১১ আগস্ট ২০২০, মঙ্গলবার ০৯:৩১:০৯ পিএম
সর্বশেষ:

০৯ জুলাই ২০২০ ০৮:৪৮:১৯ পিএম বৃহস্পতিবার     Print this E-mail this

দাকোপে আলোচিত মামলার চাঞ্চল্যকর রহস্য উৎঘাটন

দাকোপ (খুলনা) প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 দাকোপে আলোচিত মামলার চাঞ্চল্যকর রহস্য উৎঘাটন

দীর্ঘ দুই বছর পর খুলনার দাকোপে আলোচিত মৎস্যজীবি নাসির সানা (৩৯) হত্যা মামলার জোয়াট খুলতে শুরু করেছে। সম্প্রতি মামলার প্রধান স্বাক্ষী হাতেম আলী সানা (৫০) সহ চারজনকে দুই দপায় পুলিশের অপরাধ দমন বিভাগ (সিআইডি) আসামী হিসেবে গ্রেফতারের পর বেরিয়ে আসছে এ চাঞ্চল্যকর তথ্য। গ্রেফতারকৃত অন্যান্য আসামীরা হলেন জয়নগর এলাকার শশধর মন্ডলের ছেলে অচিন্ত্য মন্ডল (২৬) ও স্ত্রী সন্ধ্যা ওরফে সোনালী মন্ডল (৪৫), অহিদুল ইসলাম ওরফে অদুল সানা (৪৬)।
খুলনা সিআইডি পুলিশ পরির্দশক শেখ শাহাজাহান হোসেন জানান, উপজেলার কামাখোলা ইউনিয়নের জয়নগর এলাকায় কামারগোদা নদীটি স্থানীয় প্রভাবশালী একটি মহল অবৈধ ভাবে দখল করে আসছিল। ২০১৮ সালে জয়নগর মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির সভাপতি আব্দুল লতিফ সানা সরকারী ভাবে ওই নদীটি ইজারা পায়। ইজারাদারকে দখলচ্যুত ও প্রতিপক্ষকে সাহেস্থা করতে স্থানীয় এক জনপ্রতিনিধির নির্দেশে হাতেম আলী, অহিদুলসহ ৫/৬ জন মিলে ওই বছর ১০ জুলাই গভির রাতে মৎস্যজীবি নাসিরকে গলা কেটে হত্যা করে ঠাকুরনবাড়ি খালে ফেলে রাখে। পরের দিন ঘাতকদের প্ররোচনায় নিহতের বাবা আব্দুর রাজ্জাক সানা বাদি হয়ে নিরিহ ১৩ জনকে আসামী করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে যার নম্বর-১০। আবার ওই আসামীদের গ্রেফতার এবং ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধনও করেন তারা। এদিকে মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য খুলনা সিআইডির ওপর দায়িত্ব দেয় বিজ্ঞ আদালত। সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মোঃ আব্দুল কাদের মামলাটি তদন্তর দায়িত্ব দেন খুলনা সিআইডি পুলিশ পরির্দশক শেখ শাহাজাহানকে।
দীর্ঘদিন মামলাটি তদন্তের পর সিআইডি পুলিশ প্রকৃত খুনিদের খুজে বের করে তাদের নিরপেক্ষতা আবারও প্রমান করলেন এমন দাবি জয়নগর ফকিরডাঙ্গা এলাকার সমাজসেবক হরষিত রায়ের।
মামলার বাদি আব্দুর রাজ্জাক সানা বলেন এক জনপ্রতিনিধির কথামত তিনি ১৩ জনের নামে মামলা করেছিলেন। এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি নিজেকে অক্ষর জ্ঞানহীন দাবি করে বলেন এখন বয়স হয়েছে লাঠি ভর দিয়ে চলতে হয় আর কিছু বলতে পারবে না বলে ফোন কেটে দেন।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা খুলনা সিআইডি পুলিশ পরির্দশক শেখ শাহাজাহান হোসেন এ প্রতিবেদককে জানান কামারগোদা নদী নিয়ে বিরোধের জের ধরে নাসিরকে হত্যা করা হয়েছে। মামলার প্রধান স্বাক্ষী হাতেম সানাসহ উক্ত চারজনকে গ্রেফতারের পর তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এসব চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছেন বলে তিনি জানান। তাদের স্বীকার উক্তি মোতাবেক মামলার অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে এবং গ্রেফতারকৃতদের আদালতে সোর্পদ করে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদনও করেছেন বলে তিনি জানান।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
আইটি উপদেষ্টা
সোহেল আসলাম
উপদেষ্টামন্ডলী
মোঃ ইমরান হোসেন চৌধুরী
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2020. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close