২৯ মে ২০২০, শুক্রবার ০১:০৬:০৪ এএম
সর্বশেষ:
পরিচয় নিশ্চিত না হয়ে কাউকে ঘরে ঢুকাবেন না, কোনো সন্দেহ হলে নিকটস্থ থানাকে অবহিত করুন অথবা ৯৯৯ কল করুন: পুলিশ সদর দপ্তর           

১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১০:০৮:৫৯ পিএম বুধবার     Print this E-mail this

ঝালকাঠি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি) দুর্ণীতির আখড়া

এস এম রেজাউল করিম, ঝালকাঠি
বাংলার চোখ
 ঝালকাঠি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি) দুর্ণীতির আখড়া

ঝালকাঠি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি) দূর্নীতির আখরায় পরিনত হয়েছে। প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ সাদেকা সুলতানা ও একাডেমিক ইনচার্জ শাহিন বাদশা সম্পর্কে স্বামী স্ত্রী। স্বামী-স্ত্রী মিলে  টিটিসিকে পারিবারিক সম্পত্তি মনে করে যাচ্ছে তাই করছেন। প্রাইয় নানা অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া যায়।
সরেজমিন টিটিসিতে গিয়ে নানা অনিয়মের সত্যতাও পাওয়া যায়। ২ দিন পূর্বে একটি দালাল চক্রের মাধ্যমে ৬ জন নারীকে সিলেট থেকে নিয়ে আসা হয় ট্রেনিংয়ের জন্য। বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসলে দালালচক্রকে ভ্রামমান আদালত তাদের জরিমানা করেন। দালালদের জরিমানা করার পরে এনডিসি মো: মোঃ বশির গাজী সাংবাদিকদের জানান, এ ঘটনায় টিটিসি অধ্যক্ষসহ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসক মহোদয় সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বরাবরে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আবেদন জানাবেন।

এদিকে টিটিসিতে বিভিন্ন পর্যায় কর্মরত প্রশিক্ষনার্থীদের সাথে কথা বলে জানা যায়,  ক্যাম্পাসে থাকা গাছ কেটে বিক্রি, প্রশিক্ষণার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায়, নিজ বাসভবনের নীচ তলার গেস্টরুমে মহিলা হোস্টেল, ৩০দিন মেয়াদী প্রশিক্ষণের ৩দিন প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করিয়েই কোর্স সম্পন্ন করে সনদ প্রদান, থাকা-খাওয়া বাবদ টাকা রেখে তা ফেরত না দিয়ে আত্মসাৎ, সুবিধা নিয়ে টয়লেটের সামনে কেন্টিন দেয়ার সুযোগসহ বিবিধ অভিযোগ রয়েছে টিটিসির কর্তা দম্পতির বিরুদ্ধে।  এছাড়া অধ্যক্ষ কর্তৃক ট্রেনিং কোর্সের প্রশিক্ষণার্থীদের উপবৃত্তির টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ রয়েছে।

এ বিষয় জানতে চাইলে টিটিসি অধ্যক্ষ সাদেকা সুলতানা বলেন, ৩০ দিনের প্রশিক্ষন ৩ দিন করিয়ে সনদ দেয়ার অভিযোগ সঠিক নয়। নিজের বাসার নিচ তলায় গেষ্ট রুমে মহিলা হোষ্টেল বানানোর বিষয় তিনি বলেন, ঝালকাঠিতে পুরুষ-মহিলা একই হোষ্টেলে থাকার পরিবেশ নেই তাই এটা আমি করেছি। বাথরুমে কেন্টিন করে ভাড়া দেয়ার ব্যাপারে তিনি বলেন, শিক্ষাুার্থীদের যাতে বাইরে যেতে না হয় সে জন্য এ ব্যবস্থা। অবৈধ ভর্তির ব্যাপারে তিনি বলেন, সোমবার আমি ছিলাম না এ ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে।


সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
আইটি উপদেষ্টা
সোহেল আসলাম
উপদেষ্টামন্ডলী
মোঃ ইমরান হোসেন চৌধুরী
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2020. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close