০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার ০৬:২৬:৩৬ পিএম
সর্বশেষ:

১৯ নভেম্বর ২০১৯ ০৬:৫৩:১৬ পিএম মঙ্গলবার     Print this E-mail this

গলাচিপায় লবণ সংকটের গুজবে বেচা-কেনার হিড়িক

গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 গলাচিপায় লবণ সংকটের গুজবে বেচা-কেনার হিড়িক

লবণ সংকটের গুজবে বেচা-কেনার হিড়িক পড়েছে গলাচিপা খুচরা বাজারে। গৃহিণী থেকে শুরু করে সব শ্রেণি পেশার মানুষের ঢল নেমেছে লবণের দোনগুলোতে। মঙ্গলবার বিকেল তিনটা থেকে উপজেলার পৌর এলাকাসহ গ্রামাঞ্চলের বিভিন্ন দোকানগুলোতে এ দৃশ্য দেখা যায়। এদিকে অতিরিক্ত দামে লবণ কিক্রির অভিযোগে স্থানীয় গৌতম পাল নামের এক ব্যবসায়ীর ১৬ বস্তা লবণ আটক করেছে পুলিশ। এ ব্যাপারে গলাচিপা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মো. রফিকুল ইসলাম জানান, এটি নিছক গুজব।

মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে চারটায় গলাচিপা পৌর এলাকার থানা রোডের মহিউদ্দিনের মুদি ও মনোহরী দোকানে দেখা যায় খুচরা ক্রেতাদের ভীড়। সেখানে কথা হয় পৌর এলাকার ১ নম্বর ওয়ার্ডের গৃহবধূ নাসিমা বেগমের সাথে। তিনি বলেন, ‘গ্রাম থেকে আমার আত্মীয় স্বজনরা ফোনে লবণের দাম বাড়ার কথা জানিয়েছে। বেশি করে সবার জন্য লবণ কিনতে বলে। তাই আমি তাড়াতাড়ি এক বস্তা (২৫ কেজি) লবণ প্রতিকেজি ৩৫ টাকা দরে কিনে নিয়ে যাচ্ছি।’

পৌর এলাকার পেয়ারাবাগানের কুলসুম বেগম বলেন, ‘ব্যাংকে এসে মানুষের কাছে লবণের দাম বাড়ার কথা শুনে ১০ কেজি লবণ কেজি প্রতি ৫০ টাকা দরে কিনে আনলাম। কওন যায় না কোন সময় কী হয়।’

দক্ষিণ কালিকাপুর এলাকার এনায়েত হোসেন বলেন, ‘কালিকাপুর এলাকার বাজারের দোকানে প্রতি কেজি লবণ ১০০-১৫০ টাকা করে এখানে বিক্রি হচ্ছে।’

এ বিষয় গলাচিপা থানা রোডের মুদী দোকানী মো. মহিউদ্দিন বলেন, ‘দুপুরের পর হঠাৎ করেই লবণের জন্য কাস্টমাররা দোকানে ভীড় করে। কেন করে তা আমরা জানি না। কাস্টমাররা চায় আমরা দেই।’’

এদিকে বেশি দামে লবণ বিক্রির অভিযোগে গলাচিপার আড়ৎপট্টি এলাকার গৌতম পালের দোকানে অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রির অভিযোগে ২৫ কেজি ওজনের লবণ ভর্তি ১৬ বস্তা লবণ জব্দ করেছে পুলিশ। এ ছাড়াও বিকেল সোয়া পাঁচটা পর্যন্ত পুলিশ উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজারের দোকানে নজরদাী অব্যাহত রেখেছে।

এ প্রসঙ্গে গলাচিপা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘এটি একটি গুজব। এক শ্রেণির প্রতারক ব্যবসায়ীরা গুজব ছড়িয়ে অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রি করার চেষ্টা করছে। দেশে লবণের কোন ঘাটতি নাই। আমরা জনগণকে আশ্বস্ত করার জন্য মাইকিং করাচ্ছি। যদি কেউ অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রির চেষ্টা করে তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’


সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
মমতাজ বেগম
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2019. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close