Banglar Chokh | বাংলার চোখ

 বিতর্কের পর পন্তের কাছে ক্ষমা চাইলেন উর্বশী

বিনোদন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৬:২৭, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

 বিতর্কের পর পন্তের কাছে ক্ষমা চাইলেন উর্বশী

ছবি: সংগৃহীত

বলিউড অভিনেত্রী উর্বশী রাউতেলা এবং ক্রিকেটার ঋষভ পন্ত বিবাদে জড়িয়েছেন। নাম না করেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একে অপরকে আক্রমণ করে গেছেন এই দুই তারকা। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ফের পন্তের বিষয়ে প্রশ্ন করা হয় অভিনেত্রীকে।


উর্বশী জানান, এ নিয়ে তিনি কোনো বাক্য ব্যয় করতে চান না। তিনি বলেন, কোনো ফালতু কথা বলব না। শুধু প্রশ্নের সোজা উত্তর দেব। তাই অহেতুক কোনো মন্তব্য করব না।

ইনস্টাগ্রামে উর্বশী-ঋষভের বাকবিতণ্ডার কথা কারও অজানা নয়। পরোক্ষভাবে একে অপরকে কটাক্ষ ছুড়ে দিয়েছিলেন তারা। সাবেককে কোনো বার্তা দিতে চান? প্রশ্ন করা হয় উর্বশীকে। হাত জোড় করে তিনি বলেন, ক্ষমা চাই। আসলে কিছুই বলতে চাই না। আমি দুঃখিত। সত্যিই দুঃখিত।

দিন কয়েক আগে এক সাক্ষাৎকারে ঋষভের প্রসঙ্গ তুলেছিলেন উর্বশী। তিনি বলেন, দিল্লিতে এক ব্যক্তি হোটেল লবিতে বসে ঘণ্টার পর ঘণ্টা তার জন্য অপেক্ষা করেছিলেন। পুরো নামটি প্রকাশ্যে না আনলেও ঘটনাটি বর্ণনা করতে গিয়ে সেই ব্যক্তিকে 'আরপি' বলে সম্বোধন করেছিলেন উর্বশী। এই আরপি যে আসলে ঋষভ পন্ত, তা বুঝে নিতে বিশেষ মাথা খাটাতে হয় না।

উর্বশীর সাক্ষাৎকারের সেই অংশটুকু ঝড়ের গতিতে ছড়িয়ে পড়তেই একটি ইনস্টাগ্রাম স্টোরি দেন ঋষভ। অভিনেত্রীর নাম না নিয়ে তার উদ্দেশে লেখেন— 'মানুষ একটু জনপ্রিয়তা আর শিরোনামে আসার জন্য কিনা করে! নামডাকের জন্য এই লোভ দেখে কষ্ট হয়। ঈশ্বর ওদের মঙ্গল করুন'। এখানেই থেমে যাননি তিনি। 

হ্যাশট্যাগ দিয়ে লেখেন— 'মেরা পিছা ছোড়ো বহেন'। বাংলায় যার অনুবাদ করলে দাঁড়ায়, 'আমাকে ছেড়ে দেও বোন'। আরও একই হ্যাশট্যাগে লেখেন, 'ঝুট কি ভি লিমিট হোতি হ্যায়' অর্থাৎ মিথ্যা বলারও একটা সীমা আছে।

চুপ থাকেননি উর্বশীও। ঋষভের এই স্টোরির প্রত্যুত্তরে একটি স্টোরি দেন তিনি। ঋষভকে ‘কুগার হান্টার’ বলে খোঁচা দেন তিনি। অভিনেত্রী বোঝাতে চেয়েছেন, তার 'সাবেক' বয়সে বড় মহিলাদের প্রতি দুর্বল।

এভাবেই দানা বাঁধে বিতর্ক। তবে ইনস্টাগ্রামে ঋষভের প্রতি ক্ষোভ উগরে দিলেও জনসমক্ষে তাকে নিয়ে কোনো কথা বলতে চান না উর্বশী।

 

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়