২৭ জুলাই ২০২১, মঙ্গলবার ০৮:৪৭:২৯ পিএম
সর্বশেষ:

০৭ মার্চ ২০১৬ ০৫:৪৬:৪৫ পিএম সোমবার     Print this E-mail this

আত্মীয়-স্বজন এখন আমার সঙ্গে কথা বলেন না : সানি লিওন

ডেস্ক রিপোর্ট
বাংলার চোখ
 আত্মীয়-স্বজন এখন আমার সঙ্গে কথা বলেন না : সানি লিওন

একবিংশ শতাব্দীতে দাঁড়িয়েও বিভিন্ন পেশার ক্ষেত্রের বাধার সম্মুখীন হতে হয় মেয়েদের। যার প্রকৃষ্ট উদাহরণ বলিউডের গ্ল্যাম গার্ল সানি লিওন। পর্ন স্টার থেকে পেশাদার অভিনেত্রী হওয়ার সুদীর্ঘ পথটায় তাঁকে পেরোতে হয়েছে নানা চড়াই-উতরাই।

বিদ্রূপ, উপহাস, অবজ্ঞা, অবহেলা, অপমান - কোনওকিছুই চিড় ধরাতে পারেনি তাঁর এগিয়ে চলার অটুট মনোবলে। সেজন্যই আজ তিনি বিভিন্ন মহলে প্রশংসিত। আন্তর্জাতিক নারী দিবসের প্রাক্কালে এক কথোপকথনে জানা গেল তাঁর জীবনসংগ্রামের কথা।

প্রশ্ন: বিশ্বের বেশিরভাগ পেশাতেই বাধার মুখে পড়তে হয় মহিলাদের। এটা কি সত্যি?

সানি লিওন: আমার জীবন সংগ্রামে আমি কখনও লিঙ্গভেদে বিশ্বাস করিনি। আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি, আপনি যদি দৃঢ় আর স্মার্ট হন, নিজের কাজটা ঠিক কী সেটা জানেন, আর জীবনে যা করছেন তা খুশি মনে করেন, তবে আপনি নিজেই নিজের এমপ্লয়ারকে বেছে নিতে পারবেন। হ্যাঁ, ভারতে ঐতিহ্যগত কিছু কারণে মহিলাদের উন্নতির শিখরে চড়ার সিঁড়িতে উঠতে গেলে কঠোর পরিশ্রম করতে হয়।

প্রশ্ন: ৫ বছর হল আপনি ভারতে রয়েছেন। আমেরিকার তুলনায় এখানে মহিলাদের নিয়ে ধারণাটা কতটা আলাদা?

সানি লিওন: দুটি দেশের জীবনধারা সম্পূর্ণ আলাদা। তবে, অবশ্যই আমেরিকার মানসিকতা অনেক বেশি উদার। কোনও মহিলাকে বিকিনিতে দেখা যাওয়াটা কোনও বড় ব্যাপার নয়। কিন্তু এখানে সমুদ্র সৈকতে কোনও সুন্দরী মহিলাকে বিকিনি পরে দেখলে সবাই বলতে শুরু করবে...কী হচ্ছে এখানে! তবে, এই ঐতিহ্য ও মূল্যবোধই ভারতকে সবার মধ্যে অনন্য করে রেখেছে।

প্রশ্ন: আপনি কি মহিলা দিবস পালনে বিশ্বাস করেন?

সানি লিওন: আমার মনে হয় এসবের বদলে গুড হিউম্যান বিং ডে(ভালো মানুষের দিন) পালন করা উচিত। তবে, মহিলা হিসেবে এই দিন পালন ভালোই লাগে।

প্রশ্ন: আপনার স্বামী আপনাকে সাহসী বলেন...

সানি লিওন: আমার জীবনে এমন অনেক কিছুই ঘটেছে যা মানুষ জানে না। তবে, আমাদের প্রত্যেকেরই কিছু খারাপ দিন যায়। সেখান থেকে বেরিয়ে কীভাবে এগিয়ে যাব, সেটা নির্ভর করে নিজের ওপর। আমার আত্মীয়-স্বজন এখন আমার সঙ্গে কথা বলেন না। ওঁরা আমাকে একেবারে পছন্দ করে না, খুব খারাপ লাগে। বিগ বসের পর থেকে সবাই আমায় অবজ্ঞা করে। আমি তাঁদের কাছে গিয়েও দেখেছি, তাঁরা আমাকে ভালোভাবে নেন না। সারা ভারত আমাকে গ্রহণ করল, অথচ আমার সঙ্গে যাঁদের রক্তের সম্পর্ক, তাঁরা আমায় গ্রহণ করলেন না। তাঁরা আমায় একটা ফোন পর্যন্ত করেন না। অবশ্য, এটা তাঁদের ব্যক্তিগত ব্যাপার। আমি জানি, আমার প্রকৃত পরিবার কোনটা -আমার স্বামী, ভাই, ড্যানিয়েলের বাবা-মা আর বন্ধুবান্ধবরা। আমি আজ যা, তার জন্য যাঁরা আমায় ভালোবাসে, তাঁদের নিয়েই আমি খুব খুশি। সূত্র: এই সময়

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
আইটি উপদেষ্টা
সোহেল আসলাম
উপদেষ্টামন্ডলী
মোঃ ইমরান হোসেন চৌধুরী
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2021. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close