Banglar Chokh | বাংলার চোখ

আদালতের রিটে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিত 

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ০১:৩৪, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

আদালতের রিটে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিত 

ছবি:সংগৃহীত

সীমানা জটিলতা নিয়ে উচ্চ আদালতে রিটের প্রেক্ষিতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে আদালতের নির্দেশে এই নির্বাচন স্থগিত করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খাঁন। পরে এক গণ-বিজ্ঞপ্তিতে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত নির্বাচন স্থগিত করে রিটার্নিং কর্মকর্তা। নির্বাচন স্থগিতাদেশ দেয় নির্বাচন কমিশন। পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত নির্বাচন হবে না বলেও জানানো হয়।

এ বিষয়ে সোমবার বিকেলে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোত্তাওয়াক্কিল রহমান জানান, আদালতের এক নির্দেশনার প্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন আগামী ১৭ অক্টোবর সোমবার অনুষ্ঠিতব্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিত করেছেন। শামীমা জাহান সারা নামে সংরক্ষিত আসনের এক সদস্য সীমানা সংক্রান্ত জটিলতা নিয়ে উচ্চ আদালতে রিট করলে এই নির্বাচন স্থগিত করা হয়। আর পরবর্তী নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে না।

এ বিষয়ে শামিমা জাহান সারা বলেন, জেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সীমানা নির্ধারণ করে দিলে জটিলতার সৃষ্টি হয়। সীমানা সংক্রান্ত জটিলতার নিষ্পত্তি চেয়ে উচ্চ আদালতে রিট আবেদন করি। আদালত আমার পক্ষে রায় দিয়েছেন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আরও জানান, জেলার পাঁচ উপজেলায় সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে এক নম্বর আসনে ২ জন ও দুই নম্বর আসনে ৩ জন প্রার্থী এবং সাধারণ সদস্য পদে পাঁচটি ওয়ার্ডে ২১ জন প্রার্থী রয়েছেন। এর আগে রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনে পাঁচটি সাধারণ ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত দুইটি আসনে নির্বাচনে প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ৯ জন প্রার্থী মনোনয়ন প্রত্যাহার করেন। 

তবে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. রুহুল আমিন ছাড়া আর কেউ মনোনয়নপত্র দাখিল করেননি। ফলে আগামী ১৭ অক্টোবর অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে তিনি একক প্রার্থী ছিলেন। জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে মোট ৪ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র তুলেছিলেন।

উল্লেখ্য, আগামী ১৭ অক্টোবর সোমবার চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। এর আগে ১৫ সেপ্টেম্বর ছিল জেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন। তফসিল অনুযায়ী-মনোনয়নপত্র বাছাই হয় ১৮ সেপ্টেম্বর। প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন ১৯ থেকে ২১ সেপ্টেম্বর। আপিল নিষ্পত্তি হয় ২২ থেকে ২৪ সেপ্টেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ছিল ২৫ সেপ্টেম্বর। 
চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
সীমানা জটিলতা নিয়ে উচ্চ আদালতে রিটের প্রেক্ষিতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে আদালতের নির্দেশে এই নির্বাচন স্থগিত করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খাঁন। পরে এক গণ-বিজ্ঞপ্তিতে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত নির্বাচন স্থগিত করে রিটার্নিং কর্মকর্তা। নির্বাচন স্থগিতাদেশ দেয় নির্বাচন কমিশন। পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত নির্বাচন হবে না বলেও জানানো হয়।

এ বিষয়ে সোমবার বিকেলে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোত্তাওয়াক্কিল রহমান জানান, আদালতের এক নির্দেশনার প্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন আগামী ১৭ অক্টোবর সোমবার অনুষ্ঠিতব্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিত করেছেন। শামীমা জাহান সারা নামে সংরক্ষিত আসনের এক সদস্য সীমানা সংক্রান্ত জটিলতা নিয়ে উচ্চ আদালতে রিট করলে এই নির্বাচন স্থগিত করা হয়। আর পরবর্তী নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে না।

এ বিষয়ে শামিমা জাহান সারা বলেন, জেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সীমানা নির্ধারণ করে দিলে জটিলতার সৃষ্টি হয়। সীমানা সংক্রান্ত জটিলতার নিষ্পত্তি চেয়ে উচ্চ আদালতে রিট আবেদন করি। আদালত আমার পক্ষে রায় দিয়েছেন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আরও জানান, জেলার পাঁচ উপজেলায় সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে এক নম্বর আসনে ২ জন ও দুই নম্বর আসনে ৩ জন প্রার্থী এবং সাধারণ সদস্য পদে পাঁচটি ওয়ার্ডে ২১ জন প্রার্থী রয়েছেন। এর আগে রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনে পাঁচটি সাধারণ ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত দুইটি আসনে নির্বাচনে প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ৯ জন প্রার্থী মনোনয়ন প্রত্যাহার করেন। 

তবে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. রুহুল আমিন ছাড়া আর কেউ মনোনয়নপত্র দাখিল করেননি। ফলে আগামী ১৭ অক্টোবর অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে তিনি একক প্রার্থী ছিলেন। জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে মোট ৪ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র তুলেছিলেন।

উল্লেখ্য, আগামী ১৭ অক্টোবর সোমবার চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। এর আগে ১৫ সেপ্টেম্বর ছিল জেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন। তফসিল অনুযায়ী-মনোনয়নপত্র বাছাই হয় ১৮ সেপ্টেম্বর। প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন ১৯ থেকে ২১ সেপ্টেম্বর। আপিল নিষ্পত্তি হয় ২২ থেকে ২৪ সেপ্টেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ছিল ২৫ সেপ্টেম্বর। 
 

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়