Banglar Chokh | বাংলার চোখ

নাইক্ষ্যংছড়িতে ইউএনও’র হস্তেক্ষেপে শিক্ষার্থীর বাল্য বিয়ে বন্ধ: ১০হাজার টাকা অথদন্ড  

জাহাঙ্গীর আলম কাজল,নাইক্ষংছড়ি (বান্দরাবন) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৯:১৩, ২৬ নভেম্বর ২০২২

নাইক্ষ্যংছড়িতে ইউএনও’র হস্তেক্ষেপে শিক্ষার্থীর বাল্য বিয়ে বন্ধ: ১০হাজার টাকা অথদন্ড  

নিজস্ব ছবি

নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার রোমেন শর্মা-এঁর হস্তেক্ষেপে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেল  দশম শ্রেণীতে পড়ুয়া অপ্রাপ্ত বয়স্ক এক মাদ্রাসার শিক্ষার্থী।
অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েকে বিবাহ দেওয়া ও করানোর  লক্ষে বাল্যবিবাহের কাজ পরিচালনা করার অপরাধে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইনে কনের মামা ওসমানকে ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী অফিসার রোমেন শর্মা।
শনিবার (২৬ নভেম্বর) দুপুরে উপজেলার আশারতলী ঐ শিক্ষার্থী নানার বাড়িতে  গিয়ে
এবিবাবহ বন্ধ করার পরে ভ্রম্যামান আদালত পরিচালনা করে অভিভাবক কে ১০হাজার টাকা অর্থদন্ড  করা হয়। 

সুমাইয়া বিনতে দিলওয়ারা রামু আল গিফারী আদর্শ দাখিল মাদ্রাসার দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী ও নাইক্ষ্যংছড়ি আশারতলী গ্রামের ৮নং ওয়ার্ড মৃত্যু  ফরিদুল আলমের মেয়ে। 
নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার রোমেল শর্মা বলেন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী সুমাইয়ার নানার বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে মেয়ের বয়স ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালত  পরিচালনা করে মেয়ের মামাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় এবং ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত অঙ্গীকারনামা নিয়ে বিয়েটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। আগামীতে ও এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানা গেছে,
এসময় থানা পুলিশের একটি টিম ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়