১২ আগস্ট ২০২০, বুধবার ০৩:১১:৫২ এএম
সর্বশেষ:

১১ জুলাই ২০২০ ১১:৪৯:৪৭ পিএম শনিবার     Print this E-mail this

এবার অনলাইনে কোরবানির পশু বেচাকেনা জমবে ভালো

সুজন সারোয়ার, টঙ্গী প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 এবার অনলাইনে কোরবানির পশু বেচাকেনা জমবে ভালো

অনলাইনে কোরবানির পশু বেচাকেনা অনেক আগে থেকেই শুরু হলেও এবার অনলাইনে বেচাকেনা জমবে ভালো। কারণ করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) বদলে দিয়েছে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। সচেতন মানুষ এখন ভিড় এড়িয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই দৈনন্দিন কাজকর্ম করছেন। ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে মানুষ এখন অফিস, ব্যবসা-বাণিজ্য, নিত্যপণ্য কেনাকাটা, শিক্ষা-স্বাস্থ্য সবকিছুতেই ব্যবহার করছেন অনলাইন প্লাটফর্ম। গাজীপুরে বিভিন্ন খামারীর মালিকরা গরু মোটা-তাজা করে এবারের ঈদে অনলাইনে গরু বিক্রয়ের জন্য প্রস্তুত করেছেন।
গাজীপুর টঙ্গী পশ্চিম থানা এলাকায় মন্ডল এগ্রো ফার্ম এর মালিক রুবেল মন্ডল প্রতিবেদককে জানান, আমার খামারের দুইটি গরু অত্যন্ত সযত্মে লালন-পালন করে এবারের কোরবানীতে বিক্রয়ের জন্য প্রস্তুত করেছি। আমার একটি গরুর নাম ধলাই। ইহার মূল্য এযাবতকাল বিভিন্ন ক্রেতারা ১০ লক্ষ টাকা দরদাম করতেছে। আশা করি বাজার ভালো হলে আমি আরো বেশি দামে বিক্রি করতে পারবো।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গরু-ছাগলসহ কোরবানির পশু বিক্রির জন্য প্রস্তুত রয়েছেন অসংখ্য কৃষক, খামারি ও ব্যবসায়ী। গ্রামের অনেক খামারিও এখন অনলাইনে বেচাকেনা করছেন। অনেকে ফেসবুক পেজের মাধ্যমে গ্রুপ করে প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন। অপেক্ষা এখন ক্রেতাদের জন্য।
বিভিন্ন খামারির ব্যক্তিগত উদ্যোগে চলছে ই-হাট, কোরবানির গরুর মেলা। আবার ই-কমার্স সাইটগুলো, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের সহযোগিতায় প্রস্তুতি নিচ্ছেন ডিজিটাল হাট করার। যদিও বিগত কয়েক বছর ধরেই অন্যান্য পণ্যের পাশপাশি কোরবানির পশু কেনাবেচা হচ্ছে। বিক্রির সংখ্যা ও পরিমাণ প্রতিবছরই বাড়ছে আগের বছরের তুলনায়। তবে এবার এই চিত্র ব্যাপক পরিবর্তনের আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা। বিশেষ করে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি আশা জোগাচ্ছে কৃষক, খামারি ও অনলাইন প্ল্যাটফর্মগুলোকে।
‘এবারের ঈদে পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে হাট বসানোর চিন্তা না করে অনলাইন হাটটাকে আরও বেশি কীভাবে শক্তিশালী করা যায় সেটা নিয়ে ভাবা উচিত। এজন্য সরকার হেল্পলাইন দিয়ে সহযোগিতা করতে পারে। অর্থাৎ অনলাইন ব্যবসার নামে কেউ যেন কোনো গরু ক্রেতার টাকা মেরে দিতে না পারে বা ঠকাতে না পারে সেটা দেখভাল করা। এ বিষয়য়ে প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের একটা হটলাইন থাকতে পারে। এর মাধ্যমে তারাও তদারকি করতে পারে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
আইটি উপদেষ্টা
সোহেল আসলাম
উপদেষ্টামন্ডলী
মোঃ ইমরান হোসেন চৌধুরী
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2020. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close