Banglar Chokh | বাংলার চোখ

নলডাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যানের উপর হামলা,মোটসাইকেল ভাংচুর

নলডাঙ্গা (নাটোর) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২২:১২, ২৩ অক্টোবর ২০২২

আপডেট: ০০:২৭, ২৪ অক্টোবর ২০২২

নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা জামিউল আলীম জীবন হত্যাকান্ডের ঘটনায় হাইকোট থেকে জামিনে আসা উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদের উপর হামলা করে আহত করেছে প্রতিপক্ষ সাবেক আওয়ামীলীগের নেতা তৌহিদুর রহমান লিটনের নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ যুবলীগের একাংশের নেতাকমীরা।

রোববার দুপুর সোয়া ১ টার দিকে উপজেলার গেট এলাকা মোড়ে অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী এ হামলা করে।এসময় একটি মোটরসাইকেল ভাংচুর করে।গুরুতর আহত উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদ কে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে এবং অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ান করা হয়েছে।

নলডাঙ্গা থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায় ,নলডাঙ্গা উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা জামিউল আলীম জীবন হত্যা মামলার প্রধান আসামী উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বেশ কিছুদিন ধরেই পলাতক ছিলেন। গত ১০ অক্টোবর তিনি হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে এলাকায় আসেন। এরপর থেকেই এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছিল। এরই ধারাবাহিকতায় রোববার বেলা ১১ টার দিকে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক নেতা তৌহিদুর রহমান লিটনের নের্তৃত্বে চেয়ারম্যান আসাদের বিচারের দাবীতে নলডাঙ্গা উপজেলা বিসমিল্লাহ হাসপাতালের সামনে দফায় দফায় বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। এসময় দুপুর সোয়া ১টায়  উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ উপজেলা পরিষদে গিয়ে অফিস করে  তার ভাড়া বাসায় ফেরার পথে উপজেলা পরিষদ গেট এলাকার অধিরের মোড় এলাকায় পৌছালে লিটনের নের্তৃত্বে তার অনুসারীরা আসাদের উপর হামলা চালায়। এসময় আসাদের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল ভাংচুর করা হয়। পরে পুলিশ আসাদকে উদ্ধার করে ভাড়া বাসায় পৌছে দেয়। পরে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।সাবেক উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতা তৌহিদুর রহমান লিটন বলেন, আমরা ছাত্রলীগ নেতা জামিউল আলীম জীবন হত্যার বিচারের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল করি।এসময় কে বা চেয়ারম্যান আসাদের উপর হামলা করেছে আমার জানা নাই।তবে শুনেছি চেয়ারম্যান আসাদের লোকজন ছাত্রলীগ নেতা জীবনের বাবা ফরহাদ হোসেনের উপর হামলা করলে এ ঘটনা ঘটে।

নলডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ জানান, আহত আসাদুজ্জামান আসাদকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। এই ঘটনায় উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।নাটোর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মোহসীন জানান, কারা উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদের উপর হামলা করেছে তার সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। ফুটেজ পর্যাালোচনা করে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

উল্লেখ্য,উল্লেখ্য, ফেসবুক লাইভে দুর্নীতির অভিযোগ তোলায় গত ২৩ সেপ্টম্বর নলডাঙ্গা উপজেলা ছাত্রলীগের নেতা জামিউল আলীম জীবন কে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠে নলডাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদের বিরুদ্ধে।এ ঘটনায় জীবনের মা জাহানারা বেগম বাদী হয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদসহ তার ২ ভাইয়ের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন।এ মামলায় উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ হাইকোট থেকে ৬ সপ্তাহের জামিনে আসে।
 

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়