২২ অক্টোবর ২০২১, শুক্রবার ০৬:২৪:৪১ এএম
সর্বশেষ:

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১১:৪৪:২২ এএম শনিবার     Print this E-mail this

রাজধানীর সরকারি সাত কলেজের ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র আগামী ২২ সেপ্টেম্বর

ডেস্ক রিপোর্ট
বাংলার চোখ
 রাজধানীর সরকারি সাত কলেজের ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র আগামী ২২ সেপ্টেম্বর

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) অধিভুক্ত সাত কলেজের রাজধানীর সরকারি সাত কলেজের ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র আগামী ২২ সেপ্টেম্বর থেকে পাওয়া যাবে। স্নাতক প্রথম বর্ষ ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ভর্তির জন্য আবেদনকারী শিক্ষার্থীরা ঢাবির ভর্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট https://bit.ly/3lqzGPo থেকে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবেন।

আগামী ৩০ অক্টোবর কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান ইউনিটের পরীক্ষার মাধ্যমে শুরু হবে সাত কলেজের ভর্তি পরীক্ষা। এরপর ৫ নভেম্বর বাণিজ্য ইউনিট ও ৬ নভেম্বর বিজ্ঞান ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

এ বছর ৭ কলেজের ৩টি ইউনিটে ২৬ হাজার ১৬০টি আসনের বিপরীতে আবেদন পড়েছে প্রায় ১ লাখ। এরমধ্যে কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের বিভাগগুলোতে ভর্তির জন্য আবেদন করেছেন ৩০ হাজারেরও বেশি শিক্ষার্থী। বাণিজ্য অনুষদে আবেদন পড়েছে ২৪ হাজারেরও বেশি এবং বিজ্ঞান অনুষদে আবেদন পড়েছে প্রায় ৪৫ হাজার। এদের মধ্যে ভর্তির আবেদন ফি জমা দিয়েছেন প্রায় ৯০ হাজার শিক্ষার্থী।

প্রতিটি ইউনিটে মোট ১২০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে মূল পরীক্ষায় (বহুনির্বাচনী) ১০০ এবং এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ওপর ১০ করে মোট ২০ নম্বর থাকবে।

মেধাতালিকা ও ফলাফল

মোট ১২০ নম্বরের ভিত্তিতে প্রার্থীদের অর্জিত মেধাস্কোরের ক্রমানুসারে মেধাতালিকা তৈরি করা হবে। এজন্য মাধ্যমিক/O-Level বা সমমানের পরীক্ষায় প্রাপ্ত/হিসাবকৃত জিপিএকে ২ দিয়ে গুণ; উচ্চ মাধ্যমিক/A-Level বা সমমানের পরীক্ষায় প্রাপ্ত/হিসাবকৃত জিপিএকে ২ দিয়ে গুণ করে এই দুইয়ের যোগফল ভর্তি পরীক্ষায় ১০০তে প্রাপ্ত নম্বরের সঙ্গে যোগ দিয়ে ১২০ নম্বরের মধ্যে মেধাস্কোর নির্ণয় করা হবে। সে অনুযায়ী তৈরি করা হবে মেধাতালিকা।

মেধাস্কোরের ভিত্তিতে নির্ণয় করা মেধাক্রম অনুযায়ী উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মেধাতালিকা ও ফলাফল ভর্তি পরীক্ষার পর সাত দিনের মধ্যে ঢাবির ভর্তি ওয়েবসাইটে (http://collegeadmission.eis.du.ac.bd) প্রকাশ করা হবে। প্রার্থী এসএমএসের মাধ্যমেও ফলাফল জানতে পারবেন।


মেধা তালিকা প্রকাশের পর নির্দিষ্ট তারিখের মধ্যে অনলাইনে কলেজ ও বিষয় পছন্দকরণ ফরম পূরণ করতে হবে। পরে শিক্ষার্থীর পছন্দ এবং ভর্তি পরীক্ষার মেধাক্রম ও ভর্তির যোগ্যতা অনুসারে বিভাগ বণ্টনের তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েব সাইটে (https://collegeadmission.eis.du.ac.bd) প্রকাশ করা হবে। চূড়ান্তভাবে ভর্তির জন্য মনোনীত প্রার্থীর ক্ষেত্রে SSC এবং HSC-এর মূল নম্বরপত্র সংশ্লিষ্ট কলেজে জমা রাখা হবে।

