banglarchokh Logo

জামালগঞ্জে জাতীয় পরিচয় পত্র স্মার্ট কার্ড বিতরন সম্পন্ন

জামালগঞ্জ প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 জামালগঞ্জে জাতীয় পরিচয় পত্র স্মার্ট কার্ড বিতরন সম্পন্ন

সত্তোর বছরের বৃদ্ধা, এক পাশে ছেলে আরেক পাশে পুত্রবধু। বৃদ্ধার হাতে লাঠি, লাইনে দাড়িয়ে স্মার্ট কার্ড সংগ্রহ করছেন। মুখে হাসির ছাপ উৎসবে রুপ নিলো। এই ভাবেই হাসি খুশি আর উৎসব মুখর পরিবেশে সাড়াদিন স্মার্ট কার্ড সংগ্রহ করতে দেখা গেছে। দীর্ঘ লাইনে দাড়িয়ে টুকেন নাম্বার সংগ্রহ করতে বিরম্বনার অন্ত নেই। তবুও স্মার্ট কার্ড হাতে পেয়ে শমসের নামের একব্যক্তি বলেন শুনেছি এই কার্ড দিয়ে অনেক কাজ হয়। কার্ডে অনেক তথ্য থাকে।
ইতিমধ্যে জামালগঞ্জ উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে উন্নতমানের জাতীয় পরিচয়পত্র (স্মার্ট কার্ড) বিতরণ কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে। ফেব্রুয়ারী মাসের ২৪ তারিখ থেকে প্রতিদিন সকাল ৯ টা থেকে ৫ টা পর্যন্ত এই কার্ড বিতরন করা হয়। ৫ই এপ্রিল থেকে লকডাউন থাকায় স্বাস্থ্য বিধি মেনে সীমিত পরিসরে প্রবাসী ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র/ছাত্রীদের জন্য নির্বাচন অফিসে স্মার্ট কার্ড বিতরন অব্যাহত রাখা হয়। লকডাউন উঠে গেলে ১৩ই আগস্ট থেকে প্রতিটি ইউনিয়নে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে গিয়ে এই কার্ড বিতরণ করা হয়। ২১ শে সেপ্টেম্বর এই বিতরন কার্যক্রম সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন হয়।
উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায় জাতীয় পরিচয় পত্রে (স্মার্ট কার্ড) এ ব্যক্তির নাম (বাংলা ও ইংরেজীতে) মা-বাবার নাম, জন্ম তারিখ ও জাতীয় পরিচয়পত্রের নিবন্ধন নম্বর দৃশ্যমান থাকছে। কার্ডের পেছনে থাকছে ব্যক্তির ভোটার এলাকার ঠিকানা, রক্তের গ্রুপ ও জন্মস্থান। তবে সব মিলিয়ে স্মার্ট কার্ডের মধ্যে থাকা চিপ বা তথ্য ভান্ডারে অনেক ধরনের তথ্য থাকছে। যা মেশিনে পাঠ যোগ্য হবে।
২২ ধরনের সেবা পাওয়ার ক্ষেত্রে এই স্মার্ট কার্ড কাজে লাগবে। আয়কর দাতা সনাক্ত করন নম্বর পাওয়া, শেয়ার আবেদন ও বিত্ত হিসাব খোলা, ড্রাইভিং লাইসেন্স করা ও নবায়ন, ট্রেড লাইসেন্স করা, পার্সপোর্ট করা ও নবায়ন, যানবাহন রেজিষ্টেশন, ব্যাংক হিসাব খোলা, নিবার্চনে ভোটার সনাক্ত করন, ব্যাংক ঋণ, গ্যাস পানি বিদ্যুতের সংযোগ, সরকারী বিভিন্ন ভাতা উত্তোলন, টেলিফোন ও মোবাইলের সংযোগ, ভর্তুকি সাহায্য সনাক্ত করন, ব্যবসায় আইডেন্টি ফিকেশন নম্বর পাওয়া, সিকিওরড ওয়েব লগে ইন করার ক্ষেত্রে এই স্মার্ট কার্ড কাজে লাগবে।
গতকাল জামালগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নে ৭নং ওয়ার্ডে ধানুয়ালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কেন্দ্রের গিয়ে দেখা যায় দীর্ঘ লাইন ধরে স্মার্ট কার্ডের জন্য অপেক্ষা করছে লোকজন। আগের জাতীয় পরিচয়পত্র দেখানোর পর স্মার্ট কার্ডের নম্বর খোজে বের করা হচ্ছে। এরপর অন্য একটি কক্ষে ভোটারের হাতের ১০ আঙ্গুলের ছাপ ও ২ চোখের ছবি নেওয়া হচ্ছে। এরপর সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি হাতে স্মার্ট কার্ড তুলে দেওয়া হচ্ছে।
জামালগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আনোয়ারুল ইসলাম বলেন গত মাসের ২৪ তারিখ থেকে স্মার্ট কার্ড বিতরণ শুরু করা হয়েছে। সরকারী ছুটির দিন ছাড়া উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে গিয়ে স্মার্ট কার্ড সুষ্ঠ ভাবে বিতরণ করা হয়েছে। জাতীয় পরিচয়পত্র (স্মার্ট কার্ড ) নিজ ওয়ার্ডে তাদের নিজ হাতে পেয়ে তারা আনন্দিত হয়েছে।
এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত দেব বলেন স্মার্ট কার্ড বিতরনের মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার যে লক্ষ্য তা বাস্তবায়নের পথে অনেকটা এগিয়ে গিয়েছে। স্মার্ট কার্ড বিতরণ সুষ্ঠ ভাবে করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানাই। স্মার্ট কার্ডের মাধ্যমে সরকারী সেবা প্রদানে দ্রুততা এবং সচ্ছতা নিশ্চিত হবে।
এই বিষয়ে জামালগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইকবাল আল আজাদ বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে এই স্মার্ট কার্ড বিশেষ গুরুত্ব রাখবে। এজন্য মাননীয় প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে জামালগঞ্জ উপজেলার সর্বস্তরের জনসাধারনের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাই। পরিশেষে ধন্যবাদ জানাই উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে। তারা তৃনমূল পর্র্যায়ে সুষ্ঠ ও সুন্দর ভাবে উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে স্মার্ট কার্ড বিতরণ করার জন্য।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কপিরাইট © 2021 বাংলারচোখ.কম কর্তৃক সর্ব স্বত্ব ® সংরক্ষিত। Developed by eMythMakers.com