১৯ নভেম্বর ২০১৭, রবিবার ০১:০৯:৫১ এএম
সর্বশেষ:

১৪ নভেম্বর ২০১৭ ১১:৪৮:৫৯ পিএম মঙ্গলবার     Print this E-mail this

সিদ্ধিরগঞ্জে অবৈধ রিক্সা গ্যারেজসহ পৃথক দু’টি স্থানে আগুন

সিদ্ধিরগঞ্জ অফিস
বাংলার চোখ
 সিদ্ধিরগঞ্জে অবৈধ রিক্সা গ্যারেজসহ পৃথক দু’টি স্থানে আগুন

সিদ্ধিরগঞ্জে অবৈদ রিক্সার গ্যারেজসহ পৃথক দু’টি স্থানে আগুন, ৩৫’লাখ টাকার ক্ষয়-ক্ষতি। গত সোমবার রাতে নাসিক ৩নং ওয়ার্ড নয়াআটি মুক্তিনগড় এলাকায় ও নাসিক ৭ নং ওয়ার্ডে মাদকের আস্তানা হিসেবে পরিচিত ঘনবসতি আবাসিক এলাকায় গড়ে তুলা ব্যাটারী চালিত অটোরিকশা ও ইজিবাইকের অবৈধ গ্যারেজে ভয়াবহ আগুনের ঘটসা ঘটে। এতে নাসিক ৩নং ওয়ার্ড নয়াআটি মুক্তিনগড় এলাকার মনির হোসেনের ৬’টি ও নূরমোহাম্মেদের ৫’টি বসত ঘরে আগুন লাগে, ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে ১০’লাখ টাকা। অপরদিকে নাসিক ৭নং ওয়ার্ড কদমতলী এলাকায় অবৈদ রিক্সার গ্যারেজে ৪০’টি অটোরিকশা ও ৩’টি ইজিবাইকসহ গ্যারেজটি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে কমপক্ষে ২৫’লাখ টাকা। অবৈধ ভাবে লাগানো বিদ্যুতের শটসার্কিট থেকে সোমবার দিবাগত গভীর রাতে এ আগুনের ঘটনা ঘটে।
জানা গেছে, নাসিক ৭ নং ওয়ার্ডের কদমতলী এলাকায় বর্ণমালা কিন্ডার গার্টেন স্কুল সংলগ্ন মোঃ স্বপন ও জুয়েল মাষ্টারের মালিকানাধিন ব্যাটারী চালিত অটোরিকশা ও ইজিবাইকের গ্যারেছে সোমবার দিবাগত রাত ৩’টায় আগুন লাগে। সিদ্ধিরগঞ্জ ডিপিডিসির অসাধু কর্মকর্তাদের ম্যানেজ করে গ্যারেজটিতে অবৈধ ভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়ে অটোরিকশা ও ইজিবাইকের ব্যাটারী চার্জ দেওয়া হয়। অবৈধ ভাবে লাগানো বিদ্যুতের শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। খবর পেয়ে আদমজী ফায়ার সার্ভিসের দু’টি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় পৌনে ১’ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রন করেন। কিন্তু তার আগেই পুড়ে ছাই হয়ে যায় গ্যারেজে থাকা ৪০’টি আটোরিকশা ও ৩’টি ইজিবাইক। ঘর ও গাড়িসহ কমপক্ষে ২৫’লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করছে মালিক পক্ষ।
স্থানীয়দের অভিযোগ, ঘনবসতি আবাসিক এলাকায় অবৈধ ভাবে একই জায়গায় গড়ে তুলা হয়েছে ৫’টি গ্যারেজ। এসব গ্যারেজে প্রতিরাতেই মাদক সেবনের আসর বসে। এখানে মৃত ওয়াহাব খার ছেলে সুমন খানের কাছ থেকে জমি ভাড়া নিয়ে ৫’টি গ্যারেজ গড়ে তুলা হয়েছে। আগুনে পুরে ক্ষতিগ্রস্থ গ্যারেজটির মালিক স্বপন ও জুয়েল মাষ্টার। একই সাথে মোফাজ্জল, মান্নান, কাঞ্চন ও সুলতানের একটি করে গ্যারেজ রয়েছে। যথাসময়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে হাজির হওয়ায় অন্য ৪’টি গ্যারেজ ও আশপাশের ঘর-বাড়ী রক্ষা পেয়েছে।
আশপাশের লোকজন জানায়, জমির মালিক মৃত ওয়াহাব খার সন্ত্রাসী ছেলে সুমন খানের সহযোগীতায় প্রত্যেকটি গ্যারেছে মাদক সেবনের আসর বসে প্রতিরাতে। গ্যারেজের আড়ালে এখানে মাদক ব্যবসাও চলে। সন্ত্রাসী সুমন খানের ভয়ে কেহ প্রতিবাদ করার সাহস পায়না। এসব অবৈধ গ্যারেজে মাদক ব্যবসার বিষয় থানা পুলিশকে অবগত করালেও কোন প্রতিকার হচ্ছে না বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন স্থানীয়রা। অপর দিকে একই রাত ১২’টায় নাসিক ৩ নং ওয়ার্ডের নয়াআটি মুক্তিনগর হকসুপার মার্কেট সংলগ্ন মোঃ নূর মোহাম্মদ ও মনিরের বাড়ীতে আগুন লাগে। খবর পেয়ে ডেমরা ফায়ার সার্ভিসের ১ টি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রন করেন। আগুনে দু,টি বাড়ীর ১১ টি কক্ষ পুড়ে যায়। এতে প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করছেন বাড়ীর মলিকরা।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
কার্যালয়
চৌধুরী কমপ্লেক্স, ৫০/এফ, ইনার সার্কুলার (ভিআইপি) রোড, নয়াপল্টন, ঢাকা-১০০০।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-৭১২৬৩৬৯
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2017. All rights reserved by Banglar Chokh
Developed by eMythMakers.com
Close