০৯ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার ০৮:৩১:৪০ পিএম
সর্বশেষ:

২৮ জুন ২০২০ ০৯:১২:১৪ পিএম রবিবার     Print this E-mail this

বরগুনায় দুর্নীতির জালে সড়ক বিভাগ

বরগুনা প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 বরগুনায় দুর্নীতির জালে সড়ক বিভাগ

বর্তমান বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসে সারাবিশ্ব প্রকম্পিত কিন্তু বসে নেই বরগুনা সড়ক ও জনপথ বিভাগ। দুর্নীতির নিয়মিত কাজটি তারা চালিয়ে যাচ্ছেন যথারীতি ।

গৌরিচন্না থেকে ফুলঝুড়ি পর্যন্ত সড়ক বিভাগের দুই কিলোমিটার রাস্তায় চলছে মেরামত কাজ। ১২/৫/২০২০ তারিখে নওগাঁ জেলার মোঃ আমিনুল হক প্রাইভেট লিমিটেড কাজটির কার্যাদেশ গ্রহণ করে বরিশালের কোহিনুর এন্টারপ্রাইজ এর মাধ্যমে এক সপ্তাহ আগে মেরামতের কাজ শুরু করেন। ৩০ শে জুন এর মধ্যে কাজ সম্পন্ন হবার কথা রয়েছে। ২৭ লক্ষ টাকা ব্যায়ে এই মেরামত কাজের সিডিউলে ভাঙ্গন কবলিত গর্ত মেরামত করতে ইটের খোয়া বালু পাথরের খোয়া উন্নত মানের বিটুমিন ব্যবহার করার কথা থাকলেও এই মেরামত কাজে কর্ম এলাকায় এক টুকরো পাথরের খন্ড খুঁজে পাওয়া যাবে না । স্থানীয় জনগণ সিডিউল ভিত্তিক কাজ দাবি করে পোড়ামাটির খোয়া বালু ও হালকা বিটুমিনের দিয়ে সিল কোট করা রাস্তা খুরে ফেলছেন। স্থানীয়রা বলছে বর্তমান চলমান বর্ষা মৌসুমে শেষ না হতেই এই রাস্তা আবার আগের মতই হবে ।

এ বিষয়ে কাজের দায়িত্বে থাকা সড়ক ও জনপথ বিভাগের শাখা কর্মকর্তা মোঃ রফিকুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন কেন সিডিউল মতোই কাজ হচ্ছে ।

স্থানীয় লোকজন রাস্তা উপড়ে ফেলেছে এবং রাস্তার সিডিউল ভিত্তিতে কাজ হচ্ছে না এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন কেন ঠিকই তো আছে।

বরগুনার সড়ক বিভাগের দুর্নীতি বরগুনা জেলার সকল প্রকৌশল বিভাগের মধ্যে সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছে গেছে।

সড়ক বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী ঘুষের ৬৫ লক্ষ টাকা নিয়ে দুদকের হাতে ধরা পড়েছিলেন। বর্তমান নির্বাহী প্রকৌশলী কে ফোন করে পাওয়া গেল না। রাস্তা যেনতেনভাবে লিপে পুছে ৩০ জুনের মধ্যে বিলের টাকা তোলা চাই। কাজের দায়িত্বে নিয়োজিত সড়ক বিভাগের শাখা কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম এর সাথে দুর্নীতির যোগসাজশে সড়ক বিভাগের টাকা লুটপাট করে হচ্ছে। যেটা রফিকুল ইসলামের বক্তব্য প্রমাণ করে। সে লক্ষ্য নিয়েই শুভংকরের ফাঁকি দিয়ে সরকারি টাকা আত্মসাতের নেশায় এখন ঠিকাদার এবং বরগুনা সড়ক বিভাগের কর্মকর্তারা।

বরগুনার বাইঞ্চটকি অন্য রাস্তা দেখিয়ে দুই কিলোমিটার রাস্তা নির্মাণের টাকা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের এবং কর্মকর্তারা ভাগাভাগি করে লুটপাট করেছিলেন। বরগুনা পুরাকাটা সড়কে ইতিপূর্বেও ১১ বার টেন্ডার দেখিয়ে সড়ক বিভাগ টাকা লুটপাট করে নিয়ে গেছে।

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
আইটি উপদেষ্টা
সোহেল আসলাম
উপদেষ্টামন্ডলী
মোঃ ইমরান হোসেন চৌধুরী
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2020. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close