৩০ নভেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার ০৯:২০:৪৯ পিএম
সর্বশেষ:

১৭ অক্টোবর ২০২১ ০৬:১৫:০৪ পিএম রবিবার     Print this E-mail this

রাজধানীর খিলক্ষেতে চিকিৎসকের লাশ উদ্ধার

আমিনুল ইসলাম বাবু স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বাংলার চোখ
 রাজধানীর খিলক্ষেতে চিকিৎসকের লাশ উদ্ধার

রাজধানীর খিলক্ষেতের নিকুঞ্জ-২ এলাকার একটি বাসা থেকে এক চিকিৎসকের মরাদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।তার নাম ডাঃ জয়দেব কুমারদাস(২৫)

গতকাল শনিবার রাত নয়টা তার লাশ উদ্ধার করা হয়।
পুলিশ ও পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত বছরে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিএস পাশ করে ইন্টার্ন শেষ করেছে জয়দেব। বর্তমানে নিকুঞ্জ-২ রোড-১৫ ফ্লাট-৮ বাসা-৮ থাকতেন।এফসিপিএস পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। ৪২তম বিসিএস পরীক্ষায় দিয়েছিল সে অকৃতকার্য হয়েছে।

খিলক্ষেত থানার উপ-পরিদর্শক এসআই রাসেল পারভেজ বলেন, উক্ত বাসায় দুর্গন্ধ পেয়ে স্থানীয়রা সংবাদ দিলে
থেকে খবর পেয়ে উক্ত বাসায় শনিবার রাতে দরজার লক ভেঙ্গে খাটের উপর থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে আইনি প্রক্রিয়া শেষে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ বলা যাবে।

পুলিশের এসআই সুরতহাল প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে বাম হাতে উল্টাপাশে ক্যানোলার মধ্যে ইনজেকশনের সিরিঞ্জ লাগানো ছিল।
সেখান থেকে যে আলামত সংগ্রহ করেছে বাম হাতে লাগানো ছিল সিরিজ, সুইসাইড নোট খাতা ও লাল কলম, তিনটি সিরিজে থাকা তরল পদার্থ দুটি মোবাইল ও পাঁচটি KCL ইনজেকশনের খালি প্যাকেট।

ক্যাম্পাসের বড় ভাই রাজিব বৈষম্য জানান জয়দেব খুবই ভালো ছেলে ছিল সে সব সময় তাদের ধর্মীয় বিষয় নিয়ে মগ্ন থাকতো গত ২৩ সেপ্টেম্বর তারিখে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন অল অর নাই
একটি সূত্রে জানা গেছে সুসাইড নোটে লেখা ছিল আমার আত্মহত্যার জন্য কেউ দায়ী নয় আমার আত্মহত্যা ছাড়া দ্বিতীয় কোন পথ ছিল না। বেচে থেকে লাভ কি।
মৃতের কুড়িল এর পূর্বের রুমমেট চিকিৎসক প্রান্ত মজুমদার জানায় গত১৪ তারিখে নবশী উপলক্ষে খিচুড়ি রান্না করেছিলাম সেখানে দুপুরের খাবার খেয়ে কিছুটা খাবার সে নিকুঞ্জের বাসায় নিয়ে যায়। পরে ১৫ তারিখ থেকে তাকে ফোন করলেও ফোনের কোন রেসপন্স পাচ্ছিলাম না গতকাল রাতে খবর পাই সে মারা গেছে।

নিহতের, মৃতের খালাতো ভাই দয়াল চন্দ্র জানান, তার খালাতো ভাই জয়দেব এবার পূজায় বাড়িতে যায়নি নিজের বাসাতেই ছিলেন গতকাল রাতে পুলিশের মাধ্যমে খবর পায় যে সে সুসাইড করেছে পরে সেখানে গিয়ে মৃত অবস্থায় দেখতে পায়।
তবে মৃত্যুর কারণ সম্বন্ধে কোন কিছু বলতে পারিনি।
পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে তার গ্রামের বাড়ি দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর থানার দক্ষিণ সালন্দার কুমার পাড়া গ্রামের কৃষক দিলীপ চন্দ্র দাস ও মা মিনা রানী দাসের ছেলে।
দুই ভাই এক বোনের মধ্যে সে ছিল ছোট।

 

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
আইটি উপদেষ্টা
সোহেল আসলাম
উপদেষ্টামন্ডলী
মোঃ ইমরান হোসেন চৌধুরী
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2021. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close