banglarchokh Logo

কলাপাড়ায় গভীর রাতে এক বাড়ি মুখোশধারীর হামলা

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 কলাপাড়ায় গভীর রাতে এক বাড়ি মুখোশধারীর হামলা

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় গভীর রাতে সিঁদ কেটে ঘরে ঢুকে গৃহকর্তার হাত-পা বেঁেধ স্বর্নংলঙ্কার সহ নাগদ টাকা নিয়ে গেছে একদল মুখোশধারী। এ সময় গৃহকর্তা সালাম মুসুল্লী (৭০)কে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে। তাকে রবিবার সকালে স্বজনরা উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করেছে। খবর শুনে পুলিশ কর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। শনিবার গভীর রাতে উপজেলার মহিপুর থানার বিপেনপুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে।     
মুখোশধারীর হামলায় আহত সালাম মুসুল্লী জানান, সিঁদ কেটে ঘরে ঢুকে ৭-৮ জন মুখোশধারী ঘরের আলমিরা ভাঙ্গতে শুরু করে। এ সময় তিনি বাঁধা দিলে তারা দুই পায়ে এলোপাতাড়ি কোপ দেয়। সে ডাকচিৎকার দিলে মুখে গামছা গুঁজে তাকে ও তার স্ত্রী মাসুমা বেগমের হাত-পা বেঁধে ফেলে। প্রায় ঘন্টাব্যাপী লুটপাট শেষে নগদ তিন লাখ ৩৮ হাজার টাকা ও স্ত্রীর কানের স্বর্ণালংকার নিয়ে চলে যায় মুখোশধারীরা।
আহত সালাম মুসুল্লীর মেয়ে মেহেরুন্নেছা জানান, রাতে তার মা ফোন করে কোন রকম বলেছিল বাড়িতে ডাকাত পরেছে। এর পর ওই রাতে থানায় খবর দিয়ে বাড়িতে পুলিশ পাঠাই।
মহিপুর থানার ওসি মো.সোহেল আহমেদ জানান, তারা খবর পেয়ে তিঁনিসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় মামলা হয়নি। তারা জড়িতদের সনাক্ত করে গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছেন বলে তিনি সাংবাদিকদের জানান।
উল্লেখ্য,এর আগেও মহিপুর থানার মহিপুর সদর ইউনিয়নের সেরাজপুর গ্রামের গভীর রাতে একই স্টাইলে গ্রিল কেটে খোকন হাওলাদারের ঘরের প্রবেশ করে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে।


সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কপিরাইট © 2019 বাংলারচোখ.কম কর্তৃক সর্ব স্বত্ব ® সংরক্ষিত। Developed by eMythMakers.com