১৬ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার ১২:৪৬:৩৭ এএম
সর্বশেষ:

১৩ অক্টোবর ২০১৯ ০২:২৮:৪৮ এএম রবিবার     Print this E-mail this

তিস্তায় পানির ন্যায্য হিস্যা পায়নি বাংলাদেশের জনগন,খুলনায় গয়েশ্বর

খুলনা থেকে প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 তিস্তায় পানির ন্যায্য হিস্যা পায়নি বাংলাদেশের জনগন,খুলনায় গয়েশ্বর

বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য বাবু গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, তিস্তায় পানির ন্যায্য হিস্যা পায়নি বাংলাদেশের জনগন।তাহলে আমরা ফেনী নদীর পানি কেন দিব? আবার অসময়ে ফারাক্কার সবগুলো গেট খুলে দিয়ে দেশের উত্তরাঞ্চলে কৃত্রিম বন্যার সৃষ্টি করা হয়েছে। ভারতের আবদারে এখন আবার ফেনী নদীর পানি দেয়া হচ্ছে। বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় রাডার বসিয়ে নজরদারী করবে ভারত! তাতে আর বাংলাদেশের সার্বভৌম্যত্ব থাকলো? আবার রাডার বসানোর কারণে অহেতুক অন্য প্রতিবেশী দেশগুলোর সাথে আমার বৈরিতার সৃষ্টি হতে পারে।

শনিবার (১২ অক্টোবর) বিকেলে খুলনা মহানগর ও জেলার বিএনপির আয়োজনে সমবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

বিএনপি নেতা গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকান্ড গত ১১ বছর ছাত্রলীগের অপকর্মের বহিঃপ্রকাশ। সমগ্র বাংলাদেশের পবিত্র ক্যাম্পাস দখল করে বিরোধী দল-মত দমনে টর্চারসেল বানিয়ে হাজার হাজার মেধাবী শিক্ষার্থীদের উপর নিপীড়ন চালিয়ে হত্যা, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজী ও টেন্ডারবাজী করে শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাসের অভয়ারণ্য বানিয়েছে। যার কারণে মেধাবী ছাত্ররা হত্যাকান্ডের শিকার হচ্ছে। সকল শিক্ষাঙ্গনের ক্যাম্পাস থেকে সন্ত্রাসী ছাত্রলীগকে উৎখাতে আজ সাধারণ শিক্ষার্থীরা আন্দোলনরত; তাদের আন্দোলনের ভাষা দেশবাসীর মনোভাবেরই বহিঃপ্রকাশ।

তিনি আরো বলেন, মংলা বন্দর কার স্বার্থে? কিসের বিনিময়ে ভারতকে ব্যবহার করতে দিচ্ছেন? সেটা জানতে চাইতেই পারে বাংলাদেশের জনগন।’

জনসমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন জেলা বিএনপির সভাপতি এ্যাডভকেট শফিকুল আলম মনা, মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনি, শাহারুজ্জামান মোর্ত্তজা, সৈয়দা নার্গিস আলী, আমীর এজাজ খান, দেলোয়ার হোসেন খোকন, এ্যাডভকেট  ফজলে হালিম লিটন, মীর কায়সেদ আলী, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, খান জুলফিকার আলী জুলু, আরিফুজ্জামান অপু, কামরুজ্জামান টুকু, মোল্যা মোশাররফ হোসেন, খায়রুল ইসলাম খান জনি, সৈয়দা রেহেনা ঈসা, মাহবুব হাসান পিয়ারু, মুজিবুর রহমান, একরামুল হক হেলাল ও শফিকুল ইসলাম বাবু প্রমুখ। জনসমাবেশ সঞ্চালনা করেন আসাদুজ্জামান মুরাদ ও ওয়াহিদুজ্জামান রানা।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close