banglarchokh Logo

করোনায় গঁদখালী ফুলের বাজার মন্দা

মালেকুজ্জামান কাকা, যশোর থেকে
বাংলার চোখ
 করোনায় গঁদখালী ফুলের বাজার মন্দা

কোভিড ১৯ (করোনা) থামিয়ে দিয়েছে পৃথিবীর উন্নয়নের গতি। এর থেকে বাদ যায়নি কৃষি খাত। তবে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ খাত ফুল। এই ধারাবাহিকতায় ফুল চাষে নেমে এসেছে করুন দিন।
গত বছর লকডাউনের শুর। যেখানে মানুষ ঘর হতে বেরুতেই পারেনা ফুল কিনবে কে? লক্ষ লক্ষ টাকার স্বপ্ন বিলীন হয়েছে। তবু হাল ছাড়েনি ফুল চাষীরা। নতুন ভাবে প্রস্ততি নিয়ে তারা চাষে নামে। কিন্ত বিধি বাম। প্রথমে আম্পান, এরপর করোনা ভাইরাস। এ যেন মরার উপর খাড়ার ঘাঁ। প্রবাল ঘূর্ণিঝড়ে সব হারিয়ে মানবেতর জীবন কাটানো সেই ফুলচাষী পুনারাই স্বপ্ন বোনে ফুলে। বিগত ১৪ ফেব্রুয়ারী বিশ্ব ভালোবাসা দিবস ও ২১ ফেব্রুয়ারী আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবসে কিছুটা পুষিয়ে নিয়েছিল ফুল চাষিরা। পানিসারার বিভিন্ন স্থানে মেলা বসে ফুলের। দুর দুরান্ত থেকে লোকজনের বেজায় সমাগম হয় সেসময়। বেচাকেনা হয় ভালোই। কিন্ত তারপরে আবারো যা তা অবস্থা।
নতুন করে লকডাউন শেষ না-হতেই বাড়ছে লকডাউনের মেয়াদ। খুলছেনা স্কুল, কলেজ। আয়োজন হচ্ছেনা বিয়ে, বৌভাত, সুন্নাতে-খাতনা, জন্মদিনের মত উৎসবের। এখন ক্ষেতের ফুল নষ্ট হচ্ছে ক্ষেতে। কেউ কেউ পেট চালাতে ফেরি করে ফুল বিক্রি করছে ২ টাকার ফুল ২০ পঁয়সা মূল্যে।
ফুলেররাজ্য গঁদখালীর পানিসারার কয়েক জন ভুক্তভোগী কৃষক তাদের বেদনার কথা ব্যক্ত করেছে। আনছার আলী, বাবু, কউসার ও মিজানুর বলেন সরকারি সহযোগিতা না পেলে আমাদের ভিক্ষা করে পেট চালাতে হবে। গত কয়েক মাস একেবারে ফুল বেচা-কেনা নেই বলা যায়।

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কপিরাইট © 2021 বাংলারচোখ.কম কর্তৃক সর্ব স্বত্ব ® সংরক্ষিত। Developed by eMythMakers.com