এছাড়াও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রকাশিত ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে কলেজ ভিত্তিক আসন বিন্যাসের ক্ষেত্রে জানানো হয়-

বিজ্ঞান ইউনিটের বিভাগুলোতে সাত কলেজে মোট আসন সংখ্যা ৬৫০০টি।

কলেজ ও বিভাগ ভিত্তিক আসন সংখ্যা

১. ঢাকা কলেজে মোট আসন সংখ্যা ১০৯০টি। এর মধ্যে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে ১২০টি, রসায়ন বিভাগে ১২০টি, গণিত বিভাগের ২১০টি, উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের ১২৫টি, প্রাণিবিদ্যা বিভাগে ১২৫টি, ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা বিভাগে ১২৫টি, মনোবিজ্ঞান বিভাগে ১২৫টি ও পরিসংখ্যান বিভাগে ১৪০টি আসন রয়েছে।

২. ইডেন মহিলা কলেজে সর্বমোট আসন সংখ্যা ১২২৫টি। এরমধ্যে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে ১২৫টি, রসায়ন বিভাগে ১২৫টি, গণিত বিভাগে ২৬২টি, উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগে ১৫০টি, প্রাণিবিদ্যা বিভাগে ১৫০টি, ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা বিভাগে ১৬৫টি, পরিসংখ্যান বিভাগে ৫০টি, মনোবিজ্ঞান বিভাগে ১৪০টি ও গার্হস্থ্য অর্থনীতি বিভাগে ১২০টি আসন রয়েছে।

৩. সরকারি তিতুমীর কলেজে মোট আসন সংখ্যা ১৫১০টি। এরমধ্যে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে ২৫০টি, রসায়ন বিভাগে ২৫০টি, গণিত বিভাগে ৩০০টি, উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগে ২৫০টি, প্রাণিবিদ্যা বিভাগে ২৫০টি, পরিসংখ্যান বিভাগে ৭০টি, ভূগোল ও পরিবেশ বিদ্যা বিভাগে ৭০টি, মনোবিজ্ঞান বিভাগের ৭০টি আসন রয়েছে।

৪. সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজে মোট আসন সংখ্যা ৭৪০টি। এরমধ্যে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে ১০০টি, রসায়ন বিভাগে ১২০টি, গণিত বিভাগে ১২০টি, উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগে ১০০টি, প্রাণিবিদ্যা বিভাগে ১০০টি, ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা বিভাগে ১০০টি ও মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগে ১০০টি আসন রয়েছে।

৫. কবি নজরুল সরকারি কলেজে সর্বমোট আসন সংখ্যা ৬৩০টি। এর মধ্যে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে ১০০টি, রসায়ন বিভাগে ১০০টি, গণিত বিভাগে ১০০টি, উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগে ১০০টি, প্রাণিবিদ্যা বিভাগে ১০০টি, ভূগোল ও পরিবেশ ১৩০টি আসন রয়েছে।

৬. বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজে মোট আসন সংখ্যা ৫৯০ টি। এরমধ্যে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে ৬৫টি, রসায়ন বিভাগে ৮৫টি, গণিত বিভাগে ৬৫টি, উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগে ৫৫টি, প্রাণিবিদ্যা বিভাগে ৮০টি, ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা বিভাগে ৮০টি, মনোবিজ্ঞান বিভাগে ৮০টি ও গার্হস্থ্য অর্থনীতি বিভাগে ৮০টি আসন রয়েছে।

৭. সরকারি বাঙলা কলেজে মোট আসন সংখ্যা ৭১৫ টি। এর মধ্যে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে ১০৫টি, রসায়ন বিভাগে ১৩০ টি, গণিত বিভাগে ১৬৮টি, উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের ১০৫টি, প্রাণিবিদ্যা বিভাগে ১২০টি ও মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগে ৭৫টি আসন রয়েছে।

বাণিজ্য ইউনিটের বিভাগগুলোতে সাত কলেজে মোট আসন সংখ্যা- ৫৩১০টি।

কলেজ ও বিষয়ভিত্তিক আসন সংখ্যা

১. ঢাকা কলেজে মোট আসন সংখ্যা ৬০০ টি। এরমধ্যে ব্যবস্থাপনা বিভাগে ৩০০টি ও হিসাববিজ্ঞান বিভাগে ৩০০টি আসন রয়েছে।

