১৮ মে ২০২১, মঙ্গলবার ১১:৩০:০৪ এএম
সর্বশেষ:

১৯ এপ্রিল ২০২১ ০৮:৩৩:১৩ পিএম সোমবার     Print this E-mail this

নলডাঙ্গায় টিসিবির পণ্য কিনতে প্যাকেজ বিড়ম্বনায় ক্রেতারা

নলডাঙ্গা (নাটোর) প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 নলডাঙ্গায় টিসিবির পণ্য কিনতে প্যাকেজ বিড়ম্বনায় ক্রেতারা

রমজান উপলক্ষ্যে নাটোরের নলডাঙ্গায় নিত্যপণ্য বিক্রি শুরু করেছে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)।সপ্তাহে দুইদিন উপজেলার বিভিন্ন পয়েন্টে বিদেশী পেঁয়াজ,খেজুর-ছোলাসহ ছয়টি পণ্য বিক্রি করা হচ্ছে। তবে অভিযোগ উঠেছে, অধিকাংশ ডিলার টিসিবির পণ্য প্যাকেজ আকারে বিক্রি করছেন।এতে ক্রেতারা বিড়ম্বনায় পড়েছেন। যদিও টিসিবির পক্ষ থেকে এমন কোনো নিয়ম নেই বলে দাবি করা হচ্ছে।এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ আল মামুন জানিয়েছেন খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, নলডাঙ্গা উপজেলায় রমজান উপলক্ষ্যে টিসিবির পণ্য দিচ্ছে সরকার। চিনি, সয়াবিন তেল, মসুর ডাল, খেজুর, ছোলা ও পেঁয়াজ বিক্রি করা হচ্ছে।নলডাঙ্গা উপজেলার ডিলার মেসার্স মিজান ষ্টোর টিসিবির পণ্য প্যাকেজ আকারে বিক্রি করছেন।ডিলার মিজান জানান, ৬৭০ টাকা প্যাকেজে টিসিবির পণ্য বিক্রি করছি।

এতে দুই কেজি করে চিনি, সয়াবিন তেল, মসুর ডাল, ছোলা ও পেঁয়াজ ছিল। টিসিবি অফিস থেকে এভাবে বিক্রি করতে বলেছে বলে জানান তিনি। প্যাকেজ ছাড়া কেউ না নিলে তাকে দেওয়া হবে না। মামুন নামের এক ক্রেতা বলেন, তেল, চিনি ও ডাল প্রয়োজন।আমাদের এলাকায় দেশি পেঁয়াজ উৎপাদন হয় এজন্য কিন্তু পেঁয়াজের দরকার নেই। বাধ্য হয়ে বিদেশী বড় বড় সাইজের পচা পেঁয়াজও কিনতে হচ্ছে।

নিজেদের ব্যবসায়িক সুবিধায় ডিলাররা এভাবে ইচ্ছেমতো পণ্য বিক্রি করছেন। আর এতে ভোগান্তি পোহাচ্ছেন নিম্নআয়ের গ্রামের ক্রেতারা।আরেক নারী ক্রেতা জানান,আমরা গরীব মানুষ।আমার স্বামী দিনমুজুর।আমার পক্ষে প্যাকেজে ৬০০ থেকে ৮০০ টাকার পণ্য কেনা সম্ভব নয়।আমি তেল ও চিনি কিনতে চাই কিন্ত তারা আমাকে এইভাবে পণ্য দিতে চায়নি।তাই আমি খালি হাতে ফিরে যাচ্ছি।তাদের মত টিসিবির পণ্য কিনতে আসা প্রতিটি ক্রেতাই একই অভিযোগ ছিল।

এ কারনে টিসিবির পণ্য কিনতে ট্রাকের সামনে ভীড় থাকলেও কিনছেন না কেউ।সরকারি সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) পেঁয়াজের প্রতি কেজি দর মাত্র ২০ টাকা। এত কম দামেও টিসিবির পেঁয়াজ কিনতে ক্রেতাদের আগ্রহ নেই। কারণ, পেঁয়াজগুলোতে পচন ধরেছে। অন্যদিকে বাজারে দাম বেশ কমে গেছে।টিসিবির পরিবেশকেরা এখন নতুন কৌশল নিয়েছেন। ক্রেতাদের ভোজ্যতেল ও ডালের সঙ্গে পেঁয়াজ কিনতে বাধ্য করছেন।

ক্রেতাদের একজন নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক শিক্ষক বলেন, অন্য পণ্যের সঙ্গে দুই কেজি পেঁয়াজ গছিয়ে দেওয়া হয়েছে।বাজারের চেয়ে টিসিবির পেঁয়াজের দাম কম। তবে বিদেশী এ পেঁয়াজ অনেকাংশে পচা।এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান,প্যাকেজ আকারে টিসিবির পণ্য বিক্রি করার নিয়ম নেই।এবিষয়ে টিসিবি কৃর্তপক্ষের সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
আইটি উপদেষ্টা
সোহেল আসলাম
উপদেষ্টামন্ডলী
মোঃ ইমরান হোসেন চৌধুরী
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2021. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close