০১ আগস্ট ২০২১, রবিবার ০৪:০৫:৪৯ এএম
সর্বশেষ:

৩১ মে ২০২১ ০৫:৩৭:১৭ পিএম সোমবার     Print this E-mail this

গণমাধ্যম ও গণতন্ত্র,ন্যায় বিচার মানে স্বাধীনতার ঘোষক জিয়াউর রহমান শীর্ষক আলোচনা

ডেস্ক রিপোর্ট
বাংলার চোখ
 গণমাধ্যম ও গণতন্ত্র,ন্যায় বিচার মানে স্বাধীনতার ঘোষক জিয়াউর রহমান শীর্ষক আলোচনা

শহীদ রাষ্ট্রপতি স্বাধীনতার ঘোষক জিয়াউর রহমান এর ৪০তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক এ্যাসোসিয়েশন(বিআরজেএ)কার্যালয়ে সংগঠনের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাখাওয়াৎ হোসেন ইবনে মঈন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় সংগঠনের মহাসচিব মোহাম্মদ আবু হানিফ, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ভিপি সরকার মিজানুর রহমান,সাংগঠনিক সচিব রফিকুল ইসলাম, যুগ্ম মহাসচিব যথাক্রমে, এরশাদুর রহমান,আবু ইউসুফ,রফিকুল ইসলাম দুলাল, হুমায়ুন কবির তালহা,রফিকুল ইসলাম, আব্দুল হাই সিদ্দিকী, আ,ফ,ম,আবু ইউসুফ অর্থ সচিব ফাহিম আল-নুর,প্রমুখ। এ ছাড়াও সাংবাদিক নাঈম পারভেজ অপু,বীর মুক্তিযোদ্ধা মিলন।

