banglarchokh Logo

রাত পোহালেই ফিনল্যান্ডে সিটি কাউন্সিলে ভোটের লড়াইঃ শেষ মুহূর্তের প্রচারে ব্যস্ত বাংলাদেশি মবিন

জামান সরকার, হেলসিংকি থেকে
বাংলার চোখ
 রাত পোহালেই ফিনল্যান্ডে সিটি কাউন্সিলে ভোটের লড়াইঃ শেষ মুহূর্তের প্রচারে ব্যস্ত বাংলাদেশি মবিন

ফিনল্যান্ডে সিটি কাউন্সিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামীকাল ১৩ জুন (রবিবার)। ভোটের লড়াই শুরু হতে আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা বাকি।

রোববার সকাল নয়টা থেকে বিকেল আটটা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোট গ্রহণ চলবে। এবারের ভোটে দেশের সব নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল অংশ নিচ্ছে। ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে ভোট গ্রহণের সব প্রস্তুতি। এই নির্বাচনে ২৬শে মে থেকে ৮ জুন পর্যন্ত অগ্রিম ভোট বা এডভান্স ভোটিংও শেষ হয়েছে।

এদিকে শেষ মুহূর্তের প্রচারে ব্যস্ত আছেন ন্যাশনাল কোয়ালিশ পার্টি মনোনীত এসপো সিটি কাউন্সিলের প্রার্থী বাংলাদেশি মবিন মোহাম্মদ। প্রতিশ্রুতির ফুলঝুরি নিয়ে মবিন ছুটছেন অভিবাসী ভোটারের দ্বারে দ্বারে। বাংলাদেশী প্রার্থী মবিনের প্রচার-প্রচারণায় জমে উঠেছে ফিনল্যান্ডে সিটি কাউন্সিল নির্বাচন।

প্রার্থী মবিন মোহাম্মদ ভোট চেয়ে চষে বেড়াচ্ছেন তার নির্বাচনী এলাকা। মবিনের নির্বাচনী প্রচারনায় বিপুল সংখ্যক অভিবাসীর স্বতঃস্ফূর্ত ও স্বপ্রণোদিত অংশগ্রহণে আসন্ন এসপো সিটি কাউন্সিল ইলেকশন বাংলাদেশিদের মাঝে প্রাণবন্ত হয়ে ওঠেছে।

ফিনল্যান্ডে প্রবাসী বাংলাদেশিদের সামাজিক কর্মকাণ্ডে মবিন মোহাম্মদ একটি উজ্জ্বল নাম। কুমিল্লায় জন্মগ্রহণকারী ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মবিন মোহাম্মদ ব্যবসার পাশাপাশি ফিনিশ রাজনীতির সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন। ১৯৯৩ সালে তিনি ফিনল্যান্ডে পাড়ি জমান।

এই নির্বাচনে ১৯টি রাজনৈতিক দল অংশ নিলেও প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে মূলত সোস্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টি, ন্যাশনাল কোয়ালিশ পার্টি, ফিনস পার্টি, সেন্ট্রাল পার্টি, দ্যা গ্রীনস ও সুইডিশ পিপলস পার্টির মধ্যে। সাধারণ মানুষের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু হলো কারা পরবর্তী চার বছরের জন্য সিটি কাউন্সিল পরিচালনার দায়িত্বে আসছে।

সকাল নয়টা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত ভোট গ্রহণের পর শুরু হবে ভোট গণনা। আসনগুলির ভোট গ্রহণ শেষ হওয়ার দুই ঘণ্টার মধ্যে ফলাফল পাওয়ার কথা জানিয়েছেন নির্বাচন কর্মকর্তারা। তবে ভোট হওয়া বেশ কয়েকটি আসনগুলোর ফল পেতে কিছুটা সময় লাগতে পারে। অবশ্য নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারা আশা করছেন, রাত ১০ থেকে ১২টার মধ্যে সিটি কাউন্সিল কারা গঠন করছে, সে সম্পর্কে জানতে পারবে সাধারণ মানুষ।

নির্বাচনের সব ধরনের প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন করেছে ফিনিশ নির্বাচন কমিশন। ভোটের দিন সকাল নয়টার আগেই কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌঁছানো হবে ভোটের উপকরণও।

ভোটের দিন কেন্দ্রে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ বা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা নিয়োজিত থাকবেন না। তার কারণ ফিনল্যান্ডে বরাবরই সুষ্ঠ, অবাধ, অংশগ্রণমূলক ও উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে।

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কপিরাইট © 2021 বাংলারচোখ.কম কর্তৃক সর্ব স্বত্ব ® সংরক্ষিত। Developed by eMythMakers.com