Banglar Chokh | বাংলার চোখ

গ্রেফতার,মামলা, হামলা করে বিএনপির গণজোয়ার ঠেকানো যাবে না

 চট্টগ্রাম প্রতিনিধি 

প্রকাশিত: ২০:৫০, ৭ ডিসেম্বর ২০২২

গ্রেফতার,মামলা, হামলা করে বিএনপির গণজোয়ার ঠেকানো যাবে না

.

ঢাকা নয়া পল্টন বিএনপির কার্যালয়ে গ্রেফতার ও হামলার প্রতিক্রিয়ায় ডা.শাহাদাত হোসেন বলেন, এই হামলা ও গ্রেফতার একটি স্বাধীন রাষ্ট্রের বিজয়ের মাসে কলঙ্কজনক । এই সরকার সকল গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দলগুলোকে স্তব্ধ করে দেওয়ার জন্য এ হামলা চালিয়েছে। আমরা মনে করছি দেশে কোন আইনের শাসন নেই, মানবাধিকার নেই, গণতন্ত্র নেই, বাংলাদেশ একটি গণতান্ত্রহীন ফ্যাসিবাদী রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে।

ফ্যাসিবাদী সরকারের বিরুদ্ধে কিছু বললেই হামলা, মামলা, নির্যাতন শুরু হয়। বিজয়ের মাসে এই ধরনের রাষ্ট্রীয় হামলা ও গ্রেফতার একটি স্বাধীন রাষ্ট্রের জন্য কলঙ্কজনক ছাড়া আর কিছুই নয়। বিএনপির নয়া পল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আজ অগণতান্ত্রিকভাবে স্বৈরাচারী কায়দায় আওয়ামী সন্ত্রাসী বাহিনী ও সরকারের প্রশাসন নিরহ জনতার উপর হামলা চালিয়েছে।নয়া পল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয় থে‌কে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ন মহাসচিব রিজভী আহমেদ,যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালাম, উত্তর এর আহবায়ক আমান উল্লাহ আমান, চেয়ারপার্স‌নের বি‌শেষ সহকারী শিমুল বিশ্বাস, বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানি ও স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভুইয়া জুয়েল সহ অসংখ্যা নেতাকর্মীকে নয়াপল্টন বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

স্বৈরাচারী কায়দায় হামলা ও গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ জানিয়ে ডা. শাহাদাত হোসেন আরো বলেন, কোন স্বৈরাচার সরকার স্বৈরাচারী কায়দায় বেশিদিন টিকে থাকতে পারে নাই, এই স্বৈরাচার সরকারও টিকে থাকতে পারবে না। মামলা হামলা নির্যাতন চালিয়ে বিএনপির গণজোয়ার কে কোনক্রমেই রোধ করা যাবে না।

এর আগে আজ বিকাল দুপুরে কোর্ট হাজিরা শেষে কোট চত্বরে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি’র আহবায়ক ডা. শাহাদাত হোসেন বলেছেন,গ্রেফতার হামলা মামলা দিয়ে বিএনপির গণজোয়ার ঠেকানো যাবে না। সরকার বিনা কারণে বিএনপির নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করছে।

এই সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য ফ্যাসিস্ট কায়দায় দেশ শাসন করছে। দেশ থেকে বিরোধী দল নিশ্চিহ্ন করার ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে। এই সরকার একদলীয় ও বাকশালী সরকার।

আগামী ১০ ডিসেম্বর ঢাকা সমাবেশকে কেন্দ্র করে দেশব্যাপী গণ গ্রেপ্তার চালাচ্ছে। সরকারের পায়ের তলায় মাটি নেই। প্রশাসকে ব্যবহার করে এই সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়।

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নগর বিএনপি’র যুগ্ন আহবায়ক ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, সদস্য এডভোকেট মফিজুল হক ভুঁইয়া,গাজী মোঃ সিরাজ উল্লাহ, আইনজীবীদের মধ্যে উপস্থিত এডভোকেট তারেক আহমেদ, এডভোকেট সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, এডভোকেট এফ এ সেলিম, এডভোকেট এম আনোয়ার হোসেন, এডভোকেট নেজাম উদ্দিন,এডভোকেট লোকমান শাহ, এডভোকেট জায়েদ বিন রশিদ, এডভোকেট সিজন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়