০৪ ডিসেম্বর ২০২০, শুক্রবার ১০:৩৮:৪১ পিএম
সর্বশেষ:
যান্ত্রিক ত্রুটির কারনে গত কয়েক দিন নিউজ আপলোড করা সম্ভব হয়নি। সাময়িক সমস্যার জন্য আমরা আন্তরিক ভাবে দুঃখিত- সম্পাদক           

২৩ অক্টোবর ২০২০ ০৩:০৭:০৭ পিএম শুক্রবার     Print this E-mail this

ধুনট পৌরসভা নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ

ইমরান হোসেন ইমন, ধুনট (বগুড়া) থেকে
বাংলার চোখ
 ধুনট পৌরসভা নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ

নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে বগুড়ার ধুনট পৌরসভার মেয়র ও কাউন্সিলর পদে নির্বাচন করতে সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাপ বেড়েই চলেছে। সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে অনেকেই ইতিমধ্যে নিজ নিজ সমর্থক ও ভোটারদের সাথে যোগাযোগ বৃদ্ধি করে নিজেদের অবস্থান তৈরী করছেন। প্রতিটি ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে ছুটে চলছেন প্রার্থীরা।

অনেকে দলীয় মনোনয়ন পেতে চালিয়ে যাচ্ছেন জোর লবিং ও তদবির। নির্বাচনকে ঘিরে পৌর এলাকার খাবারের হোটেল ও চায়ের দোকানগুলোতে ভোটাদের মধ্যেও চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা ও আলোচনা সমালোচনার ঝড়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ২০২০ সালের ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত ধুনট পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে যাচ্ছেন ধুনট পৌরসভার একটানা দ্বিতীয় বারের নির্বাচিত মেয়র এজিএম বাদশাহ্। তিনি দীর্ঘদিন ধুনট উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০১১ সালে ধুনট পৌরসভার মেয়র পদে নির্বাচনে অংশ নিয়ে বিএনপির প্রার্থীকে পরাজিত করে মেয়র নির্বাচিত হন তিনি। ২০১৫ সালে ধুনট পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে পদত্যাগ করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে বিপুল ভোটে আবারও মেয়র নির্বাচিত হন।

এছাড়াও মেয়র পদে নির্বাচন করতে এবং দলীয় মনোনয়ন পেতে মাঠ গোছাতে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন ধুনট উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক টিআইএম নূরুন্নবী তারিক। তিনি দীর্ঘ সময় ধরে ধুনট উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছেন। ২০০৯ সালে ধুনট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হন তিনি। এবার তিনি ধুনট পৌরসভার মেয়র পদে নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন।

নূরুন্নবী তারিক জানান, দলীয় মনোনয়ন পেলে নির্বাচনে অংশ নিবেন এবং বিজয়ী হওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

তাছাড়াও আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশা করেছেন এমপি হাবিবর রহমানের ছোট ভাই ধুনট উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি রেজাউল করিম রেজা ও ধুনট উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফুল ইসলাম খান।

শরিফুল ইসলাম খান ২০১৫ সালে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন নিয়ে ধুনট পৌরসভার মেয়র পদে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। কিন্তু স্বতন্ত্র প্রার্থী এজিএম বাদশাহ্র কাছে পরাজিত হন তিনি। এবারও তিনি দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন।

ধুনট উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রেজাউল করিম রেজা বলেন, দীর্ঘদিন থেকে রাজনীতিতে সক্রিয় রয়েছি। দলের জন্য কাজ করার পাশাপাশি এলাকার মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। সুখে দুখে তাদের পাশে রয়েছি। এ জন্য জনগণ তাকেই সমর্থন ও ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। নির্বাচিত হলে তিনি পৌর এলাকার সার্বিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারবেন বলেও জানান।

অপরদিকে ধুনট উপজেলায় বিএনপির সাংগঠনিক অবস্থান দূর্বল হলেও আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে অংশ নিবে দলটি। তবে সম্প্রতি ধুনট উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়ন পরষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে কোন প্রার্থী দিতে পারেনি বিএনপি। তবে আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থী দিতে দলীয় মনোনয়ন ফরম বিতরণ করছে বিএনপি। ইতিমধ্যেই দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীরা ফরম উত্তোলন করে জমাও দিয়েছেন দলীয় হাই কমামন্ডদের কাছে।

বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন, ধুনট পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র আলিমুদ্দিন হারুন মন্ডল, ধুনট পৌর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ন আহবায়ক আরিফ খান, ধুনট পৌর ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক নিয়মুল আলম তালুকদার, স্বেচ্ছাসেবকদল নেতা তুহিন ও যুবদল নেতা সাবেক কাউন্সিলর লিটন আহমেদ।
মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে আলিমুদ্দিন হারুন মন্ডল ২০০৩ সালে ধুনট পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হন। এরপর ২০১১ সালে এবং ২০১৫ সালে দলীয় মনোনয়ন নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়ে পরাজিত হন তিনি।

তারপরও হাল ছাড়েননি প্রাবীন বিএনপি নেতা আলিম মুদ্দিন হারুন মন্ডল। তিনি তার হারনো সমর্থন ফিরে পেতে নেতাকর্মী ও ভোটারের নিয়ে মাঠ গোছাতে ব্যস্ত রয়েছেন।

আরেক তরুন বিএনপি নেতা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আরিফ খান জানান, তার প্রতি দল ও জনগণের সমর্থন এবং ভালবাসা রয়েছে। সেক্ষেত্রে পৌরসভা নির্বাচনে দল তাকেই মনোনয়ন দিবেন বলে তিনি প্রত্যাশা করেন। দল মনোনয়ন দিলে নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ধুনট উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোকাদ্দেছ আলী জানান, ডিসেম্বরের মধ্যেই ধুনট পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ধুনট পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের মোট ভোটার সংখ্যা ১১ হাজার ৬৯১ জন। তন্মধ্যে পুরুষ ভোট ৫ হাজার ৭০২ জন এবং মহিলা ভোটার ৫ হাজার ৯৮৯ জন।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
আইটি উপদেষ্টা
সোহেল আসলাম
উপদেষ্টামন্ডলী
মোঃ ইমরান হোসেন চৌধুরী
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2020. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close