banglarchokh Logo

সৈয়দপুরে মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন ও সমাবেশ

সৈয়দপুর (নীলফামারী)প্রতিনিধি
বাংলার চোখ
 সৈয়দপুরে মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন ও সমাবেশ

নীলফামারীর সৈয়দপুরে মুক্তিযোদ্ধাদের অবমাননাকারী, যুদ্ধাপরাধী, স্বাধীনতা বিরোধী ও রাজাকার সন্তান দিলনেওয়াজ খানকে গ্রেপ্তারের দাবিতে বিশাল মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার (১৬ অক্টোবর) শহরের মুক্তিযোদ্ধা ভবনের সামনে শহীদ ডা. জিকরুল হক সড়কে ওই মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সৈয়দপুর উপজেলা কমান্ড।
বেলা ১১ টা থেকে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ড, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড ও মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সন্তানের সংগঠন প্রজন্ম ’৭১ এর সৈয়দপুরে জেলা শাখার ব্যানারে বিপুল সংখ্যক মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তান, প্রজন্ম ৭১ এর সদস্য ছাড়াও স্থানীয় উপজেলা এবং পৌর আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতা কর্মীরা অংশ নেন।
এ মানববন্ধন চলাকালের সেখানে বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. সামসুল হক সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত এক প্রতিবাদ সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মহসিনুল হক মহসিন, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হক, বিশিষ্ট আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যক্ষ সাখাওয়াৎ হোসেন খোকন, প্রকৌশলী একেএম রাশেদুজ্জামান রাশেদ, শহীদ পরিবারের সন্তান প্রকৌশলী মোনায়মুল হক, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ইউনুছ আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ বসুনিয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা মির্জা সালাহউদ্দিন বেগ, এ্যাডভোকেট সুজাউদ -দৌল্লা সুজা প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের রক্তের বিনিময়ে আমাদের এ দেশ স্বাধীন হয়েছে। আজ তারাই জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। অথচ আজ স্বাধীনতার দীর্ঘ ৫০ বছর পর সৈয়দপুরে একজন রাজাকার সন্তান দিলনেওয়াজ খান এক সভায় বক্তব্য দিয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের অবমাননা করেছেন। যা আমাদের এ স্বাধীন দেশে মুক্তিযোদ্ধারা কোনভাবে মেনে নেবেন না। যদিও জাতিরজনক বঙ্গবন্ধুর কন্যা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ রয়েছে আওয়ামী লীগ তথা এর সহযোগী অঙ্গসংগঠনের কোন রাজাকার, স্বাধীনতা বিরোধীদের স্থান হবে না। অথচ আজ স্বাধীন দেশে সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী যুব লীগের আহবায়ক হিসেবে রয়েছে রাজাকার ও যুদ্ধাপরাধী সন্তান দিননেওয়াজ খান। তাকে সংগঠন থেকে বহিস্কারের জন্য স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের পক্ষ থেকে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী বরাবরে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। কিন্তু আজ অবধি তাকে সৈয়দপুর উপজেলা যুব লীগের আহবায়কের পদ কিংবা সংগঠন থেকে বহিস্কার করা হয়নি। সমাবেশে বক্তারা তাদের বক্তব্যে রাজাকার পুত্র দিলনেওয়াজকে আওয়ামী যুব লীগের সৈয়দপুর উপজেলা শাখার পদ থেকে বহিস্কারের জোর দাবি জানান। সেই সঙ্গে মুক্তিযোদ্ধাদের অবমাননাকারী দিলনেওয়াজকে অবিলম্বে গ্রেপ্তারের দাবি জানান। অন্যথায় আগামী তাকে দল থেকে বহিস্কার ও গ্রেপ্তারের দাবিতে কঠোর আন্দোলন কর্মসূচি দেয়ার হুঁশিয়ারি উচ্চারন করে সমাবেশে বক্তারা।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কপিরাইট © 2022 বাংলারচোখ.কম কর্তৃক সর্ব স্বত্ব ® সংরক্ষিত। Developed by eMythMakers.com