সভায় বক্তারা বলেন স্বাধীনতার স্বপ্নদ্রোষ্টা, রুপকার, স্হপতি মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর "সাপ্তাহিক হক কথা" মাত্র নয় মাসের মাথায় আ"লীগ বন্ধ করে দিয়ে ছিলো। তারপর দেশের সব গুলো গণমাধ্যম বন্ধ করে দিয়ে চারটি তাদের মুখপত্র করে রাখা পরিনাম কি হয়েছিল জাতি জানে। বক্তরা বলেন নাগরিকদের মানবাধিকার হরণ,রাষ্ট্রীর মালিকানা জনগণ থেকে ব্যাক্তি,পরিবার আর দূর্বৃত্তদের হাতে চলে গেল। জনগণের রাষ্ট্রীয় সম্পদ তছরুপ, আত্মসাৎ, অপচয় শুরু হয় বাধাহীন ভাবে।
সাম্রাজ্যেবাদ,আধিপত্যবাদ, সম্প্রসারণবাদে আগ্রসনে জাতি অস্হির হয়ে উঠে। শাহ জালাল -শাহ পরান(রহ)সহ ৩৬০ আউলিয়,আর মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানীর বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক শক্তির উথান নিয়ন্ত্রণ হওয়ার পর দেশপ্রেমিকদের আবেদনে আল্লাহ পাক বাংলাদেশের জনগণের জন্য কবুল করেন উপ-সেনা প্রধান জিয়াউর রহমানকে।তিনি তারপর থেকে রাষ্ট্রের মালিক জনগনকে বুঝিয়ে দিতে বহুদলীয় গনতন্ত্র, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও গণমাধ্যম কর্মীদের মর্যাদাবান করা,মেরুদণ্ড সমর্পণ বিচার ব্যাবস্হা নিশ্চিত করা। সিভিল ও পোষাকী রাজ্যের কামলাদের জবাবদিহি নিশ্চিত করে ক্ষমতার আসনে বস্তে হলে জনগনের রায়ের মাধ্যমে অনুমতি নেওয়ার নিশ্চয়তা করেন। শহীদ জিয়া আধুনিক বাংলার স্বপ্নদ্রোষ্টা, মুসলিম বিশ্বকে এক পতাকা তলে আনার আপ্রাণ চেষ্টা কারী ও সাম্রাজ্যেবাদ,আধিপত্যবাদ,সম্প্রসারণবাদ উপনিবেশিক বাদের আতংকের নাম জিয়া উর রহমান। তারা বলেন আজ তার দল তার দর্শন থেকে দুরে সরে আসায় জিয়া পরিবার সাধারণ জনগণ সাংবাদিকরা অপরাধী চক্রের কাছে জিম্মি। সভাপতি তার বক্তব্য বলেন যখন গণমাধ্যম নিয়ন্ত্রণ করতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, অফিসায়াল সিকিউরিটি এ্যাক্ট,গুম,খুন অপহরণ সাংবাদিকদের উপর শুরু হয়েছে তখনই সাংবাদিক সমাজ উপলব্ধি করতে দেশ হরিলুটের রাজ্য পরিনত হওয়ার পথে।তিনি বলেন দেশের যে পরিমাণ অর্থ তছরুপ আত্মসাত অপচয় পাচার করায় সুযোগ দিয়েছে, সেই টাকা দিয়ে আপদকালীন সময় জনগণের সকল সমস্যা মোকাবেলা করা যেত।তিনি রাষ্ট্রীয় সম্পদ হরিলুট আর পরগাছা শাসন চালু রাখতে জিয়া পরিবার আলেম সমাজ ও দিন প্রতিষ্ঠার কাজে নিয়োজিতদের উপর হামলা মামলা জুলুম শুরু করে সাম্প্রদায়িক চক্র। তিনি বলেন আ`লীগ এর প্রতিষ্ঠাতা মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানী দলটি জনগনের সাথে বিশ্বাস ঘাতকতা করার কারণে আ"লীগ থেকে পদত্যাগ করেন।তারপর দলটি কখনোই জনগনের ভোটে নির্বাচিত হয়ে ক্ষমতা এসেছে এমন তথ্য পাওয়া যায়।পক্ষান্তরে স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ জিয়া উর রহমান দল আর দর্শন বাংলাদেশে জনপ্রিয়। কিন্তু দলের অভ্যান্তর থেকে দেশপ্রেমিক বন্ধু শক্তির মধ্যে অবিশ্বাস জন্মানো আর গণ ধীকৃত একজন মানুষের নেতৃত্বে জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট গঠনের মাধ্যমে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে হত্যার পরিবেশ করা,আর তারেক রহমানকে দেশে ফেরত আসতে না দেওয়ার পরিবেশ সৃষ্টি করা হচ্ছে। তিনি বলেন শহীদ জিয়া ও বেগম খালেদা জিয়ার দর্শনে ফিরে না আসলে স্বাধীনতা ও সার্বভৌম হুমকির মুখে পরবে। তিনি আশা প্রকাশ করেন বিজ্ঞ আদালত রহুল আমীন গাজী, শওকত মাহমুদ, মাহমুদুর রহমান, আবুল আসাদ, সাহাদত হোসেন সকল সাংবাদিকদের মামলা থেকে অব্যাহতি দিবেন, আমারদেশ,ইসলামি টিভি, দিগন্ত টিভি,চ্যানেল ওয়ান,সিএসবি সহ সকল গণমাধ্যম খুলে দিতে নির্দেশ দিবেন,দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান সহ সকল আলেম-ওলামাদের হয়রানি বন্ধ নির্দেশ দিয়ে স্বাধীনতা নিশ্চিত করবেন এটাই মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানী ও শহীদ জিয়াউর রহমানের স্বপ্ন। আজ ৪০ বছর পর জাতিকে সাম্প্রদায়িক শক্তি , সন্ত্রাসী, রাষ্ট্রের বেতনভুক্ত সেবকদের লেবাসে দূর্নীতিবাজদের লুটপাট বন্ধ করতে হলে একটা নির্বাচিত সরকার পর্যন্ত জনগনের সাথে বিএনপিকে থাকতে হবে।আর বিএনপির নেতৃত্বাধীন চারদলীয়জোট কে সংগঠিত করতে পারলেই সাম্প্রদায়িক শক্তির চক্রান্ত থেকে অসাম্প্রদায়িক শক্তিকে রক্ষা যা শহীদ জিয়া ও বেগম খালেদা জিয়াকে সত্যি কারের শ্রদ্ধা জানানো হবে। আলোচনা শহীদ জিয়া ও দেশপ্রেমিকদের আত্মার মাগফেরাত কামনা ও সাংবাদিক সহিদুজ্জান সহ সকল সাংবাদিকের জন্যে দোয়া করা হয়।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
আইটি উপদেষ্টা
সোহেল আসলাম
উপদেষ্টামন্ডলী
মোঃ ইমরান হোসেন চৌধুরী
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2021. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close