২০ জানুয়ারি ২০২০, সোমবার ০৯:০৬:০৮ এএম
সর্বশেষ:

১১ ডিসেম্বর ২০১৯ ০১:১৪:০২ এএম বুধবার     Print this E-mail this

গারো পাহাড়ে মধু চাষ

শেরপুর প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 গারো পাহাড়ে মধু চাষ

 শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার গারো পাহাড়ের ১২টি স্থানে স্থানীয় ও ভ্রাম্যমাণ মৌচাষিরা প্রায় চার হাজার কাঠের বাক্স বসিয়ে মধু সংগ্রহ করছেন। উপজেলার গারো পাহাড়ের সারি সারি শাল নানা প্রজাতির গাছ-গাছালিঘেরা উঁচু-নিচু টিলা বেষ্টিত অঞ্চলের ছোট গজনীতে গাজীপুরের গৌরাঙ্গ, গুরুচরণ দুধনইতে স্থানীয় হালিম, তাওয়াকুচায় সাতক্ষীরার মিলন, জোকাকুড়ায় সিরাগঞ্জের মোস্তফা, উত্তর পানবরে দিনাজপুরের জসিম, বড় গজনীতে রামপুরার রতন, নকশীতে সাতক্ষীরার করিম, দরবেশ তলায় স্থানীয় সাম্বুদা, গান্ধীগাঁওয়ে সাতক্ষীরার আমিনুর, মিজান, কাউছার ও হলদিয়া গ্রামে টাঙ্গাইলের আবু হানিফ খান কাঠের বাক্স বসিয়ে মৌচাষ করছেন।

উপজেলার গুরুচরণ দুধনই গ্রামের স্থানীয় মৌচাষি হালিম বলেন, ২০০৯ সালে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশনে (বিসিক) মৌমাছি প্রকল্পের ওপর প্রশিক্ষণ নিয়ে তিনি মৌচাষ শুরু করেন। তিনি মধু চাষ করে স্বালম্বী হয়েছেন। এ উপজেলায় বর্তমানে ১২ থেকে ১৫টি স্থানীয় ও ভ্রাম্যমাণ মৌচাষের দল ৪ হাজার কাঠের বাক্স বসিয়ে মধু সংগ্রহ করছেন বলে তিনি জানান ।

সাতক্ষীরার ভ্রাম্যমাণ মৌচাষি আমিনুর বলেন, গত অক্টোবর মাসের শেষ সপ্তাহে আমরা এখানে এসেছি। এ সময়টুকু  পাহাড়ে মৌচাষের উপযুক্ত সময় ছিল। আমি একমাসে ৩৩০টি বাক্স থেকে ১২ মণ মধু সংগ্রহ করেছি।  এলাকায় আর এক সপ্তাহ আছি, এরমধ্যে আরও পাঁচ থেকে সাত মণ মধু সংগ্রহ করা যাবে। পরর্বতীতে সরিষা চাষ হচ্ছে এমন এলাকায় গিয়ে মৌচাষ করবেন বলে জানান এ মৌচাষি।

উপজেলার হলদিয়া গ্রামে ভ্রাম্যমান মৌচাষি ন্যাশনাল এপিকালচার ফাউ-েশনের সভাপতি টাঙ্গাইলের আবু হানিফ খান বলেন, ঝিনাইগাতী উপজেলার হলদিয়া গ্রামে আমি ২৫০টি কাঠের বাক্সে  মৗমাছি বসিয়ে গত ৩০ দিনে মধু সংগ্রহ করেছি ১২ মণ। এ এলাকায় প্রচুর সবজি চাষ হয়। বর্তমানে সবজিতে কীটনাশক স্প্রে করায় মাছি মারা যাচ্ছে, তাই আমরা চলে যাচ্ছি । কিন্তু এখনও মধু সংগ্রহের সময় ছিল, এখানে আর সপ্তাহ থাকতে পারলে আরও অন্তত ১২ থেকে ১৩ মণ মধু সংগ্রহ করা যেত।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির বলেন, এ উপজেলায় মৌচাষে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। বর্তমানে এখানে ১২ থেকে ১৫টি স্থানীয় ও ভ্রাম্যমান মৌচাষির দল মধু সংগ্রহ করছেন। তাদের যেকোন সমস্যার কথা জানা মাত্রই, প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা  হচ্ছে। তবে কৃষকরা যাতে সবজিতে কীটনাশক ব্যবহার না করে, সেজন্য মাঠ পর্যায়ে কাজ করছে কৃষি বিভাগ ।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
কাউসার হোসেন সুইট
উপদেষ্টামন্ডলী
মোঃ ইমরান হোসেন চৌধুরী
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2020. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close