banglarchokh Logo

নিরবে চলে গেলো মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানীর লংমার্চ

মোহাম্মদ সাখাওয়াৎ হোসেন ইবনে মঈন চৌধুরী
বাংলার চোখ
 নিরবে চলে গেলো মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানীর লংমার্চ

বাংলাদেশের জনগনের ন্যায্য অধীকার পানি নিয়ন্ত্রণ করতে হিন্দুস্হান ফারাক্কা বাধ নির্মাণ করে মহান স্বাধীনতার আগে?কিন্তু বাঁধ পাকিস্তান আমলে চালু করা সাহস হিন্দুস্হান দেখাতে পারে নাই।স্বাধীনতার পরবর্তী সরকারের আমলে পরিক্ষা মুলক চালু করে। পরবর্তীতে স্বাধীন বাংলাদেশকে পানি শুন্য করার নীল নক্সা কার্যকর করা শুরু করে।১৯৭৬ সালের ১৬ মে মহান স্বাধীনতার স্বপ্নদ্রোষ্টা, রুপকার,স্হপতি মজলুম জননেতা মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী রাজশাহী কানসাট অভিমুখে লংমার্চ করেন।তখনকার হিন্দুস্হানের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীকে হাত চিঠি ও জনসভায় কঠোর হুশিয়ারি দেন।পরর্বতীতে স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়া উর রহমান এর শাসন আমলে গ্যারান্টিগ্লোজ সহ একটা চুক্তি করতে বাধ্য হয়।দিল্লির আগ্রসনের বিষয়টা জাতিসংঘে উপস্হাপন করেন জিয়া উর রহমান আর প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া। আজ আবার গ্যারন্টি ক্লোজ হীন চুক্তির কারণে পানি আগ্রাসনের কবলে।এর বর্তমান শাসককের ঘনিষ্ঠ বন্ধু আর তার বিনিময়ে বাংলাদেশের ৮০% নাগরিক ও মৌলিক অধীকার থেকে বন্চিত। মজলুম জননেতা স্বাধীনতার পর বলেছিলেন পাকিস্তান থেকে স্বাধীন হয়েছি দিল্লির দাসত্ব করার জন্য নয়।জাতির দুরবস্থা থেকে মুক্তি পেতে হলে দিল্লির দাসত্ব মুক্ত হতে আবার ঐক্যবদ্ধ যুদ্ধের কোন বিকল্প আছে কি?

লেখক: মোহাম্মদ সাখাওয়াৎ হোসেন ইবনে মঈন চৌধুরী চেয়ারম্যান বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক এ্যাসোসিয়েশন(বিআরজেএ)

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কপিরাইট © 2021 বাংলারচোখ.কম কর্তৃক সর্ব স্বত্ব ® সংরক্ষিত। Developed by eMythMakers.com