এমপি ওমর ফারুক চৌধুরীর মালিকানাধীন ‘থীম ওমর প্লাজার’ কর্মীদের হামলার ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি জানিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা। তারা হামলাকারী এবং এর নেপথ্যে যারা আছেন তাদের প্রত্যেকের কঠোর শাস্তির দাবি জানান। একইসঙ্গে থীম ওমর প্লাজার দখল করা ফুটপাত উদ্ধারে রাজশাহী সিটি করপোরেশনকে (রাসিক) সাত দিনের আল্টিমেটাম দিয়েছেন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ। সাংবাদিক রফিকের ওপর হামলার প্রতিবাদে গতকাল বুধবার সকালে রাজশাহী মহানগরীর আলুপট্টি মোড়ে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে এসব দাবি জানানো হয়। রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়ন (আরইউজে) এর আয়োজন করে। এতে আরইউজে ছাড়াও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার্স ইউনিটি ও রাজশাহী কলেজ রিপোর্টার্স ইউনিটিসহ রাজশাহীর সর্বস্তরের সাংবাদিকবৃন্দ অংশ নেন। কালের কণ্ঠ শুভ সংঘের সদস্যরাও এতে অংশ নিয়ে জড়িতদের শাস্তির দাবি জানান।
মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক মশিহুর রহমান বলেন, বর্তমানে যাদের হাতে ক্ষমতা রয়েছে তাদের মধ্যে ক্ষমতা প্রয়োগ করে সাংবাদিকদের দমন করার অভিপ্রায় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এটি উদ্বেগজনক। আমরা সাংবাদিকদের ওপর হামলার তীব্র নিন্দা জানাই। এর বিচার নিশ্চিতে সব সময় সাংবাদিকদের পাশে আছি।
রাজশাহী সাংবাদিক কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান মো. লিয়াকত আলী বলেন, সাংবাদিক রফিকের ওপর হামলার ঘটনা সাধারণ নয়। এটা পরিকল্পিত। এই ব্যাপারে সাংবাদিকদেরও এখন চিন্তা করতে হবে। আমরা এই ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি জানাই। তা না হলে এ ঘটনার নেপথ্যে যারা আছেন তারা পার পেয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। আর সংকীর্ণ একটা রাস্তার পাশে ফুটপাত দখল করে কীভাবে এতা বড় ভবন নির্মাণ হলো সেটাও এখন তদন্ত করে দেখার সময় এসেছে।
রাজশাহী ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সহসভাপতি মামুন অর রশিদ বলেন, হামলাকারীরা জেনে শুনে পরিকল্পিতভাবে সাংবাদিক রফিককে পিটিয়েছে। এর নেপথ্যে যারা কলকাঠি নেড়েছেন আমি তাদের ধিক্কার জানাচ্ছি, ঘৃণা জানাচ্ছি। সাংবাদিকদের ওপর হামলা করে লাভ নেই, চোখ রাঙিয়েও লাভ নেই। এসব করলে সব সাংবাদিকরা একত্রিত হয়ে কলম দিয়েই এর প্রতিবাদ জানাবে।
মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন আরইউজের সভাপতি কাজী শাহেদ। কর্মসূচিতে আরও বক্তব্য দেন, বিএফইউজের সদস্য জাবীদ অপু, আরইউজের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শিবলী নোমান, রাজশাহী টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান শ্যামল।
মানববন্ধন কর্মসূচি পরিচালনা করেন আরইউজের সাধারণ সম্পাদক তানজিমুল হক।
প্রসঙ্গত, গত সোমবার সকালে মাছ কিনতে গিয়ে রাজশাহী নিউমার্কেট এলাকায় রাজশাহী-১ (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনের এমপি ওমর ফারুক চৌধুরীর মালিকানাধীন বহুতল ভবন থীম ওমর প্লাজার সামনে মোটরসাইকেল রাখেন সাংবাদিক রফিকুল ইসলাম। এ সময় ভবনের নিরাপত্তা কর্মীরা তাকে অশালীন ভাষায় কথা বলেন। রফিকুল ইসলাম তখন নিজের পরিচয় দিলে তাকে লাঠি ও লোহার রড দিয়ে বেধড়ক পেটানো হয়। খবর পেয়ে পুলিশ এবং সহকর্মীরা তাকে উদ্ধার করেন। এ নিয়ে মামলা করেছেন ভুক্তভোগী এই সাংবাদিক। পুলিশ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে।


সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close