Banglar Chokh | বাংলার চোখ

রিজভী কারাগারে গুরুতর অসুস্থ

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ২২:৩৮, ২৪ জানুয়ারি ২০২৩

রিজভী কারাগারে গুরুতর অসুস্থ

ফাইল ফটো

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন দাবি করে তাঁর স্ত্রী আঞ্জুমান আরা আইভী বলেছেন, ‘গতকাল সোমবার দুপুরে তিনি প্রচণ্ড পেটে ব্যথা অনুভব করেন। সঙ্গে বমিও হয়েছে। পরে তাকে করাগারের ভেতরে কারা হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।’

আজ মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় আইভী জানান, ‘আমি গতকাল সোমবার কারাগেটে গিয়েছিলাম কিছু বই দিতে। সেসময় কিছুই জানতে পারিনি।’

রিজভীর স্ত্রী আরও জানান, ‘স্বৈরাচার এরশাদবিরোধী আন্দোলনের সময় রুহুল কবির রিজভী পেটে গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়েছিলেন। তখন দেশে ও পরে বিদেশে তাঁর পেটে অস্ত্রোপচার হয়। এরপর মাঝেমধ্যে তার পেটে সমস্যা হতো। সেই থেকে প্রায় ত্রিশ বছর ধরে রিজভী হাতের স্পর্শে খাবার খান না। খোলা পানিও খান না। চিকিৎসকের পরামর্শে বোতলজাত পানি পান করতে হয়।’

আইভী আরও জানান, ‘তিনি বোতলজাত পানি কারাগারে পাঠিয়েছেন। কিন্তু রিজভীকে খেতে দেওয়া হচ্ছে কি না তা জানি না।’

পরে আইভী অনতিবিলম্বে রুহুল কবির রিজভীকে নিঃশর্ত মুক্তি দিয়ে উন্নত ও সুচিকিৎসার দাবি জানান।

১৯৮৪ সালে এরশাদবিরোধী আন্দোলনে রুহুল কবির রিজভী পেটে গুলিবিদ্ধ হলে সাবএকিউট ইনটেস্টাইনাল অবসট্টাকসন সমস্যায় ভোগেন। তার পেটে অস্ত্রোপচার থেকে এ সমস্যা হয়। এর আগে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে চিকিৎসা করিয়েছেন।

মহামারি করোনার সময়ও রিজভী করোনাভাইরাসে দুবার আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘ চার মাস রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। সেই থেকে চিকিৎসকের কঠোর নির্দেশনা মেনে জীবনযাপন করতে হয় রিজভীকে।

গত ১০ ডিসেম্বর বিএনপির ঢাকা বিভাগীয় গণসমাবেশকে ঘিরে ৭ ডিসেম্বর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে দলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়। ওদিনই বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে প্রায় সাড়ে চারশতাধিক নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়। সেদিন রুহুল কবির রিজভীকেও আটক করে কারাগারে নেওয়া হয়। 

সম্প্রতি রিজভীকে বিভিন্ন মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। তিনি কারাগারে যাওয়ার আগে দলের বিভিন্ন বিষয়ে গণমাধ্যমের সঙ্গে নিয়মিত কথা বলতেন। বিশেষ করে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে ও হামলা-মামলা নিয়ে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলন করতেন রিজভী।

এরমধ্যে কারাগারে থেকেই গত ১৯ জানুয়ারি এলএলএম পরীক্ষা শেষ করেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। মোট তিনটি পরীক্ষা কারাগারে দেন তিনি।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়