১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার ১২:২২:৫৫ পিএম
সর্বশেষ:

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১১:৩৯:১৯ পিএম বুধবার     Print this E-mail this

পাথরঘাটার পচাকোড়ালিয়া গ্রামের মানুষের নির্ঘুম রাত কাটে আতঙ্কে

পাথরঘাটা প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 পাথরঘাটার পচাকোড়ালিয়া  গ্রামের মানুষের নির্ঘুম রাত কাটে আতঙ্কে

বরগুনা জেলার পাথরঘাটা উপজেলার পচাকোড়ালিয়া গ্রামের স্থানীয় প্রভাবশালী ইলিয়াসের ভয়ে দিন কাটছে। তার ভয়ে আর আগুন আতঙ্কে সাধারণ মানুষের প্রতিটি রাত কাটে। কেহ প্রতিবাদ করলেই মারধরসহ দেয়া হয় ঘরে আগুন। এমন অত্যচারে অতিষ্ঠ হয়ে অবশেষে সব স্থানীয়রা প্রতিবাদ করলেন তার বিরুদ্ধে।

ইলিয়াস উপজেলার জালিয়াঘাটা গ্রামের মৃত মোক্তার আলীর ছেলে।তিনি এলাকায় মাদকের ব্যাবসা, মানুয়ের বাড়িতে চুরি-ডাকাতি, মেয়েদের উত্যাক্ত করা, সুদের ব্যাবসা, সাধারন মানুষকে মারধরসহ রাতের আধারে ঘরে অগুন দিয়ে জালিয়ে দেয়াসহ বিভিন্ন অভিযোগ উঠেছে। আবার অনেকে অভিযোগ করে বলেন, সুদের টাকা দিতে দেরী হলে ঘরের মহিলাদের কুপ্রস্তাব দিয়ে আসে। কুপ্রস্তাবে বাধা দিলে মারধর ও রাতের আধাঁরে ঘরে আগুন দিয়ে জালিয়ে দেয়া হয়।

সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, ইলিয়াস ও তার সহযোগীদের চাঞ্চল্যকর তথ্য বেড়িয়ে আসে। বিভিন্ন সময় এলাকার নারীদের কুপ্রস্তাব, তাদের প্রস্তাবে রাজি না হলে তাকে বিভিন্ন সময় হয়রানী করা হয়। তার বিরুদ্ধে কেউ কথা বললে তাকে বিভিন্ন হয়রানীসহ রাতের আধারে ঘরে আগুন দিয়ে জালিয়ে দেয়। ওই এলাকার মানুষ তার হায়রানী থেকে মুক্তি পেতে চায়।

ওই গ্রামের ইলিয়াসের লালসার শিকার দেলোয়ারের স্ত্রী তাজেনুর বেগম বলেন, আমার স্বামী চাকরির জন্য এলাকার বাহিরে থাকার সুযোগে ইলিয়াস আমায় নানা কপ্রস্তাব দেয় আর রাতে এসে দরজা খুলতে বলে। আমি চিৎকার দিলে আশে পাশের মানুষ দৌড়ে আসলে সে পালিয়ে যায়। পরে এরকম আরেক একদিন সে আসলে আমি চিৎকার করলে আমার ভাসুর ও ভাগিনা ছুটে আসে পরে ইলিয়াস তাদের বেদম মারধর করে এরপর আমি থানায় মামলা করলে সে এক মাস হাজতেও থাকে। এভাবে দিনের পর দিন আমার সাথে এরকম করার কারনে আমার স্বামী আমায় তালাক দিয়েছে। আমার তালাকেই সে খান্ত হয়নি আমার ছোট ছেলের নামে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে থানায় মামলা করে। সে এখন দিনের পর দিন বিভিন্ন হুমকি দিয়ে আসছে।

এব্যাপারে দেলোয়ার বলেন, ইলিয়াস তিন মাস আগে আমার রিকসা পুড়িয়েছে, আবার আমার গ্যারেজে আগুন দেয়। আমি থানায় মামলা করতে গেলে থানায় মামলা নেয়নি।

ওই বাজারের ব্যবসায়ী সোহেল বলেন, ইলিয়াস একজন নিকর্মা মানুষ তার কোন কাজ নেই ঘুরে বেড়ায় কিন্তু এলাকায় তার একটা দাপট আছে। একটু খোজ নিলেই বুঝতে পারবেন তার বিরুদ্ধে নারী সম্পর্কিত অভিযোগ আছে। দেলোয়ারের স্ত্রীকে সে উত্যাক্ত করে এ নিয়ে তাদের মাঝে বিরোধ চলছে অনেক বছর ধরে।ইলিয়াস বিভিন্ন সময় বাজারে আগুন, বাড়িতে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটিয়েছে।

ফকিরহাট বাজার কমিটির সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান জানান, তার বিরুদ্ধে কিছু বললেই হয়তো রাতে আমার ঘরে আগুন দিয়ে দিবে। ইলিয়াস খুবই ভয়ানক লোক সে পারে না এমন কোন কাজ নেই। কেউ তার বিরুদ্ধে কিছু বললেই তার ঘরে আগুন দেয়। তার ভয়ে ও যড়যন্ত্রের কারনে অনেকেই এলাকা ছেড়েছে।

এ ব্যপারে অভিযুক্ত ইলিয়াসের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমি নিরিহ মানুষ আমার বাবার কিছু জমি আছে তা লুটপাট করার জন্যই দেলোয়ার আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে।

পাথরঘাটা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহবুদ্দিন জানান, আমি নতুন যোগদান করেছি। এখানে আসার পরে কেউ এরকম অভিযোগ নিয়ে আসেনি। খোঁজ খবর নিয়ে দেখছি

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close