Banglar Chokh | বাংলার চোখ

কর্তৃত্ববাদী শাসন ব্যবস্থার জাঁতাকলে নিষ্পেসিত বাংলাদেশের গণতন্ত্র : মুশফিকুল ফজল

প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৯:১৪, ২১ জুলাই ২০২২

আপডেট: ১৯:১৫, ২১ জুলাই ২০২২

কর্তৃত্ববাদী শাসন ব্যবস্থার জাঁতাকলে নিষ্পেসিত বাংলাদেশের গণতন্ত্র : মুশফিকুল ফজল

ছবি:সংগৃহীত

কর্তৃত্ববাদী শাসন ব্যবস্থার জাঁতাকলে নিষ্পেসিত বাংলাদেশের গণতন্ত্র, আইনের শাসন, মতপ্রকাশের স্বাধীনতা। একসময়ের মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ মডারেট গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র একনায়কতন্ত্রের ছোবলে পড়ে অস্তিত্বই আজ সংকটে। এই পরিস্থিতি থেকে বাংলাদেশকে রক্ষার দায়িত্ব কেবল বিরোধি রাজনৈতিক দলের নয়। এই দায়িত্ব সচেতন নাগরিক মাত্রই সকলের।

রবিবার সন্ধ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান অঙ্গরাজ্যে মিশিগান বাংলা প্রেসক্লাব আয়োজিত এক মতবিনিময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন জাস্ট নিউজ সম্পাদক এবং হোয়াইট হাউস ও জাতিসংঘের স্থায়ী সংবাদদাতা মুশফিকুল ফজল আনসারী।

প্রেস ক্লাবের সভাপতি সৈয়দ শাহেদুল হকের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফা কালামের সঞ্চালনায় এই মতবিনিময় সভায় সাংবাদিক, রাজনীতিক, পেশাজীবী সহ বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী উপস্থিত ছিলেন।

মুশফিকুল ফজল আনসারীর বক্তব্য চলাকালে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মিশিগান শাখার সভাপতি ফারুক আহমেদ চান “সরকার বিরোধি” বক্তব্য দেয়ার প্রতিবাদ জানিয়ে টেবিলে সজোরে ধাক্কা মারেন। তখন তার অযাচিত এই আচরণে হতবাক হয়ে যান উপস্থিত প্রবাসী বাংলাদেশীরা এবং তাৎক্ষনিক প্রতিবাদ জানান। প্রতিবাদের মুখে সভাপতি ফারুক আহমেদ চান অনুষ্ঠান স্থল ত্যাগ করলেও আওয়ামী লীগের নজরুল ইসলাম, আমিনুর রশিদ চৌধুরী, আমিনুল চৌধুরী কাপ্তানসহ নেতৃবন্দ পুরোটা সময় জুড়ে উপস্থিত থেকে মুশফিকুল ফজল আনসারীর বক্তব্য শুনেন এবং প্রশ্ন উত্তর পর্বে অংশ নেন।

পূনরায় আলোচনায় অংশ নিয়ে মুশফিকুল ফজল আনসারী বলেন, আমরা মুক্তমতে বিশ্বাসী। প্রশ্ন করার অধিকার সকলের আছে এবং আমার ব্যক্তিগত দৃষ্টিভঙ্গিতে এর সবটার জবাব দিবো। কিন্তু বক্তব্য দিতে বাধা প্রদান করবেন, তেড়ে আসবেন এটা হতে পারেনা। কোনো হুমকি ধমকিতে এবং চোখ রাঙানি গণতন্ত্র, মানবাধিকার ও মুক্তমত প্রকাশের স্বাধীনতার সংগ্রাম থেকে টলাতে পারবেনা।

তিনি বলেন, স্বাধীনতার চেতনা আজ পুরোপুরি ভূলন্ঠিত। মানুষের মৌলিক মানবিক অধিকার বলতে আর কিছুই অবশিষ্ট নেই। আমাদের দল ও মতের ভিন্নতা থাকতে পারে। কিন্তু দেশটাতো আমাদের সবার। আমাদের পূর্বসুরিরা নিশ্চয়ই এমন বাংলাদেশ তৈরীর জন্য নিজেদের তাজা প্রাণ বিলিয়ে দেননি। আমাদের ভাবতে হবে এ কোন বাংলাদেশ আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য রেখে যাচ্ছি।

প্রশ্ন উত্তর পর্বে বাংলাদেশের পরিস্থিতি উত্তরণে করনীয় এবং কনসুলেট সমস্যাসহ প্রবাসীদের নানা সমস্যার কথা তুলে ধরেন।

মতবিনিময় সভায় প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের মধ্যে সেলিম আহমদ, তোফায়েল রেজা, ফারজানা চৌধুরী পাপিয়া, সোহেল আহমেদ, সোলেমান আল্ মাহমুদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মিশিগান বিএনপির নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দেওয়ান আকমল চৌধুরী, ফখরুল ইসলাম লয়েছ, খন্দকার ইউসুফ কামাল, নুরুল হক, মোহাম্মদ জামান, রেজাউল চৌধুরী, সৈয়দ মোশারফ হোসেন লিটু, লিটু চৌধুরী, সমজিত আলম, তারেক চৌধুরী, নাজমুল হক কামাল প্রমুখ।

উপস্থিত ছিলেন, মিশিগান আওয়ামী লীগের সভাপতি, ফারুক আহমেদ চান, যুগ্মসম্পাদক সোলেমান খান, আমিনুর রশিদ চৌধুরী, নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

জালালাবাদ সোসাইটি অব মিশিগানের সভাপতি এন ইসলাম শামিম এবং সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সোলায়মান খান, বিয়ানীবাজার সমিতির সভাপতি আজমল হোসেন, হ্যামট্রামিক সিটির কাউন্সিলর নাইম চৌধুরী, সাবেক মেয়র প্রার্থী কামালুর রহমানও অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়