banglarchokh Logo

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হত্যা মামলায় পাঁচজনের যাবজ্জীবন

ইফতেয়ার রিফাত ব্রাহ্মণবাড়িয়া
বাংলার চোখ
 ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হত্যা মামলায় পাঁচজনের যাবজ্জীবন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত শওকত আলীর হত্যা মামলার রায় দিয়েছে আদালত। রায়ে পাঁচজনকে যাবজ্জীবন ও তিনজনকে এক বছরের সশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়।

বুধবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ সফিউল আজম এ রায় প্রদান করেন।

যাবজ্জীবন প্রাপ্ত আসামীরারা হলেন, উপজেলার সৈয়দটুলা ফকিরপাড়া গ্রামের মো: শফিকুর রহমান খন্দকার (শাফি), মো: মোর্শেদ খন্দকার, মো:সাহেদ আলম খন্দকার, আব্দুল হাই, মোবারক। এর মধ্যে মো: মোর্শেদ খন্দকার ও মোবারক পলাতক রয়েছেন।

রায়ে এক বছর করে সশ্রম কারাদন্ড প্রাপ্তরা হলেন, হেলিম মিয়া, আবুল বাদশা, মামুন মিয়া। এর মধ্য আবুল বাদশা পলাতক রয়েছেন।

আদালত ও মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ২০১৪ সালের ১৩ আগস্ট রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরাইল উপজেলার সৈয়দটুলা জাহাঙ্গীরপাড়া গ্রামে জমি বিরোধের জের ধরে বাড়ির পাশেই আসামীদের হাতে খুন হয় শওকত আলী। পরে তার আব্দুল বাতেন বাদী হয়ে নয়জনকে আসামী করে সরাইল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার বাদী নিহতের ভাই আব্দুল বাতেন বলেন, এ রায়ে আমরা সন্তুষ্ট না। আমরা উচ্চ আদালতে আপিল করব।

মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবি অ্যাডভোকেট বশির আহমেদ বলেন, এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড। আমরা আশা করেছিলাম সব্বোর্চ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড হবে। যাবজ্জীবন রায়ে আমরা হতাশ। এ বিষয়ে আমরা উচ্চ আদালতে আপিল করব।
উল্লেখ্য, এই মামলার ৯ জন আসামীর মধ্যে আবুল কাশেম নামের এক আসামী ৩ বছর আগেই মারা গেছে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কপিরাইট © 2021 বাংলারচোখ.কম কর্তৃক সর্ব স্বত্ব ® সংরক্ষিত। Developed by eMythMakers.com