২. ইডেন মহিলা কলেজে মোট আসন সংখ্যা -১০৫৫টি। এরমধ্যে ব্যবস্থাপনা বিভাগে ৩২০টি, হিসাববিজ্ঞান বিভাগে ৩৩০টি, মার্কেটিং বিভাগে ২১৫টি ও ফাইন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগে ১৯০টি আসন রয়েছে।

৩. সরকারি তিতুমীর কলেজে মোট আসন সংখ্যা ১৪৬৫টি। এরমধ্যে ব্যবস্থাপনা বিভাগে ৪৬২টি, হিসাববিজ্ঞান বিভাগে ৪৭৮টি, মার্কেটিং বিভাগে ২৭০টি ও ফাইন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগে ২৫৫ টি আসন রয়েছে।

৪. সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজে মোট আসন সংখ্যা ৪০০টি। এরমধ্যে ব্যবস্থাপনা বিভাগে ২০০ ও হিসাববিজ্ঞান ২০০টি আসন রয়েছে।

৫. কবি নজরুল সরকারি কলেজে মোট আসন সংখ্যা ৭০০টি। এরমধ্যে ব্যবস্থাপনা বিভাগে ৩০০টি, হিসাববিজ্ঞান বিভাগে ৩০০টি, মার্কেটিং বিভাগে ৫০টি ও ফাইন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগে ৫০টি আসন রয়েছে।

৬. বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজে মোট আসন সংখ্যা ১৩০ টি। এরমধ্যে ব্যবস্থাপনা বিভাগে ৬৫টি ও হিসাববিজ্ঞান বিভাগে ৬৫টি আসন রয়েছে।

৭. সরকারি বাঙলা কলেজে মোট আসন সংখ্যা ৯৬০টি। এরমধ্যে ব্যবস্থাপনা বিভাগে ৩৬০টি, হিসাববিজ্ঞান বিভাগে ৩৬০টি, মার্কেটিং বিভাগে ১২০টি ও ফাইন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং ১২০টি আসন রয়েছে।

কলা ও সমাজবিজ্ঞান ইউনিটের বিভাগগুলোতে সাত কলেজে মোট আসন সংখ্যা ১৪৩৫০টি।

কলেজ ও বিভাগ ভিত্তিক আসন সংখ্যা

১. ঢাকা কলেজে কলা ও সমাজবিজ্ঞান ইউনিটের মোট আসন সংখ্যা ২৪২৫টি। এরমধ্যে বাংলা বিভাগে ২০০টি, ইংরেজি বিভাগে ২৪০টি, ইতিহাস বিভাগে ২২৫টি, দর্শন বিভাগে ১৮০টি, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগে ১৩০টি, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে ৬১টি, অর্থনীতি বিভাগে ২৩৫টি, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে ২৬৫টি, সমাজবিজ্ঞান বিভাগে ২৫০টি, ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগে ১২৫টি*, মনোবিজ্ঞান বিভাগে ১২৫টি*, পরিসংখ্যান বিভাগে ১২৫টি* ও গণিত বিভাগে ২১০টি* আসন রয়েছে।

২. ইডেন মহিলা কলেজে কলা ও সমাজবিজ্ঞান ইউনিটে মোট আসন সংখ্যা ৩১৫৫টি। এরমধ্যে বাংলা বিভাগে ২৩০টি, ইংরেজি বিভাগে ৩০০টি, ইতিহাস বিভাগে ২৪০টি, দর্শন বিভাগে ১৯০টি, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগে ২৪০টি, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে ১৪০টি, অর্থনীতি বিভাগে ২৯০টি, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে ৩০০টি, সমাজবিজ্ঞান বিভাগে ২৮০টি, সমাজকর্ম বিভাগে ২৭০টি, ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগে ১৬৫টি*, মনোবিজ্ঞান বিভাগে ১৪০টি*, পরিসংখ্যান বিভাগে ৫০টি*, গার্হস্থ্য অর্থনীতি বিভাগে ১২০টি* ও গণিত বিভাগে ২০০টি* আসন রয়েছে।

৩. সরকারি তিতুমীর কলেজে কলা ও সমাজবিজ্ঞান ইউনিটে মোট আসন রয়েছে ৩৩০০টি। এরমধ্যে বাংলা বিভাগে ৩১০ টি, ইংরেজি বিভাগে ৩৬৫টি, ইতিহাস বিভাগে ২১০টি, দর্শন বিভাগে ২৫০টি, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগে ২৬০টি, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে ১৪৫টি, অর্থনীতি বিভাগে ৩৮০টি, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে ৪০০টি, সমাজবিজ্ঞান বিভাগে ২৩৫টি, সমাজকর্ম বিভাগে ২৩৫ টি, ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগে ৭০টি*, মনোবিজ্ঞান বিভাগে ৭০টি*, পরিসংখ্যান ৭০টি* ও গণিত বিভাগে ৩০০টি* আসন রয়েছে।

