২৯ মার্চ ২০২০, রবিবার ০৫:৫৮:৫৪ এএম
সর্বশেষ:

০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৭:৫৯:০২ পিএম বুধবার     Print this E-mail this

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনের পরিবেশ ইসির নিয়ন্ত্রনেই ছিল:ইসি সচিব

ডেক্স রিপোর্ট
বাংলার চোখ
 ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনের পরিবেশ ইসির নিয়ন্ত্রনেই ছিল:ইসি সচিব

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ৯৯.৯৯ শতাংশ পরিবেশ নির্বাচন কমিশনের (ইসি) নিয়ন্ত্রণে ছিল বলে দাবি করেছেন ইসির সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর। তিনি বলেন, ‘নির্বাচন করার জন্য যে পরিবেশ থাকা দরকার, তা ৯৯.৯৯ ভাগ ছিল। বাকি পয়েন্ট জিরো জিরো নিয়ে যদি আপনারা কিছু বলতে পারেন।’

বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ দাবি করেন। তবে মারামারির কিছু ঘটনা তারা পরে শুনেছেন বলে স্বীকার করেন ইসি সচিব।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচনের পরে শুনেছি যে, একই দলের মধ্যে হয়তো বিদ্রোহী প্রার্থী আছে, তারা হয়তো হাতাহাতি করেছে।’ তবে এ কারণে আইনশৃঙ্খলার অবনতি হয়নি বলে দাবি করেন তিনি।

গত ১ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ তুলে বিএনপি তা বাতিলের দাবি জানিয়েছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইসি সচিব বলেন, ‘নির্বাচন বাতিলের কোনও সুযোগ নেই। নির্বাচন কমিশন গেজেট প্রকাশ করেছে। কেউ যদি চান, আদালত পর্যন্ত যেতে পারেন। পরবর্তীতে আদালত যদি কোনও আদেশ দেন তখন নির্বাচন কমিশন তা দেখবে।’

ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিমে (ইভিএম) ভোট জালিয়াতির অভিযোগ প্রসঙ্গে মো. আলমগীর বলেন, ‘ইভিএমে যা ভোট পড়েছে সেই অনুযায়ী ফল প্রকাশিত হয়েছে। কারণ, এখানে অতিরিক্ত ভোট দেওয়ার কোনও সুযোগ নেই। আঙুলের ছাপ ও আইডি কার্ড ছাড়া যেহেতু ভোট দেওয়ার কোনও সুযোগ নেই, ভোটারকে অবশ্যই ফিজিক্যালি যেতে হয়েছে। সুতরাং ভোটার কেন্দ্রে না গেলে ভোট দেওয়ার কোনও সুযোগ নেই।’

তিনি বলেন, ‘একজন ভোট দিতে যাননি, অথচ তার ভোটটি পড়েছে, এরকম ঘটনা ঘটলে তা প্রমাণ করে দেখাক। তাহলে বলা যাবে, ভোটাররা আসেননি, অথচ ভোট পড়েছে। ইভিএম সিস্টেমে ভোটার না আসলে ভোট দেওয়ার কোনও সুযোগ নেই। ইভিএমের যে কারিগরি দিক রয়েছে, তাতে এটা সম্ভব না।’

সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তারা ১ শতাংশের বেশি ভোটারকে নিজ আঙুলের ছাপ দিয়ে ব্যালট ইস্যু করেছেন এমন অভিযোগের বিষয়ে ইসি সচিব বলেন, ‘কমিশনের কাছে ১ শতাংশের বেশি ব্যালট ইস্যুর জন্য অনুমোদন চেয়ে কোনও অনুরোধ আসেনি। রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছেও এ ধরনের কোনও অভিযোগ আসেনি।’ তবে একটা-দুইটা কেন্দ্রে হয়তো হতে পারে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
কাউসার হোসেন সুইট
উপদেষ্টামন্ডলী
মোঃ ইমরান হোসেন চৌধুরী
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2020. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close