২৭ মে ২০২০, বুধবার ০৫:১৭:২২ এএম
সর্বশেষ:
পরিচয় নিশ্চিত না হয়ে কাউকে ঘরে ঢুকাবেন না, কোনো সন্দেহ হলে নিকটস্থ থানাকে অবহিত করুন অথবা ৯৯৯ কল করুন: পুলিশ সদর দপ্তর           

০৮ এপ্রিল ২০২০ ০৮:৩৫:০৮ পিএম বুধবার     Print this E-mail this

হোম কোয়ারেন্টাইনে ২৪৩ জন

নীলফামারীর কিশোরগজ্ঞে চিকিৎসক আক্রান্ত হওয়ায় স্বাস্থ্যকেন্দ্র লকডাউন

নীলফামারী ও কিশোরগজ্ঞ প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
হোম কোয়ারেন্টাইনে ২৪৩ জন নীলফামারীর কিশোরগজ্ঞে চিকিৎসক আক্রান্ত হওয়ায় স্বাস্থ্যকেন্দ্র লকডাউন

 নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় তাকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। ওই চিকিৎসকের সংস্পর্সে থাকা চিকিৎসক, নার্স সহ উপজেলার ২৪৩ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে  রাখা হয়েছে। পাশাপাশি উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি লকডাউন করা হয়েছে। এছাড়াও বেশ কিছু বসত বাড়িতে লাল পতাকা উড়িয়ে দিয়েছে প্রশাসন।
সংশ্লিষ্ট সুত্র মতে, নীলফামারীর কিশোরগজ্ঞ উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের একজন চিকিৎসক গত ২৫ মার্চ ছুটি নিয়ে ঢাকার বাড়ীতে যান।  ৩ এপ্রিল কর্মস্থলে যোগ দেয়ার পর তিনি জ্বর-সর্দি কাশিতে আক্রান্ত হন। ৫ এপ্রিল ওই চিকিৎসকের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায় স্বাস্থ্য বিভাগ।ওই দিন ওই চিকিৎসকসহ সাতজনের নমুনা রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পাঠানো হয়েছিল। তাদের মধ্যে শুধু এই চিকিৎসকই সংক্রমণের শিকার বলে মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় ফলাফল আসে।
নীলফামারী সিভিল সার্জন রনজিৎ কুমার বর্মন বলেন, মঙ্গলবার বিকাল ৫টার পর থেকে ওই স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি লকডাউন করা হয়েছে। ওই চিকিৎসকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে। তার শারীরিক অবস্থা ভাল রয়েছে। এ ছাড়া ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সকল চিকিৎসক-কর্মচারীকে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি। এদিকে উপজেলা হাসপাতালটি লকডাউনে থাকায় উপজেলাবাসীকে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য সেবা নিতে ইউনিয়ন পর্যায়ের কমিউনিটি ক্লিনিক গুলোতে সেবা গ্রহনের জন্য বলা হয়েছে।

জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী জানান, উপজেলা স্থাস্থ্যকেন্দ্র লকডাউন করা সহ ওই চিকিৎসকের কাছাকাছি ছিল এমন ব্যক্তিদের চিহিৃত করে তাদের প্রত্যেকের বাড়িতে লাল পতাকা উড়িয়ে দেয়া হয়েছে।
বাহাগিলি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান শাহ দুলু জানান, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ডাক্তার যে ফার্মেসীতে বসে রোগী দেখতেন সেই দোকানদারের বাড়ি এবং নারায়নগঞ্জ ফেরত একজনের বাড়ি লকডাউন করে লাল পতাকা টাঙ্গিয়ে দেয়া হয়েছে।
গাড়াগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মারুফ হোসেন জানান, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর ওই হাসপাতালে কর্মরত একজন স্বাস্থ্যকর্মী এবং আমার ইউনিয়নে আরেক  বাসিন্দার বাড়ি লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
আইটি উপদেষ্টা
সোহেল আসলাম
উপদেষ্টামন্ডলী
মোঃ ইমরান হোসেন চৌধুরী
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2020. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close