৪. কবি নজরুল সরকারি কলেজে কলা ও সমাজবিজ্ঞান ইউনিটে মোট আসন রয়েছে ১৬০০টি। এরমধ্যে বাংলা বিভাগে ১৫০টি, ইংরেজি বিভাগে ২০০টি, ইতিহাস বিভাগে ১৫০টি, দর্শন বিভাগে ১২০টি, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগে ১৫০টি, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে ২০০টি, অর্থনীতি বিভাগে ১৫০টি, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে ১৫০টি, আরবি বিভাগে ১০০টি, ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগে ১৩০টি* ও গণিত বিভাগে ১০০টি* আসন রয়েছে।

৫. সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজে কলা ও সমাজবিজ্ঞান ইউনিটে মোট আসন সংখ্যা ১২৫০টি। এরমধ্যে বাংলা বিভাগে ১১০টি, ইংরেজি বিভাগে ১১০টি, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ ১২০টি, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে ১০০টি, অর্থনীতি বিভাগে ১৫০টি, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে ১৭০টি, সমাজকর্ম বিভাগে ১৭০টি, ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগে ১০০টি* ও গণিত বিভাগে ১২০টি* আসন রয়েছে।

৬. বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজে কলা ও সমাজবিজ্ঞান ইউনিটে মোট আসন রয়েছে ১১৮০টি। এরমধ্যে বাংলা বিভাগে ১০০টি, ইংরেজি বিভাগে ৮০টি, ইতিহাস বিভাগে ৫০টি, দর্শন বিভাগে ৬০টি, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগে ৬০টি, অর্থনীতি বিভাগে ১৬৫টি, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে ৮৫টি, সমাজবিজ্ঞান বিভাগে ৯০টি, সমাজকর্ম বিভাগ ১৩৫টি, ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগে ৮০টি*, মনোবিজ্ঞান বিভাগে ৮০টি*, গার্হস্থ্য অর্থনীতি বিভাগে ৮টি* ও গণিত বিভাগে ৬৫টি* আসন রয়েছে।

৭. সরকারি বাঙলা কলেজে কলা ও সমাজবিজ্ঞান ইউনিটে মোট আসন সংখ্যা ১৪৪০টি। এরমধ্যে, বাংলা বিভাগে ২২০টি, ইংরেজি বিভাগে ১৮০টি, ইতিহাস বিভাগে ১২০টি, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগে ১১০টি, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে ১০০টি, অর্থনীতি বিভাগে ১৪০টি, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে ২৪৫টি, সমাজকর্ম বিভাগে ১৪৫টি, গণিত বিভাগে ১৮০টি* আসন রয়েছে।

[* চিহ্নিত কলা ও সমাজবিজ্ঞান ইউনিটের বিভাগগুলোর ক্ষেত্রে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির নিয়ম অনুসারে আনুপাতিক হারে আসন বরাদ্দ করা হবে।]

ইডেন মহিলা কলেজ ও বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজের আসনগুলো শুধু ছাত্রীদের এবং ঢাকা কলেজের আসনগুলো শুধু ছাত্রদের জন্য সংরক্ষিত থাকবে। এছাড়াও সরকারি তিতুমীর কলেজ, কবি নজরুল সরকারি কলেজ, সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, এবং সরকারি বাঙলা কলেজে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি হতে পারবেন।

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
সম্পাদক
শরীফ মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক
নাঈম পারভেজ অপু
আইটি উপদেষ্টা
সোহেল আসলাম
উপদেষ্টামন্ডলী
মোঃ ইমরান হোসেন চৌধুরী
কার্যালয়
১০৫, এয়ারপোর্ট রোড, আওলাদ হোসেন মার্কেট (৩য় তলা)
তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫।
ফোন ও ফ্যাক্স :+৮৮০-০২-৯১০২২০২
সেল : ০১৭১১২৬১৭৫৫, ০১৯১২০২৩৫৪৬
E-Mail: banglarchokh@yahoo.com, banglarchokh.photo1@gmail.com
© 2005-2021. All rights reserved by Banglar Chokh Media Limited
Developed by eMythMakers.com
Close