banglarchokh Logo

ভুয়া নিবন্ধন সনদে চাকরি, এনটিআরসিএ-র যাচাইয়ে আট শিক্ষক ধরা!

বাংলার চোখ ডেস্ক
বাংলার চোখ
 ভুয়া নিবন্ধন সনদে চাকরি, এনটিআরসিএ-র যাচাইয়ে আট শিক্ষক ধরা!

বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধনের সনদ জালিয়াতির প্রমাণ পাওয়ায় আট শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা করার নির্দেশ দিয়েছে এনটিআরসিএ। শিক্ষকরা সবাই রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার সরকারি শাহ্ আব্দুর রউফ কলেজে কর্মরত আছেন। গত ২৪ সেপ্টেম্বর বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যায়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) এই নির্দেশ দেয়।

সনদ যাচাই প্রতিবেদনের পর ভুয়া সনদধারীদের বিরুদ্ধে মামলারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

শিক্ষক নিবন্ধন সনদ যাচাইক্রমে রংপুরের যে আটজন কলেজ শিক্ষকের নাম উঠে আসে তারা হলেন- সমাজ বিজ্ঞানের প্রভাষক সুরাইয়া বেগম, ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রভাষক জিল্লুর রহমান, প্রভাষক হুরুন্নাহার খাতুন, রাষ্ট্রবিজ্ঞানের প্রভাষক হাসিনা আক্তার, রাষ্ট্রবিজ্ঞানের প্রভাষক শহীদ বদরুদ্দোজা, ইতিহাসের বিভাগের প্রভাষক ফারহানা খাতুন, ইতিহাসের বিভাগের প্রভাষক আয়েশা প্রধান দিপ্তী ও ইতিহাসের বিভাগের প্রভাষক কেয়া শারমিন।

আদেশে বলা হয়, ‘সনদধারী ব্যক্তিরা জালিয়াতির আশ্রয় নিয়েছেন মর্মে দালিলিকভাবে প্রমাণিত হয়েছে। সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে পীরগঞ্জ থানায় মামলা করে এনটিআরসিএ-কে অবহিত করতে আদেশে নির্দেশ দেওয়া হয়।’
জাল সনদধারীদের বিষয়ে এনটিআরসিএ আদেশে দেখা গেছে, কারও সনদ অন্যের সনদের নম্বর ব্যবহার করে জাল করা হয়েছে। আবার ফলফলের তালিকায় উত্তীর্ণ না থাকলেও পাসের সনদ তৈরি করা হয়েছে সংশ্লিষ্ট রেজিস্ট্রেশন ও রোল নম্বরের ভিত্তিতে।

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কপিরাইট © 2020 বাংলারচোখ.কম কর্তৃক সর্ব স্বত্ব ® সংরক্ষিত। Developed by eMythMakers.com