২২ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার ০৬:৫৬:৪১ পিএম
সর্বশেষ:

২০ অক্টোবর ২০১৯ ০৩:০৬:০২ এএম রবিবার     Print this E-mail this

উড়ন্ত জয়ে শেখ কামাল টুর্নামেন্টের পর্দা তুলল চট্টগ্রাম আবাহনী

স্পোর্টস ডেক্স
বাংলার চোখ
 উড়ন্ত জয়ে শেখ কামাল টুর্নামেন্টের পর্দা তুলল চট্টগ্রাম আবাহনী

 টুর্নামেন্টের বর্তমান বনাম সাবেক চ্যাম্পিয়নের ম্যাচ। তাতে হালে পানি পেল না বর্তমান চ্যাম্পিয়ন টিসি স্পোর্টস। মালদ্বীপের ক্লাবটিকে ৪-১ গোলে ডুবিয়ে শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ টুর্নামেন্টের তৃতীয় আসরের পর্দা তুলল ২০১৫ সালের চ্যাম্পিয়ন চট্টগ্রাম আবাহনী।

বন্দরনগরী চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে শনিবার প্রথম ম্যাচের আগে টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। নামমাত্র এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে উদ্বোধনী পর্ব সারা হলেও মাঠে উপস্থিত পাঁচ হাজার দর্শককে মন খারাপ করতে দেননি চট্টগ্রামের খেলোয়াড়রা। খেলার শুরু থেকেই আধিপত্য বিস্তার করে ছড়ি ঘুরিয়েছে স্বাগতিকরা।


ম্যাচের চতুর্থ মিনিটে স্বাগতিকদের এগিয়ে নেয়ার সুযোগ পেয়েছিলেন ইয়াসিন আরাফাত। তবে ডি-বক্সের বাইরে থেকে শটে চট্টগ্রামের এ ডিফেন্ডার বল পাঠান বাইরে।

তবে অষ্টম মিনিটেই কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায় চট্টগ্রাম। ডি-বক্সের বামপ্রান্ত দিয়ে আরিফুল ইসলামের কাটব্যাক থেকে জোরাল শটে বল জালে জড়ান চিন্দুমা ম্যাথিউ।


দশম মিনিটে দর্শনীয় এক শটে ব্যবধান ২-০ করেন ইয়াসিন আরাফাত। একক নৈপুণ্যে মাঝমাঠে বল টেনে নিয়েছিলেন। পরে ডি-বক্সের বামপ্রান্তের বাইরে থেকে রংধনুর মতো বাঁকানো এক শটে মালদ্বীপ গোলরক্ষক ইব্রাহিম আদমের মাথার উপর দিয়ে বল জালে জড়ান চট্টগ্রামের ১৬ বছর বয়সী ডিফেন্ডার।

পরে ২৯ মিনিটে ব্যবধান কমানোর সুযোগ পেয়েছিলেন মোহাম্মদ সামির। ২৫ গজ দূর থেকে নেয়া টিসি স্পোর্টসের এ খেলোয়াড়ের শট অল্পের জন্য খুঁজে পায়নি লক্ষ্য। পরের মিনিটে গোলরক্ষককে একা পেয়েও সুযোগ কাজে লাগানো হয়নি চট্টগ্রামের ফরোয়ার্ড রোতকোভিচ লুকার।

ম্যাচের ৩৯ মিনিটে স্বাগতিক দর্শকদের তৃতীয়বারের মতো উল্লাসে ভাসান চিন্দুমা ম্যাথিউ। টিসির দুর্বল বাম রক্ষণকে কাজে লাগিয়ে ডি-বক্সে বল পান এ মিডফিল্ডার। পাস দেন আরিফুলকে। আরিফ বল ধরে রাখেননি, ক্রস করেছিলেন ম্যাথিউয়ের দিকে। পেয়েই দেরি করেননি, দারুণ এক ভলিতে বল জড়িয়ে দেন জালে।

আর ৭১ মিনিটে মালদ্বীপ গোলরক্ষকের ভুলে চট্টগ্রামকে চতুর্থ গোল উপহার দেন রোতকোভিচ লুকা। ডি-বক্সের ডানপ্রান্তের বাইরে থেকে লুকার দিকে বল উড়িয়ে দিয়েছিলেন আরিফুল ইসলাম। মালদ্বীপ গোলরক্ষক বেড়িয়ে এসে চেয়েছিলেন বল গ্রিপ করতে। তার পিচ্ছিল গ্লাভস গলে বল গিয়ে পড়ে ঠিক লুকার পায়েই। সুযোগ লুফে নিতে দেরি করেননি মন্টেনেগ্রোর ফরোয়ার্ড। আলতো শটে পূর্ণ করেন গোলের হালি।

খেলা শেষ হওয়ার দুই মিনিট আগে টিসির সান্ত্বনার গোলটি আনেন ইসমাইল ইয়াসা।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close