১৯ নভেম্বর ২০১৭, রবিবার ০১:২৬:২২ এএম
সর্বশেষ:

১৩ নভেম্বর ২০১৭ ০৭:৩২:৪৯ পিএম সোমবার     Print this E-mail this

পাথরঘাটা ডিগ্রী কলেজে আতংক।। অধিকাংশ শিক্ষার্থীরা ক্লাসে অনুপস্থিত

খোকন কর্মকার পাথরঘাটা প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 পাথরঘাটা ডিগ্রী কলেজে আতংক।। অধিকাংশ শিক্ষার্থীরা ক্লাসে অনুপস্থিত

বরগুনার পাথরঘাটায় ছাত্রলীগের নেতারা তরুনীকে ধর্ষন করে হত্যা করায় অভিযোগে ৫ জন কে আটকের পর ওই কলেজে আতংক বিরাজ করছে। গত ২ দিনে কলেজের ১৬শ শিক্ষার্থীদের মধ্যে ১ শত থেকে ১৫০ জন শিক্ষার্থী উপস্থিত হয়েছেন।আটক সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের অনুসারিরা উপস্থিতি শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি দেখানোর কারনে তারাও ক্লাস থেকে পালিয়ে গেছে। পাথরঘাটা ডিগ্রি কলেজের সহকারি অধ্যাক্ষ মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন সাংবাদিকদের কাছে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, গত ৫ বছর ধরে কলেজে দানিয়াল ও সাদ্দামের কর্মকান্ডে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা সব সময় আতংকে ছিলাম। এমনকি বিভিন্ন সময় শিক্ষকরাও লাঞ্চিত হয়েছে। অনেক সময় ব্যাবস্থা নিতে গিয়ে তার দলীয় নেতাদের চাপে আমরা দানিয়াল ও সাদ্দামের কাছে ক্ষমা পর্যন্ত চাইতে হয়েছে। এ কারণে কলেজের সকল শিক্ষকরা মুখ বন্ধ করে তাদের অন্যায় অত্যাচার সহয্য করেছি। এখন যে মামলায় তারা আটক হয়েছে। তারা যদি সত্যিকার দোষী হয়ে থাকে তাহলে আমরা তাদের বিচার দাবী করছি।

চলতি বছরের ১০ আগষ্ট পাথরঘাটা ডিগ্রি কলেজের পুকুরে অজ্ঞাত পরিচয়ে একটি মেয়ের হাত পা বাধা অবস্থায় লাশ পাওয়া যায়। ওই লাশকে কেন্দ্র করে পুলিশ বিভিন্ন ভাবে তদন্দ শুরু করে। এব্যাপারে পাথরঘাটা কলেজের নৈশ প্রহরী জাহাঙ্গীরসহ কয়েক জনের মোবাইল ট্রাকিং (আড়ি পাতা) করা হয়। পরে হত্যাকারিরা জাহাঙ্গীরের সাথে লাশের বিষয় নিয়ে কথা বল্লে বিষয়টি পুলিশের কাছে ধরা পরে। এব্যাপারে শুক্রবার বরগুনা ডিবি পুলিশ জাহাঙ্গীরকে আটক করে। আদালতে জবানবন্দিতে জাহাঙ্গীর যাদের নাম প্রকাশ করেছে তাদের মধ্যে শনিবার রাতে ছাত্রলীগের মাহমুদ ও রায়হান নামের দু’জনকে আটক করে গোয়েন্দা পুলিশ। এদের মধ্যে রায়হানের তথ্যের ভিত্তিতে পাথরঘাটা ডিগ্রি কলেজের ছাত্রলীগের সভাপতি রুহি আনান দানিয়াল ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দামকে আটক করা হয়।
 
পুলিশ সুত্রে জানা যায়, ২০০৫ সাল থেকে পাথরঘাটা উপজেলায় প্রতি বছর ২ থেকে ৩টি অজ্ঞাত লাশ পাওয়া যেত। এ পর্যন্ত পাথরঘাটা থানার পুলিশ পৌর শহরের বিভিন্ন জায়গা থেকে ৭ বছরে ১০টি অজ্ঞাত লাশ উদ্ধার করেছে। যার কোন হত্যাকারি ধরা পরেনি এবং লাশ গুলির কোন ওয়ারিশ পাওয়া যায়নী ।

পাথরঘাটা থানার ওসি এসএম জিয়াউল হক জানিয়েছেন,আমরা যাদের আটক করেছি তারা কলেজের পুকুরে পাওয়া অজ্ঞাত লাশের হত্যাকারি আমরা নিশ্চিত হয়ে তাদেরকে আটক করেছি। এবং আটক মাহামুদ ও জাহাঙ্গীর পাথরঘাটা সিনিয়র জুডিশিয়ার মেজিষ্ট্রেট মোঃ মঞ্জুরুল ইসলামে কাছে ১৬৪ ধারা জবান বন্দিতে শিকারউক্তি দিয়েছেন। তবে এখন পর্যন্ত উদ্ধার হওয়া অজ্ঞাত লাশের পরিচয় পাওয়া যায়নী।এ ব্যাপারে আটক রায়হানকে ৫ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে। আগামী রোববার রিমান্ড আবেদনের শুনানী হবে। আটক দানিয়াল ও সাদ্দামকে নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
কার্যালয়
চৌধুরী কমপ্লেক্স, ৫০/এফ, ইনার সার্কুলার (ভিআইপি) রোড, নয়াপল্টন, ঢাকা-১০০০।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-৭১২৬৩৬৯
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2017. All rights reserved by Banglar Chokh
Developed by eMythMakers.com
Close